বড় খবর


পরপুরুষের সঙ্গে প্রেম! ‘অপরাধে’ শ্বশুরবাড়ির লোককে কাঁধে চাপিয়ে ৩ কিমি হাঁটলেন মহিলা

ফের মধ্যপ্রদেশে ‘মধ্যযুগীয় বর্বরতা’ শিকার মহিলা।

Madhya Pradesh

স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর পরপুরুষের সঙ্গে প্রেম! ‘গর্হিত অপরাধ’ হিসেবে গণ্য মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) এক গ্রামে। আর সেই অপরাধের শাস্তি হিসেবেই শ্বশুরবাড়ির লোককে কাঁধে চাপিয়ে ৩ কিলোমিটার হাঁটতে বাধ্য করা হল ওই মহিলাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই কাণ্ডকারখানার ভিডিও ভাইরাল হতেই ছিঃ ছিঃ-কার পড়ে গেল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তিকে কাঁধে চড়িয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে চলেছেন ওই নির্যাতিতা। তাঁর পিছন পিছন হাঁটছেন বেশ কয়েকজন যুবক। যাঁদের হাতে লাঠি, ব্যাট রয়েছে। তাঁরা ওই মহিলাকে নিয়ে ঠাট্টা-তামাশা করছেন। বাইক নিয়েও কয়েকজন ওই মহিলাকে অনুসরন করছেন। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের গুনা জেলায়। এহেন ‘মধ্যযুগীয় মানসিকতা’র বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন নেটজনতারা।

সূত্রের খবর, মধ্যপ্রদেশের গুনা জেলার সাগাই এবং বাঁশখেদি গ্রামের মধ্যবর্তী কোনও এলাকায় ঘটেছে এই ঘটনা। সংশ্লিষ্ট ঘটনায় পুলিশও মামলা দায়ের করেছে। এখনও অবধি ৪ জন গ্রেপ্তার করা হয়েছে এই ঘটনায়। নির্যাতিতার অভিযোগ, স্বামীর সম্মতি নিয়েই বিচ্ছেদ হয়েছে তাঁদের। এরপরই তিনি অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন। কিন্তু গত সপ্তাহে, হঠাৎই তাঁর প্রাক্তন স্বামীর পরিবারের লোকজন বাড়ি থেকে তাঁকে তুলে নিয়ে যায়। এবং প্রকাশ্যে এভাবে হেনস্তা করে।

এর আগেও মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া জেলাতে এক মহিলাকে দেখা গিয়েছিল স্বামীকে কাঁধে নিয়ে এভাবে ঘুরতে। ওই অবস্থাতেই লাঠি দিয়ে গ্রামবাসীরা মারছিলেন তাঁকে। নেটদুনিয়ায় এহেন একের পর এক ভিডিও ভাইরাল হয়ে সমালোচনা হওয়ার পরও মানসিকতার কোনওরকম পরিবর্তন হয়নি।

Web Title: Madhya pradesh tribal woman forced to walk 3 km

Next Story
‘মোদীজির তিন পুঁজিপতি বন্ধুর স্বার্থেই কৃষি আইন’, বিজনৌরে সরব প্রিয়াঙ্কা গান্ধী
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com