scorecardresearch

বড় খবর

আরও এক বিধায়ককে সমন ইডির, অস্বস্তিতে শাসক দল

বিভিন্ন রাজ্য-সহ ৩০টিরও বেশি জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়েছে।

আরও এক বিধায়ককে সমন ইডির, অস্বস্তিতে শাসক দল

ফের আরও এক আপ বিধায়ককে নোটিস পাঠাল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। যে আপ বিধায়ককে নোটিস পাঠানো হয়েছে, তাঁর নাম দুর্গেশ পাঠক। এই নিয়ে চতুর্থ আপ বিধায়ককে নোটিস পাঠালেন ইডি কর্তারা। আর, তা-ও পাঠানো হল দিল্লি সরকারের বাতিল হওয়া আবগারি নীতির জন্য। এর আগে দিল্লির প্রাক্তন মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন, উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া, ওখলার বিধায়ক আমানাতুল্লাহ খানকে নোটিস পাঠিয়েছে ইডি।

পালটা মুখ খুলেছেন আপ নেতৃত্বও। দলের তরফে মণীশ সিসোদিয়া অভিযোগ করেছেন, ‘বিজেপির কথামতোই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা আপ নেতাদের নোটিস পাঠাচ্ছে। এর একমাত্র কারণ, সামনেই দিল্লি পুরসভার নির্বাচন। আর, সেই কারণেই দুর্গেশ পাঠককে সমন পাঠানো হয়েছে। দুর্গেশ পাঠক দিল্লি মিউনিসিপ্যাল কমিশনের নির্বাচনে আপের নির্বাচনী ইনচার্জ। দিল্লি সরকারের আবগারি নীতির সঙ্গে আপের দিল্লি পুরসভার নির্বাচনী ইনচার্জের কি সম্পর্ক? আবগারি নীতি না দিল্লি পুরসভা নির্বাচন, কোনটা এদের টার্গেট?’

আপ সূত্রে খবর, দুর্গেশ পাঠক বর্তমানে রাজিন্দর নগরের বিধায়ক। ২০১২ সালে দিল্লির রামলীলা ময়দানে আম আদমি পার্টি গঠনের সময় থেকে তিনি দলের সঙ্গে জড়িত। তিন মাস আগে দুর্গেশ পাঠক রাজিন্দর নগর উপনির্বাচনে জয়ী হন। চার আপ বিধায়কের মধ্যে সত্যেন্দ্র জৈনকে গত ৩০ মে আর্থিক তছরুপের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল। সম্প্রতি আমানাতুল্লাহ খানের বাড়ি-সহ আরও চার জায়গায় দিল্লি পুলিশের অপরাধদমন শাখা অভিযান চালায়। সেখান থেকে লাইসেন্সহীন বন্দুক এবং কিছু পরিমাণ অর্থ উদ্ধার করে। এরপরই খানকে ১৬ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করা হয়েছিল।

সিসোদিয়ার বিরুদ্ধে বাতিল মদ নীতিতে দুর্নীতির অভিযোগে একাধিক অভিযোগ দায়ের হয়েছে। দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর বিনাই সাক্সেনার সুপারিশের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলো এই তদন্ত চালাচ্ছে। বাতিল আবগারি নীতিতে ১৪৪ কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ। এরপরই সিসোদিয়ার দিল্লির বাড়িতে অভিযান চালায় সিবিআই। পাশাপাশি অন্যান্য রাজ্য-সহ আরও ৩০টি জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়েছে।

আরও পড়ুন- অমরিন্দরের রঙও গেরুয়া! নাড্ডার সঙ্গে বৈঠক, নেতাদের দলত্যাগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ কংগ্রেস

এই ব্যাপারে আম আদমি পার্টির জাতীয় আহ্বায়ক অরবিন্দ কেজরিওয়াল তাঁর প্রথম জাতীয় সম্মেলনে অভিযোগ করেছেন, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ইডি-সিবিআইকে ব্যবহার করছে। আর, এই সব কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার সাহায্যে দিল্লির আপ সরকারকে বিপর্যস্ত করার চেষ্টা করছে। এই ব্যাপারে কেজরিওয়াল বলেন, ‘ভগবান কৃষ্ণের মত ভগবান আপকে লড়াই করে দেশের সংবিধান রক্ষা করার জন্য পাঠিয়েছে।’ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দলের এই জাতীয় সম্মেলনে ১,৫০০ প্রতিনিধি অংশ নিয়েছিলেন। আপের সেই সমস্ত প্রতিনিধিরাও জানিয়েছেন, দেশের স্বার্থে তাঁরা প্রয়োজনে জেলেও যেতে রাজি। কোনও ভয়ের কাছে মাথা নত করতে রাজি নয়।

এর মধ্যেই সোমবার সত্যেন্দ্র জৈনের মামলায় স্থগিতাদেশ দিয়েছে আদালত। ইডি জৈনের বিরুদ্ধে মামলাগুলো বিশেষ আদালত থেকে সরানোর জন্য আবেদন করেছিল। তার প্রেক্ষিতেই জৈনের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়ায় আদালত স্থগিতাদেশ দিয়েছে।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ed summons aap mla durgesh pathak in liquor policy probe