scorecardresearch

বড় খবর

১০২টি পুরসভার চেয়ারম্যান ঠিক করতে মঙ্গলবারই বৈঠকে তৃণমূল

নির্দলদের ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বৈঠকে।

১০২টি পুরসভার চেয়ারম্যান ঠিক করতে মঙ্গলবারই বৈঠকে তৃণমূল
তৃণমূলের জয়জয়কার।

ভোট শেষ। বিপুলসংখ্যক ভোটে জয়ের হাসি হেসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। রাজ্যের ১০২টি পুরসভায় বোর্ড গঠন এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা। এই পরিস্থিতিতে ওই পুরসভাগুলোর চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী বেছে নিতে ৮ মার্চ কলকাতার নজরুল মঞ্চে বৈঠক করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

বৈঠকে থাকার কথা দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সেই বৈঠকে যে প্রার্থীদের দল বেছে নেবে, পরবর্তী সময়ে পুরসভায় নির্বাচিত কাউন্সিলরদের বৈঠকে, চেয়ারম্যান পদে তাঁদের পক্ষেই ভোট দেবেন তৃণমূলের জনপ্রতিনিধিরা।

চেয়ারম্যানের পাশাপাশি বৈঠকে ভাইস চেয়ারম্যান কারা হবে, তা-ও ঠিক হওয়ার কথা। পাশাপাশি, নতুন রাজ্য কমিটি, জেলা সভাপতি, জেলা পদাধিকারীদের নামও ঘোষণা করতে পারেন তৃণমূল সুপ্রিমো। সবক্ষেত্রেই অতীতের মতো অভিজ্ঞতা এবং তারুণ্যের মিশেল ঘটানোর চেষ্টা করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অতীতে তিনি বারবারই বুঝিয়ে দিয়েছেন, শুধুমাত্র তারুণ্যের ভরসায় এখনও চলার মতো অবস্থায় তৃণমূল কংগ্রেস আসেনি। সেই কারণেই ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে সর্বক্ষেত্রেই অভিজ্ঞতাকে গুরুত্ব দিতে হবে তারুণ্যের মতোই।

মঙ্গলবার এই বৈঠকে উঠতে পারে নির্দল কাউন্সিলরদের প্রসঙ্গও। এই প্রবল সবুজ ঝড়ের মধ্যেও বিভিন্ন পুরসভায় তৃণমূল ছেড়ে নির্দল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন বেশ কয়েকজন। তাঁদের অনেকে আবার নির্বাচনে জিতেও গিয়েছেন।

এই সব কাউন্সিলরদের ফের তৃণমূলে ফিরিয়ে আনা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই কানাঘুঁষো চলছে দলের অন্দরে। যদিও এখনও পর্যন্ত ঘাসফুল শিবির এই ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি। ৮ তারিখের বৈঠকে এই ব্যাপারে দলনেত্রী বড় ঘোষণা করতেও পারেন। এমনই জল্পনা চলছে তৃণমূলের অন্দরে।

আরও পড়ুন- সুমি থেকে ভারতীয়দের সরানোটা কেন কঠিন আর সুযোগ কেন কম

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি রাজ্যের যে ১০৮টি পুরসভায় নির্বাচন হয়েছে, তার মধ্যে দার্জিলিং এবং নদিয়ার তাহেরপুর পুরসভা দুটি গিয়েছে বিরোধীদের দখলে। তাহেরপুরের দখল নিয়েছে বামেরা। আর দার্জিলিঙের দখল নিয়েছে নবগঠিত ‘হামরো পার্টি’। বাকি চারটি পুরসভায় নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি দল।

নির্দল প্রার্থীদের দলে টেনে কীভাবে ওই পুরসভাগুলোয় তৃণমূল বোর্ড গড়তে পারে, সেই ব্যাপারেও ভাবনাচিন্তা করছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। তবে, যাবতীয় বিষয়ে শেষ সিদ্ধান্ত নেবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথাই শেষ কথা। দলের প্রবীণ ও শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলোচনার পর, সেই শেষ কথা ৮ তারিখেই দলনেত্রী স্পষ্ট করে দেবেন বলে আশা করছেন তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা।

Read story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mamata to pick new civic chiefs