বড় খবর

‘অভিজ্ঞতা বেড়েছে বলেই দায়িত্ব বাড়াল দল’, পদ খুইয়ে বলছেন দিলীপ

নিজের উত্তরসূরী হিসেবে সুকান্ত মজুমদারের নাম তিনিই দলের শীর্ষ নেতাদের কাছে পাঠিয়েছিলেন। এদিন এমনই জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ

Bhawanipur By election should be postponed, demands dilip ghosh
দিলীপের নিশানায় রাজ্য সরকার

সোমবারই দলের রাজ্য সভাপতির পদ খুইয়েছেন দিলীপ ঘোষ। বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতির পদে বসানো হয়েছে তাঁকে। রাজ্যে দলের সর্বোচ্চ পদ খুইয়েও রোজকার রুটিনে বদল নেই দিলীপ ঘোষের। প্রতিদিনের মতো আজও নিউটাউনে বেরিয়েছিলেন প্রাতঃভ্রমণে। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ এদিন বলেন, ”সাধারণ কর্মী হিসেবেই থাকব। আমায় যাঁরা দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট করেছেন, তাঁরাই ঠিক করবেন কোথায় আমায় কাজে লাগাবেন।” কাজের অভিজ্ঞতা বেড়েছে বলেই দল তাঁকে আরও বড় দায়িত্বে এনেছে বলে মনে করছেন গেরুয়া দলের এই সাংসদ।

মেয়াদ শেষের আগেই বিজেপি রাজ্য সভাপতির পদ থেকে সরানো হয়েছে দিলীপ ঘোষকে। তাঁর জায়গায় এবার সেই পদে বসেছেন বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ তথা অধ্যাপক সুকান্ত মজুমদার। রাজনৈতিক মহলের মতে, একুশের বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশের পর থেকে পদ্ম শিবিরে ভাঙন জারি রয়েছে। রাজ্যস্তরের পাশাপাশি জেলাস্তরেও ঘর ভাঙছে বিজেপির। দলের ছোট-বড় অনেক নেতা-কর্মীই পদ্ম ছেড়ে যাচ্ছেন জোড়াফুলে। অন্যদিকে, দিলীপ ঘোষের বাচনভঙ্গি নিয়েও ‘আপত্তি’ রয়েছে দলের একাংশের। তাঁদের অনেকের মতে, দিলীপ ঘোষের একের পর এক বক্তব্যে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে। সেই কারণেই এরাজ্যে এখনও পর্যন্ত শিক্ষিত সমাজের সমর্থন পায়নি গেরুয়া শিবির।

মঙ্গলবার প্রতিদিনের মতোই প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়েছিলেন দিলীপ গোষ। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এদিন তিনি বলেন, ”আমাকে সরানো হয়নি। অভিজ্ঞতা বেড়েছে, তাই বড় দায়িত্ব দিয়েছে দল। এখানে এমপি আছি। সাধারণ কর্মী হিসেবে থাকব।” দলের পরবর্তী রাজ্য সভাপতি হিসেবে আরও বেশ কয়েকটি নামের পাশাপাশি সুকান্ত মজুমদারের নাম তিনিই দলের শীর্ষ নেতাদের কাছে পাঠিয়েছিলেন বলে এদিন জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। নিজের উত্তরসূরী সম্পর্কে এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, ”সুকান্ত বুদ্ধিমান ছেলে। শিক্ষিত ছেলে। ও ভালো কাজ করবে।”

এদিন ফের একবার বাবুল সুপ্রিয়র দলত্যাগ নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল দিলীপ ঘোষকে। রাখঢাক না রেখে ফের সদ্য প্রাক্তন বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন, ”শুধু বাবুল সুপ্রিয় কেন? আমি এখনও বলছি, অনেকেই যাবেন। তবে তাতে দলের কোনও ক্ষতি হবে না।”

আরও পড়ুন- Exclusive: ‘তালিবানি আদর্শে বিশ্বাসী তৃণমূল, হিংস্র শ্বাপদের সঙ্গে লড়াই’, দায়িত্ব নিয়েই বিস্ফোরক সুকান্ত মজুমদার

রাজনৈতিক মহলের মতে, বাংলায় দলের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি দেখে দিলীপ ঘোষকে বিজেপি রাজ্য সভাপতির পদ থেকে সরিয়েছেন জেপি নাড্ডা, অমিত শাহরা। আচমকা নয়, জানা গিয়েছে সোমবার দুপুরেই দিলীপ ঘোষকে ফোন করেছিলেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। তাঁকে সর্বভারতীয় স্তরের কোনও পদ দেওয়া হতে পারে বলেও তিনি জানিয়েছিলেন। সোমবার সন্ধেয় দিলীপ ঘোষের জায়গায় বঙ্গ বিজেপির দায়িত্বে আনা হয় সুকান্ত মজুমদারকে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Due to his experience party gives him more responsibility says dilip ghosh

Next Story
এবার কি রাজস্থান-ছত্তিশগড়েও নেতৃত্বে বদল? কংগ্রেসের হাঁড়ির খবর প্রকাশ্যেBy fight in the polls and get some vote congress is able to play opposition role in bengal
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com