বড় খবর

মুখ্যমন্ত্রী আপনি ‘পাহাড় প্রমাণ ব্যর্থতা’ ঢাকতেই ‘স্ট্রিট ফাইটার’ অবতার ধারণ করেছেন: রাজ্যপাল ধনকড়

করোনা আবহে রাজ্যপাল-মুখ্যমন্ত্রী পত্র সংঘাত চরমে। এদিন ১৪ পাতার চিঠিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরাসরি আক্রমণ করলেন জগদীপ ধনকড়।

‘দোষ ঢাকতেই’ অজুহাত খাড়া করে অভিযোগের কায়দায় বারংবার আক্রমণ শানাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সরাসরি এইভাবেই মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। চিঠিতে লিখলেন, ‘পাহাড় প্রমাণ ব্যর্থতা ঢাকতেই আপনি স্ট্রিট ফাইটার অবতার ধারণ করেছেন।’ করোনা আবহে মুখ্যমন্ত্রীর ‘মনোনিত রাজ্যপাল-নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী’ চিঠির জবাবে বৃহস্পতিবারই পত্রবোমার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ধনকড়। শুক্রবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে ১৪ পাতার চিঠি লেখেন রাজ্যপাল। রাজ্যের সাংবিধানিক ও প্রশাসনিক প্রধানের এহেন তরজা নজিরবিহীন।

চিঠিতে রাজ্যপাল লিখেছেন, ‘রাজ্যবাসী যখন চরম দুর্ভোগে, সংবাদ মাধ্যম বিভ্রান্ত, স্বাস্থ্যকর্মীরা চাপে রয়েছেন, আপনার দলের লোক না হলে কার্যত যখন মানুষের মানবাধিকা ক্ষুণ্ণ – তখন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আপনার সরকার ব্যর্থ। যা ঢাকতেই দোষারোপের কৌশল অবলম্বন করেছেন আপনি। রাজনীতিকরণের ফলে পুলিশ ও প্রশাসন দুর্বল হয়ে পড়েছে। এখান থেকে পালানোর পথ হিসাবে আপননি ভেবেছিলেন রাস্তায় নেমে ক্রমাগত অভিযোগ করে যাবেন। সময় থাকতেই দিক নির্দেশ করছি যে, সংকটের সময় এই ধরণের মনোভাব রাজ্যবাসীর চরম ক্ষতি করে দিতে পারে।

আরও পড়ুন- ‘আমি নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী, আপনি মনোনীত রাজ্যপাল’, ধনকড়কে পত্রাঘাত মমতার

লকডাউনে মানুষকে সচেতন করতে শহরের বিভিন্নপ্রান্তে গিয়ে বক্তব্য রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী। যা ভালভাবে নেননি রাজ্যপাল। চিঠিতে তিনি লেখেন, ‘যাঁদের একটু সাহস রয়েছে, তাঁদের বলুন আপনাকে আয়না দেখাতে। এই সংকটের পরিস্থিতিতে মাইক হাতে মুখ্যমন্ত্রীর ঘুরে বেড়ানো কতটা বুদ্ধিমানের কাজ হচ্ছে। এই মুহূর্তে আসল কাজ ও সুশাসন দরকার, নাটক বা রাজনীতি নয়।’ এছাড়াওতিনি লেখেন, ‘রাজ্যপাল ও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আপনার অসাংবিধানিক যুদ্ধংদেহী মনোভাব আসলে আইনকে নিজের মনে করার পরিচায়ক। অবশ্যই এটি গণতন্ত্র বিরোধী এবং আপনি এটিই অনুশীলন করেন।’

বাদুড়িয়ায় দিন কয়েক আগেই পুলিশ জনতা সংঘর্ষকে সমস্য়ার হিম শালের চূড়া বলে উল্লেখ করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। চিঠিতে রাজ্যের সাংবিধানিক প্রদান লেখেন, ‘কোভিড-১৯ মোকাবিলায় অব্যবস্থা অন্যতম কারণ হল আপানার দুর্ভাগ্যজনক পদক্ষেপ ও আইনকে নিজের মনে করার মানসিকতা। রাজ্যে কারোর একার নিয়ন্ত্রণে চলতে পারে না। রাজ্য শাসন সংবিধান মোতাবেক হতে হবে, যার প্রতি আপনার বিশেষ নজর নেই।’

আরও পড়ুন- পত্রযুদ্ধ! ‘আপনি পুরোপুরি ব্যর্থ’, মমতাকে পাল্টা ৫ পাতারই চিঠি রাজ্যপালের

করোনা আবহে সপ্তমে মুখ্যমন্ত্রী বনাম রাজ্যপাল পত্রসংঘাত। গতকালই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘মনোনিত রাজ্যপাল-নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী’ শীর্ষক ৫ পাতার কড়া চিঠি দিয়েছিলেন জগদীপ ধনকড়ের। পাল্টা পত্রাঘাত করেন রাজ্যপাল। তার রেশ শুক্রবারও জারি রইল।

৫ পাতার চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছিলেন যে, ‘আপনার কথা বলার ভঙ্গি, শব্দচয়ন সাংবধানিক নয়। আপনি আমাকে সরাসরি আক্রমণ করেছেন। আপনি আমার অফিসকে অপমান করেছেন, আপনার মন্তব্য আমার মন্ত্রীদের অপমান করেছে। আমার ও আমার মন্ত্রিসভার পরামর্শ উপেক্ষা করতেই পারেন, কিন্তু আম্বেদকরের কথা অগ্রাহ্য় করা আপনার ঠিক নয়। আপনি মনে হয় ভুলে গিয়েছেন, আমি একজন নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী, আর আপনি মনোনীত রাজ্যপাল’। জবাবে, চিঠি দিয়ে রাজ্যপাল জানিয়েছিলেন, চিঠিতে যা বলা হয়েছে, তা তথ্যগত ভাবে ভুল এবং সাংবিধানিক ভাবেও দুর্বল।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Governor jagdeep dhankar friday again wrote attacking letter to cm mamata banerjee corona pandemic

Next Story
পত্রযুদ্ধ! ‘আপনি পুরোপুরি ব্যর্থ’, মমতাকে পাল্টা ৫ পাতারই চিঠি রাজ্যপালেরcoronavirus, করোনাভাইরাস, করোনা, mamata banerjee, মমতা, মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়, mamata letters to governor, রাজ্য়পালকে মমতার চিঠি, রাজ্য়পালকে ৫ পাতার চিঠি মমতার, মুখ্য়মন্ত্রীর চিঠি, রাজ্য়পাল, জগদীপ ধনকড়, ধনখড়, রাজ্য়পাল, coronavirus in bengal, pds scam, bengal governor, jagdeep dhankar, bjp mps under house arrest, tmc, indian express bangla news
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com