বড় খবর

লখিমপুর কাণ্ডে বিজেপির মধ্যে দানা বাঁধছে ক্ষোভ, নেতৃত্বকেই কাঠগড়ায় তুলছেন নেতা-মন্ত্রীরা

বেশ কিছু বিজেপি নেতা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকেই দায়ী করেছেন।

ফাইল ছবি

কেউ বলছেন, পূর্ব-পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। খালিস্তানি যোগ রয়েছে। কেউ আবার বলছেন, দায়িত্বজ্ঞানহীনতার অভাব। মুখ পুড়িয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও তাঁর ছেলে। সবমিলিয়ে লখিমপুর খেরি কাণ্ডে বিজেপির মধ্যেই চাপানউতোর শুরু হয়েছে। অনেকে কৃষকদের দোষ দিয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের কথা বলছেন। তেমনই আবার বেশ কিছু বিজেপি নেতা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকেই দায়ী করেছেন। শীর্ষ বিজেপি নেতারা এখন বিষয়টি ঠান্ডা না হওয়া পর্যন্ত ব্যাকফুটে চলে গিয়েছেন।

লখিমপুর খেরিতে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রর গাড়ির চার কৃষককে পিষে দেওয়া এবং হিংসায় আরও চারজনের মৃত্যুতে গোটা দেশ তোলপাড়। যোগী মন্ত্রিসভার এক সদস্যের ভাষায়, “পুরো ব্যাপারটাই যাচ্ছে তাই হয়েছে।” আরও এক মন্ত্রী পরিস্থিতি সামাল না দিতে পারায় নেতৃত্বের দোষ দেখছেন। তাঁর কথায়, “দুই দিক থেকেই আমাদের লোকসান। আমাদের কর্মীরাও মারা গেলেন, আবার সরকারও কাঠগড়ায় উঠল।”

যোগীর আরেক মন্ত্রী বলেছেন, “রাজনৈতিক মতামত তো দূর, কখনও আলোচনাই হয় না। যখন সরকার আমলাদের দিয়ে চলে তখন এমনই হয়।” মন্ত্রীর দাবি, “জেলায় জেলায় পরিস্থিতির কোনও ধারণাই নেই সরকারি আমলাদের।” তিনি বলেছেন, “এই পরিস্থিতিতে বেকার ভাষণ এড়ানো যেত। আর সংযম রাখলে সব ঠিক থাকত। কিন্তু কী আর বলব!”

অনেকেই বলছেন, অজয় মিশ্র সপ্তাহখানেক আগের উস্কানিমূলক বক্তব্য স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছিল। সেই থেকে এই পরিস্থিতি হয়েছে বলে অভিযোগ তাঁদের। আবার এক শ্রেণির বিজেপি নেতারা ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছেন। উত্তরপ্রদেশের মুখপাত্র হরিশ চন্দ্র শ্রীবাস্তবের দাবি, “খালিস্তানিরা বিজেপি কর্মীদের মেরেছে লখিমপুরে।” যদিও শীর্ষ নেতৃত্ব খালিস্তানি তত্ত্ব নিয়ে কিছু বলেনি।

বিজেপি সাংসদ বরুণ গান্ধী নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, “অসহায় কৃষকদের বিরুদ্ধে অশ্রাব্য, আপত্তিকর মন্তব্য অনুচিত। যাঁরা শান্তিপূর্ণ ভাবে নিজেদের দাবি রাখছেন তাঁরাও এসব কথা শুনলে ক্ষুব্ধ হবেন।” শ্রীবাস্তবের টুইট দেখেই রেগে গিয়ে বরুণ গান্ধী দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন, “এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক এবং দেশের জন্য ভয়ঙ্কর।”

আরও পড়ুন ‘রাম রাজ্যে কিলিংরাজ’, লখিমপুরকাণ্ডে যোগী সরকারকে তোপ মমতার

বরুণ যোগী আদিত্যনাথকে চিঠি লিখে প্রতিবাদী কৃষকদের পরিবারের জন্য সাহায্য চেয়েছেন। সোমবার আবার তিনি চিঠি লিখে জানান, কৃষকদের মৃত্যুর জন্য যাঁরা দায়ী তাঁদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করতে। সুপ্রিম কোর্টের তত্বাবধানে দ্রুত সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানিয়েছেন বিজেপি সাংসদ।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and National news here. You can also read all the National news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Disquiet in bjp ranks some see plot others a mishandling

Next Story
আগামী উপনির্বাচনেও বামেদের ‘একলা চলো রে’! ঘোষিত ৪ আসনের প্রার্থীতালিকাcpim suspend ajanta biswas for 6 months
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com