scorecardresearch

বড় খবর

‘ভারত জোড়’য় আরএসএসের খাঁকি হাফপ্যান্ট জ্বলছে, কংগ্রেসের পোস্টে রেগে আগুন সংঘ-বিজেপি

আগুন জ্বালাতে চাইছে কংগ্রেস। চরম হুঁশিয়ারির বিজেপির।

‘ভারত জোড়’য় আরএসএসের খাঁকি হাফপ্যান্ট জ্বলছে, কংগ্রেসের পোস্টে রেগে আগুন সংঘ-বিজেপি
'ভারত জোড় যাত্রা'য় রাহুল গান্ধী

বিজেপি কটাক্ষ করেছিল রাহুল গান্ধীর দামি টি-শার্ট নিয়ে। পালটা, কংগ্রেসের সোশ্যাল সাইটে দেখা গেল আরএসএসের খাঁকি প্যান্ট পুড়ছে। সঙ্গে লেখা, ‘এখনও ১৪৫ দিন বাকি।’ কংগ্রেসের ‘ভারত জোড় যাত্রা’ সোমবারই পঞ্চম দিনে পড়েছে। ১৫০ দিন ধরে এই কর্মসূচি চলবে। বার্তায় সেকথাই বোঝাতে চেয়েছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। তাঁরা সঙ্গে লিখেছেন, ‘বিজেপি এবং আরএসএসের ক্ষয়ক্ষতি এবং ঘৃণা থেকে দেশকে মুক্ত করতে, ধাপে ধাপে আমরা লক্ষ্যে পৌঁছব।’ সোমবার কংগ্রেস তার সোশ্যাল সাইটে এই টুইট করার পরই শুরু হয়েছে তীব্র বিতর্ক। দ্রুত জবাব দিয়েছে বিজেপিও। অভিযোগ করেছে, ‘ভারত জোড় যাত্রার নামে কংগ্রেস হিংসায় মদত দিচ্ছে। আগুন জ্বালাচ্ছে। জাতীয়তাবাদীদের আঘাত করছে।’

এই প্রসঙ্গে আরএসএস নেতা মনমোহন বৈদ্য বলেন, ‘তারা ঘৃণা ছড়াতেই জনগণের সঙ্গে জুড়তে চাইছে। তারা দীর্ঘদিন ধরেই এখানে হিংসা আমদানি করছে। তাদের বাবা, ঠাকুরদারা আরএসএসকে থামানোর চেষ্টা করেছেন। কিন্তু, আরএসএস জনগণের সমর্থন পেয়ে উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে।’ সাংবাদিক বৈঠকে কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ বলেন, ‘যারা ঘৃণা, গোঁড়ামি, কুসংস্কার ছড়াচ্ছে, তাদের একই রাস্তায় জবাব দেওয়া হবে। আরএসএস এবং বিজেপি এতদিন কংগ্রেসের থেকে আক্রমণাত্মক জবাব পায়নি। কিন্তু, যদি তারা আক্রমণাত্মক হয়, আমরা দ্বিগুণ আক্রমণাত্মক হব। এবার তাদেরকে সেটা বুঝতে হবে।’

কংগ্রেসের সোশ্যাল মিডিয়ায় খাঁকি প্যান্ট জ্বালানোর ছবি প্রকাশের তীব্র সমালোচনা করেছেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। তিনি বলেছেন, এটা কংগ্রেসের ‘লজ্জাজনক মনোভাব’-এর পরিচয়। হিমন্তর কথায়, ‘কংগ্রেস এখন আর তাদের প্রকৃত উদ্দেশ্য গোপন রাখছে না। ভারত জোড় যাত্রার আড়ালে তারা এখন ভারত ভাঙতে চাইছে। তাদের এইভাবে জাতীয়তাবাদীদের আঘাত করার চেষ্টাকে ভারতবাসী ক্ষমা করবেন না।’

আরও পড়ুন- বিজেপি মুদ্রাস্ফীতি আর বেকারত্বর প্রসঙ্গ ঢাকার চেষ্টা করছে, অভিযোগ কংগ্রেসের

বিজেপির সোশ্যাল মিডিয়ার প্রধান অমিত মালব্য এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘মাত্র পাঁচ দিন হল কংগ্রেস ফুঁসতে শুরু করেছে। যে দল নেলি থেকে ভাগলপুর, খয়েরলাঞ্জি থেকে গোধরা, হাশিমপুরা থেকে শিখ গণহত্যা পর্যন্ত সংগঠিত হিংসার রাজনীতি করেছে, তারা কখনও ভারতকে জুড়তে পারে না। কংগ্রেস শয়তান। একে ইতিহাসের আস্তাকুড়ে ছুডে ফেলা উচিত।’ বিজেপি সাংসদ প্রকাশ জাভরেকর টুইট করেছেন, ‘আরএসএসের পুরোনো পোশাক জ্বালানোর ছবি টুইট করে হিংসা উসকে দেওয়ার জন্য আমরা কংগ্রেসের নিন্দা করছি। এটা দেশপ্রেমী আরএসএসের ওপর আক্রমণই শুধু নয়। এটা ভারতীয় গণতন্ত্রের ভিত্তির ওপরও আক্রমণ।’

দক্ষিণ বেঙ্গালুরুর বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্য টুইট করেছেন, ‘একটি সাংবিধানিক ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত রাজনৈতিক দলের নেতা হওয়ার বদলে রাহুল গান্ধী দেশের বিরুদ্ধেই লড়াই শুরু করেছেন।’ বিজেপি যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী এই প্রসঙ্গে টুইট করেছেন, ‘কংগ্রেসের আগুন ১৯৮৪ সালে দিল্লিকে জ্বালিয়েছিল। ২০০২ সালে গোধরায় ৫৯ জন করসেবককে জ্বালিয়ে দিয়েছিল। ফের তারা নতুন করে হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Congress puts up image of khaki shorts on fire