scorecardresearch

বড় খবর

কংগ্রেসের প্রতিশ্রুতির চালে উত্তরপ্রদেশে বেকায়দায় বিজেপি

উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ইস্তাহার প্রকাশ।

কংগ্রেসের প্রতিশ্রুতির চালে উত্তরপ্রদেশে বেকায়দায় বিজেপি

ক্ষমতায় এলে উত্তরপ্রদেশে কৃষকদের ঋণ ১০ দিনের মধ্যে মকুব করবে কংগ্রেস। শুধু তাই না। বিদ্যুতের বিল অর্ধেক করে দেওয়া হবে। কোভিড আক্রান্ত দরিদ্র পরিবারগুলোকে ২৫ হাজার টাকা করে দেবে। বুধবারই আসন্ন উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে দলের ইস্তাহার প্রকাশ করেছেন কংগ্রেস। সেখানেই এই সব প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। ইস্তাহারে বলা হয়েছে, যে কোনও রোগে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত চিকিত্সা বিনামূল্যে মিলবে। দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির প্রতিটি ছাত্রীকে স্মার্টফোন দেওয়া হবে। কলেজের ছাত্রীদের দেওয়া হবে ইলেকট্রিক স্কুটি।

কংগ্রেসের ইস্তাহারে দেওয়া এই সব প্রতিশ্রুতিতে বিপাকে পড়ে গিয়েছে সমাজবাদী পার্টি এবং ভারতীয় জনতা পার্টি। মঙ্গলবারই এই দুই দল তাদের নির্বাচনী ইস্তাহার প্রকাশ করেছে। সেখানে সমাজবাদী পার্টি মহাত্মা গান্ধী ন্যাশনাল রুরাল এমপ্লয়মেন্ট গ্যারান্টি অ্যাক্ট এবং আরবান এমপ্লয়মেন্ট গ্যারান্টি অ্যাক্টে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সরকারি চাকরির ৩৩ শতাংশ মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। একইসঙ্গে ২০২৫ সালের মধ্যে কৃষকদের ঋণমুক্ত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

এসবের সঙ্গে পাল্লা দিতে বিজেপিও অবশ্য ইস্তাহারে কৃষকদের সেচের জন্য বিনামূল্যে বিদ্যুতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। পাশাপাশি, হিন্দুত্ববাদকে চাগিয়ে তুলতে লাভ জিহাদের শাস্তি সর্বনিম্ন ১০ বছরের কারাদণ্ড করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সঙ্গে একলক্ষ টাকা জরিমানা ধার্য করা হবে বলেও ইস্তাহারে জানিয়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশে প্রথম দফার নির্বাচন। করোনা আবহে ৪০৩ আসনের এই বিধানসভা নির্বাচন হবে সাত দফায়।

আরও পড়ুন- পোশাক নির্বাচনের অধিকার আছে নারীদের’, হিজাব-বিতর্কে সুর চড়ালেন প্রিয়াঙ্কা

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ হিন্দুত্ববাদের ‘ পোস্টার বয়’। পাশাপাশি, কেন্দ্রে মোদী সরকারকে ক্ষমতায় টিকে থাকতেও উত্তরপ্রদেশে বেশিসংখ্যক লোকসভা আসনে জেতা বিজেপির জন্য জরুরি। এই পরিস্থিতিতে ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে এই বিধানসভা নির্বাচনকে সেমিফাইনাল হিসেবে দেখছে উত্তরপ্রদেশের সব দলই। তার মধ্যেই রাজ্যবাসীর কাছে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে, যোগী সরকারের প্রতি উত্তরপ্রদেশের মানুষ খুশি নন।

করোনা পরিস্থিতিতে উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় নদীতে দেহ ভাসিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অক্সিজেনের অভাবে শিশুমৃত্যু রুখতে ব্যর্থতার অভিযোগ উঠেছে যোগী আদিত্যনাথের সরকারের বিরুদ্ধে। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিরুদ্ধে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ভুয়ো এনকাউন্টারে বিরোধী সমর্থকদের হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয়। কেন্দ্রীয় বিতর্কিত কৃষি আইনের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে চলা প্রতিবাদে যে সব রাজ্যের কৃষকরা বেশিসংখ্যায় অংশগ্রহণ করেছিলেন, তার অন্যতম উত্তরপ্রদেশ। গোদের ওপর বিষফোঁড়ার মতো কংগ্রেসের এই সব পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি-সহ ইস্তাহার। আর, তাতেই রীতিমতো চাপে পড়ে গিয়েছে উত্তরপ্রদেশ বিজেপি।

Read story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Congress promises to waive off up farmers debt