বড় খবর

অবদান ভুলে শুভেন্দুকেই ছেঁটে ফেলছেন মমতা, জল্পনা বাড়িয়ে মন্তব্য অধীরের

‘অভিষেককে রাজনৈতিক মঞ্চে এগিয়ে নিয়ে যেতে অনেককেই ছেঁটে ফেলছেন মমতা। এবার পালা শুভেন্দুর। তাঁর বিদ্রোহ তো স্বাভাবিক।’

গরম গরম বক্তব্য, জেলায় জেলায় ‘আমরা দাদার অনুগামী’ ব্যানার পোস্টার, দলীয় কর্মসূচিতে দোর্দদণ্ডপ্রতাপ নেতার অনুপস্থিতি- জল্পনার শীর্ষে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক অবস্থান। বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব ইতিমধ্যেই জোড়াফুল ছেড়ে পদ্মে যোগদানের জন্য নন্দীগ্রামের তৃণমূল বিধায়ককে আহ্বান জানিয়েছেন। এবার শুভেন্দু ইস্যুতে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী। বললেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূলের উত্থানের পিছনে শুভেন্দু অধিকারীরা অবদান অস্বীকার করা যাবে না।’

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির কথায়, ‘পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের শক্তিবৃদ্ধির পিছনে শুভেন্দু অধিকারীর অবদান মানতেই হবে। নন্দীগ্রামের মানুষের তাঁদের পরিবারের প্রতি আস্থা রয়েছে। আজ তৃণমূলের এই বাড়বাড়ন্তের পিছনে সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম আন্দোলনের বড় ভূমিকা রয়েছে। নন্দীগ্রাম আন্দোলনে অধিকারী পরিবারের বড় অবদান রয়েছে। কিন্তু আজ তাঁদের সেই অবদান কেউ মনে রাখেনি।’

আরও পড়ুন- নন্দীগ্রামে সভা শুভেন্দুর, সিঙ্গুরে বিদ্রোহী মাস্টারমশাই

শুভেন্দু  তথা অধিকারী পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একহাত নিয়েছেন অধীর। তিনি বলেছেন, ‘অভিষেককে রাজনৈতিক মঞ্চে এগিয়ে নিয়ে যেতে অনেককেই ছেঁটে ফেলছেন মমতা। এবার পালা শুভেন্দুর। তাঁর বিদ্রোহ তো স্বাভাবিক।’ কার্যত শুভেন্দু সহ গোটা অধিকারী পরিবারের প্রতি সমব্যথী হয়ে তৃণমূলের অন্দরের বিবাদ আরও চওড়া করতেই অধীর চৌধুরীর এই মন্তব্য বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন- অনুগামী রাজনীতির ধারাই বদলে দিয়েছেন শুভেন্দু সমর্থকরা

শুভেন্দুর দলবদলের সম্ভাবনা প্রসঙ্গেই বঙ্গ সফরে এসে অমিত শাহ জানিয়েছেন, ‘এটা বলতে পারি তালিকা দীর্ঘ আছে। দু’টো নামেই আটকে থাকবে না। দলের যাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ হয় তাঁরাই বলেছেন।’ গেরুয়া শিবিরের এই মন্তব্যেই রাজ্য রাজনীতিতে জোর জল্পনা। তাহলে কী ভাঙছে তৃণমূল? এই জল্পনা আরও গাঢ় হয়েছে বিজেপি রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে। ঘাস-ফুল শিবিরকে কটাক্ষ করে তিনি বলেছেন, ‘তৃণমূল অনেকটা বাঁধাকপির মতো। একে একে সবাই দল ছাড়বেন। আর সবাই দল ছাড়লে বাঁধাকপিটাই থাকবে না।’

পালটা তোপ দেগে তৃণমূলের তরফে সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘শুভেন্দু অধিকারীর দল ছাড়ার কোনও প্রশ্নই ওঠে না। ও আমাদের দলেই রয়েছেন। শুভেন্দুর নেতৃত্বদানের ক্ষমতা খুবই উজ্জ্বল। ও তৃণমূলের সম্পদ। যেকোনও দলেরই সম্পদ হতে পারেন উনি। তাই কিছু মানুষ শুভেন্দুর ভবিষ্যত অবস্থান নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন।’

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Mamata must remember suvendu adhikari s contribution to her rise to power sayes adhir chowdhury

Next Story
নন্দীগ্রামে সভা শুভেন্দুর, সিঙ্গুরে বিদ্রোহী মাস্টারমশাই
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com