বড় খবর

এনআরসি নিয়ে ফের বিজেপিকে চোখ রাঙালেন মমতা

‘‘যদি আমার ভাই-বোনেদের উপর অত্যাচার চলে, তবে তাঁদের আমরা নিরাপত্তা দেব। যদি তাঁদের পাশে কেউ না থাকেন, আমরা থাকব। আমরা আমাদের মতো করে ওঁদের আশ্রয় দেব।’’

mamata banerjee, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

লোকসভা ভোটের আগে আরও একবার আসামে জাতীয় নাগরিকপঞ্জির তালিকা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে বিঁধলেন এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জাতীয় নাগরিকপঞ্জির নামে আসাম থেকে বাঙালিদের বিতাড়িত করা হচ্ছে বলে মঙ্গলবার কোচবিহারে অভিযোগ করেন মমতা। এজন্য তিনি বিজেপিকেই কার্যত কাঠগড়ায় তোলেন। শুধু আসামই নয়, গুজরাতে বিহারিদের উপর অত্যাচার নিয়েও এদিন সরব হন মুখ্যমন্ত্রী। আসাম ও গুজরাত থেকে বিতাড়িতদের তাঁর সরকার আশ্রয় দেবেন বলেও এদিন আশ্বাসবাণী শুনিয়েছেন মমতা।

এদিন কোচবিহারের একটি জনসভায় মমতা বলেন, ‘‘কেন্দ্রের শাসকদল, যাঁরা আসামেরও ক্ষমতায় আছেন, তাঁরা আসাম থেকে বাঙালিদের বিতাড়িত করছেন। বাংলায় এটা হতে দেব না। এখানে আমরা সবাইকে ভালবাসি। অসমিয়া, বাঙালি, বিহারি, নেপালি, শরণার্থী, সকলকে ভালবাসি। আসামে কী হচ্ছে আজ? ভোটার তালিকা থেকে ৪০ লক্ষ মানুষের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। যার জেরে লোকেরা আত্মহত্যা করছেন। আসাম থেকে বাঙালিদের তাড়ানো হচ্ছে তো গুজরাত থেকে বিহারিদের তাড়ানো হচ্ছে।’’

আরও পড়ুন, পশ্চিমবঙ্গে মুসলিমদের প্রার্থী করেই লোকসভায় বাজিমাতের পরিকল্পনা বিজেপির

এরপর তিনি আরও বলেন, ‘‘যদি আমার ভাই-বোনেদের উপর অত্যাচার চলে, তবে তাঁদের আমরা নিরাপত্তা দেব। যদি তাঁদের পাশে কেউ না থাকেন, আমরা থাকব। আমরা আমাদের মতো করে ওঁদের আশ্রয় দেব।’’ উল্লেখ্য, গুজরাতের সবরকাঁথা জেলায় ১৪ মাসের এক শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে বিহারের এক শ্রমিকের বিরুদ্ধে। যার জেরে সে রাজ্যে উত্তাল হয় পরিস্থিতি। অ-গুজরাতিদের উপর একাধিক আক্রমণ চালানোর অভিযোগ ওঠে। অ-গুজরাতিদের সে রাজ্য থেকে চলে যাওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়, যার ফলে বহু সংখ্যক মানুষ গুজরাত ত্যাগ করেন।

অন্যদিকে, বিজেপি দেশের সংস্কৃতি, ইতিহাস বিকৃত করার চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও এদিন সরব হন মমতা। তিনি বলেছেন, ‘‘যাঁরা আমাদের ধর্মনিরপেক্ষতার ইতিহাসকে বিকৃত করার চেষ্টা চালাচ্ছেন, তাঁদের জেনে রাখা উচিত যে, বাংলার মানুষ এসব ভেদাভেদের রাজনীতিকে বরদাস্ত করবে না।’’ মমতার এহেন অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে মুখ খুলেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, দিলীপবাবু বলেছেন, ‘‘বিজেপি সকলের উন্নয়নে বিশ্বাস করে। আসামে অনুপ্রবেশকারীদের বিতাড়িত করতেই এনআরসি করা হয়েছে। যা তৃণমূলের মতো দল ভোটব্যাঙ্ক হিসেবে কাজে লাগাচ্ছে।’’

এনআরসি-র পাশাপাশি এদিন কেন্দ্রের ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ প্রকল্প নিয়েও সোচ্চার হয়েছেন মমতা। তিনি বলেছেন যে, এই প্রকল্পে উপভোক্তাদের জন্য সরকার মাত্র ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। বিরাট অঙ্কের টাকা খরচ করা হয়েছে শুধুমাত্র বিজ্ঞাপনের জন্য। মমতা বলেছেন, ‘‘একটা মেয়েও তিন পয়সাও পায়নি।’’ তাঁর আরও বক্তব্য, ‘‘এখানে আমরা কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য ৬,০০০ কোটি টাকা খরচ করেছি। বাংলা থেকে কেন্দ্রের শেখা উচিত।’’

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Mamata banerjee west bengal cm bjp assam nrc

Next Story
খোল করতালে বিপুল টাকা ব্যয় অনুব্রতর, তৃণমূলের প্রচারে কীর্তনীয়ারা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com