“ভোটের আগে যুদ্ধের কথা মনে পড়ল?”

"পাকিস্তান যদি করে থাকে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কেন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল না? পাঠানকোট থেকে পুলওয়ামা, গত পাঁচ বছরে কী পদক্ষেপ নিয়েছেন ওঁরা? ভোটের আগে যুদ্ধের কথা মনে পড়ল?"

By: Kolkata  Updated: February 18, 2019, 05:17:42 PM

পুলওয়ামার ঘটনায় চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেশপ্রেমের নামে বাংলায় দাঙ্গা বাঁধানোর চেষ্টা করছে আরএসএস-ভিএইচপি, সোমবার সরাসরি অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে মোদী-শাহকে নিশানা করে মমতা বলেন, “আমরা চুপ করে বসে আছি, আর মোদী-শাহ ভাষণ দিয়ে বেড়াচ্ছেন। ওঁরা এমন ভাষণ দিচ্ছেন, যেন ওঁরাই শুধু দেশপ্রেমিক, আর সকলে উগ্রপন্থী! এটা ঠিক নয়। ওদের কাছে দেশপ্রেম শিখব না।”

মমতা আরও বলেন, “পাকিস্তান যদি করে থাকে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কেন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল না? পাঠানকোট থেকে পুলওয়ামা, গত পাঁচ বছরে কী পদক্ষেপ নিয়েছেন ওঁরা? ভোটের আগে যুদ্ধের কথা মনে পড়ল?” এ প্রসঙ্গে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্ট উদ্ধৃত করে মমতা এদিন বলেন, “মার্কিন গোয়েন্দা রিপোর্টে বলা ছিল, ভোটের আগে দেশে দাঙ্গা লাগানো হতে পারে।”

আরও পড়ুন: মমতার প্রশ্ন, কী করছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা?

সোমবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূল সুপ্রিমোর অভিযোগ, “আরএসএসের কিছু প্রচারক মাঝরাতে রাস্তায় জাতীয় পতাকা নিয়ে বেরিয়ে অশান্তি ছড়াচ্ছে। ভিএইচপি-ও অশান্তি ছড়াচ্ছে। গতকাল বেহালায় এরকম একটা ঘটনা ঘটেছে। বনগাঁতেও একটা ঘটনা ঘটেছে। শ্রীরামপুরে একটি জলসায় আরএসএস হামলা চালিয়েছে। ওরা বহিরাগত। পুলওয়ামার ঘটনার সুযোগ নিয়ে ওরা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা করছে। দেশপ্রেমের নামে অশান্তি ছড়াচ্ছে। ভোটের নাম করে দেশে অশান্তি ছড়ানো হচ্ছে। জঘন্য রাজনীতি করছে আরএসএস-বিজেপি-ভিএইচপি। পরিকল্পিত চক্রান্ত ওদের। এসব বরদাস্ত করা হবে না।”

পুলিশ-প্রশাসনকে সতর্ক করে এদিন মমতা বলেন, “পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছি, কড়া ব্যবস্থা নিতে। চুপ করে থাকা যাবে না। সকলকে বলছি, নজর রাখুন সবাই। কোনও অপপ্রচার বা প্ররোচনায় পা দেবেন না।”

পুলওয়ামার জঙ্গি হামলায় ‘নিরাপত্তার গাফিলতি’ নিয়ে এদিন ফের সরব হন মুখ্যমন্ত্রী। মোদী সরকারকে বিঁধে মমতা বলেন, “এতজন জওয়ান মারা গেলেন, যে অবহেলা হয়েছে, যে গাফিলতি রয়েছে, তার তদন্ত করা হোক। আমরা জানতে চাই, কে করল এটা? যদি খবর পেয়ে থাকেন হামলা হতে পারে, তাহলে কেন একই দিনে এত বড় কনভয় গেল? গোয়েন্দা রিপোর্ট সত্ত্বেও কেন কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলো না? সিআরপিএফ তো বিমান পরিষেবার কথা বলেছিল। তাহলে কেন তা করা হল না?”

আরও পড়ুন, হাতে আছে এন আর সি, আসামকে কাশ্মীর হতে দেওয়া হবে না: অমিত শাহ

অন্যদিকে, এদিন মমতার বক্তব্যের পাল্টা হিসেবে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “আরএসএসের লোকেরা জাতীয়তাবাদী, ওরা বেরিয়েছে, সেটা স্বাভাবিক। ঠিক করেছে বেরিয়েছে। উনি বেরোচ্ছেন না কেন?” সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ আরও বলেন, “পুলওয়ামার ঘটনায় আজ গোটা দেশ সরব। সব জায়গায় মোমবাতি মিছিল হচ্ছে। সবাই বদলা নেওয়ার কথা বলছেন। কারণ সকলে জানেন, বদলা নেওয়ার মতো দেশে নেতা রয়েছেন। আরও একবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হবে হয়তো।”

মমতা সরকারকে আক্রমণ করে সোমবার দিলীপ আরও বলেছেন, “পুলওয়ামার ঘটনার পর সর্বদল বৈঠক হয়েছিল। সকলে গিয়েছিলেন। সবাই সরকারের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। যেই সরকার কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলল, তখনই তৃণমূলের সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বাধা দিলেন। কড়া ব্যবস্থা নিলে তার দায়িত্ব ওঁরা নেবেন না। শহিদদের দায়িত্ব নেবেন না। তাহলে কী করবেন?” বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন, “রাজনৈতিক স্বার্থে সকলকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। এটা ভুল করছেন। এত জওয়ান মারা গেলেন। সব রাজ্য সরকার আর্থিক সহায়তা দিচ্ছেন। কেন এখনও এই সরকার আর্থিক সহায়তা দিলেন না? মদ খেয়ে কেউ মারা গেলে উনি ক্ষতিপূরণ দিতে পারেন, দেশের জন্য কেউ শহিদ হলে পারেন না?”

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Mamata banerjee pulwama attack modi amit shah dilip ghosh bjp rss vhp tmc

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
মিছিল তরজা
X