scorecardresearch

বড় খবর

খোলাখুলি বিজেপির প্রশংসায় ‘গর্বিত হিন্দু’ হার্দিক, এবার কি কংগ্রেস ছাড়ছেন পতিদার নেতা?

দলের একাংশের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশ করে এবার খোলাখুলি বিজেপির প্রশংসায় পতিদার নেতা।

Supreme Court stays Congress leader Hardik Patel’s conviction in the year 2015 riot case
হার্দিক পটেল। (ফাইল ছবি)

কংগ্রেসের অন্তর্কলহ নিয়ে সরব হয়েছেন একাধিক শীর্ষ নেতা। নেতৃত্বের উদাসীনতাকে কাঠগড়ায় তুলে অনেকেই প্রকাশ্যে মুখ খুলেছেন। এবার বেসুরো গুজরাতের তরুণ তুর্কি নেতা হার্দিক প্যাটেল। দলের একাংশের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশ করে এবার খোলাখুলি বিজেপির প্রশংসায় পতিদার নেতা। গুজরাত কংগ্রেসের কার্যকরী প্রদেশ সভাপতি হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন, তিনি পথ খোলা রেখেছেন।

শুক্রবার একটি আঞ্চলিক সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কংগ্রেস নেতা কাশ্মীরে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপ এবং অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে খোলাখুলি বিজেপির প্রশংসা করেছেন হার্দিক। নিজেকে গর্বিত হিন্দু বর্ণনা করে বলেছেন, “বিজেপির মধ্যে অসাধারণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেতৃত্ব রয়েছে।”

হার্দিক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “বিজেপির এমন নেতৃত্ব আছে যাঁদের অসাধারণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা আছে। আমি কংগ্রেসের উপর হতাশ বলে এমনটা বলছি না। ওরা সংগঠনের জন্য অনেক কাজ করে। নেতৃত্বে একাধিক বদল আনে। যেমন স্মার্টফোন আপডেট হয় সেরকম। বিজেপিও একইভাবে সংগঠনে অনেক বদল আনে। অনেক বছর ধরে এটা করছে। এমনকী লোকজনও বলছে, বিজেপি এই কারণে জিতছে আর কংগ্রেস হারছে।”

শিয়রে গুজরাত বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে কি শিবির বদলে বিজেপিতে যাবেন হার্দিক, তার উত্তরে তিনি বলেছেন, “আমি আমার অবস্থানে খুব স্পষ্ট যে গুজরাতের অগ্রগতির জন্য আমি সবকিছু করব। অনেকেই আমাকে কেজরিওয়ালের সঙ্গে জুড়ে দেন। কংগ্রেস, বিজেপি, আপ-সব রাস্তাই খোলা রেখেছি।”

আরও পড়ুন মোদী-মমতা সাক্ষাতের সম্ভাবনা, চলতি মাসের শেষেই দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী

এদিকে, হার্দিকের মন্তব্য নিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সি আর পাটিল বলেছেন, “গোটা দেশ বিজেপির মতাদর্শে অনুপ্রাণিত। বিজেপির তুখড় নেতৃত্ব এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কঠোর পরিশ্রম দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে চলেছে। ২০১৪ সাল থেকে তা গোটা বিশ্ব দেখছে। এটা স্বাভাবিক যে কংগ্রেসের বহু নেতা এতে প্রভাবিত হচ্ছেন। কিন্তু সবাই তা প্রকাশ্যে বলতে পারছেন না। হার্দিকের সৎ সাহস আছে প্রকাশ্যে বলার। যখন গোটা দেশ বিজেপির মতাদর্শে প্রভাবিত হচ্ছে তখন কেউ-ই তার স্পর্শ থেকে দূরে থাকছেন না।”

সম্প্রতি দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে কংগ্রেসে নিজের অবস্থান নিয়ে হার্দিক বলেছিলেন, বিয়ের পরই বর নাসবন্দি করালে যেমন হয় তেমনটাই তাঁর অবস্থা। কারণ তিনি রাজ্য নেতৃত্বকে নিশানা করেছিলেন সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রক্রিয়ায় তাঁকে শামিল না করার জন্য। তাঁর এই মন্তব্যের পর গুজরাতের আম আদমি পার্টির সভাপতি গোপাল ইতালিয়া প্রকাশ্যে হার্দিককে তাঁদের দলে যোগ দিতে আমন্ত্রণ করেন। কিন্তু হার্দিক সাফ জানিয়ে দেন, তিনি কংগ্রেস ছাড়বেন না।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Hardik patel praises bjp days after flaying gujarat congress says his options are open