scorecardresearch

বড় খবর

লখিমপুরে অপরাধ গুরুতর! কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলের জামিনের বিরোধিতা যোগী সরকারের  

আশিস মিশ্রের জামিনের বিরোধিতা করে উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল গরিমা প্রসাদ বলেন, এটি একটি গুরুতর এবং জঘন্য অপরাধ এবং এক্ষেত্রে অপরাধীর জামিন সমাজের কাছে একটি ভুল বার্তা দেবে।”

লখিমপুরে অপরাধ গুরুতর! কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলের জামিনের বিরোধিতা যোগী সরকারের  

উত্তরপ্রদেশ সরকার বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় কুমার মিশ্রের ছেলের জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেছে, যিনি লখিমপুর খেরি হিংসার ঘটনার অন্যতম অভিযুক্ত। উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল গরিমা প্রসাদ বিচারপতি সূর্য কান্ত এবং বিচারপতি জে কে মহেশ্বরীর বেঞ্চকে বলেছেন ‘অপরাধটি গুরুতর’। তিনি বলেন, “এটি একটি গুরুতর এবং জঘন্য অপরাধ এবং এক্ষেত্রে অপরাধীর জামিন সমাজের কাছে একটি ভুল বার্তা পৌঁছাবে।”  আশিস মিশ্র এলাহাবাদ হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে একটি পিটিশন দায়ের করেছেন, যেখানে হাইকোর্ট লখিমপুর হিংসা মামলায় আশীষ মিশ্রকে জামিন দিতে অস্বীকার করেছে।

শুনানির সময়, উত্তরপ্রদেশ সরকার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশীষ মিশ্রের জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করে। উত্তরপ্রদেশ সরকারের পক্ষে হাজির হয়ে এএজি গরিমা প্রসাদ বলেন, এটি একটি জঘন্য অপরাধ। এ ধরনের মামলায় আসামিকে জামিন দিলে সমাজের কাছে ভুল বার্তা যাবে। একই সঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, আশিস মিশ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে, চার্জশিটও দাখিল করা হয়েছে। ট্রায়াল কোর্ট বলছে, বিচার প্রক্রিয়ার চার’শো সাক্ষী রয়েছে, যাদের জবানবন্দি নেওয়া হবে শেষ হতে পাঁচ বছর সময় লাগবে। এমন পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্ট জামিন না দিলে অন্য কোন আদালতও জামিন দিতে পারবে না।

৩রা অক্টোবর, ২০২১-এ, উত্তরপ্রদেশের তৎকালীন উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যের এলাকা সফরকে কেন্দ্র করে কৃষকরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এফআইআর অনুসারে, চারজন কৃষককে একটি এসইউভি চাপা দেওয়া হয়, সেই গাড়িতেই ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় কুমার মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্র। ঘটনার পরে, একজন চালক এবং দুই বিজেপি কর্মীকে বিক্ষুব্ধ কৃষকরা পিটিয়ে হত্যা করে বলেও অভিযোগ। সেদিনের হিংসার ঘটনায় একজন সাংবাদিকও নিহত হন।

আশীষ মিশ্রের পক্ষে আইনজীবী মুকুল রোহাতগি বলেন, আশিস মিশ্র গত এক বছর ধরে জেলবন্দি রয়েছেন। একবার জামিন পেলেও সুপ্রিম কোর্ট জামিন নাকচ করে দেয়। এই মামলায় চার’শো সাক্ষী রয়েছে, যাদের জবানবন্দি নেওয়া হবে। যা সময় সাপেক্ষা বিষয় সেক্ষেত্রে আমার মক্কেলের কি হবে? আশীষ মিশ্রের আইনজীবী আরও বলেন, ‘দ্বিতীয় যে এফআইআরটি নথিভুক্ত করা হয়েছে তাতে অভিযোগগুলি অতিরঞ্জিত করা হয়েছে। এই ঘটনায় কোনো প্রত্যক্ষদর্শী এগিয়ে আসেনি। ইউপি সরকারের তরফে বলা হয়, এই মামলার ৪ আসামির জামিনের বিরোধিতা করা হয়েছে ট্রায়াল কোর্টে। ইউপি সরকারের আইনজীবী বলেন, ‘আশীষ মিশ্রকে জামিন দেওয়া উচিত নয়, আমরা তার জামিনের বিরোধিতা করছি’।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Lakhimpur kheri violence case up govt opposes union minister ajay mishras sons bail says crime was heinous