scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

জাতীয় রাজনীতিতে ইন্দ্রপতন, প্রয়াত মুলায়ম সিং যাদব, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর

কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন মুলায়ম সিং যাদব। গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীন সোমবার সকালে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

জাতীয় রাজনীতিতে ইন্দ্রপতন, প্রয়াত মুলায়ম সিং যাদব, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর
প্রয়াত মুলায়ম সিং যাদব।

সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা মুলায়ম সিং যাদব প্রয়াত হয়েছেন। গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। গত এক সপ্তাহ ধরে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি অত্যন্ত সংকটজনক হয়ে পড়েছিল। শেষমেশ চিকিৎসকদের সব প্রতেষ্টা ব্যর্থ করে সোমবার সকালে প্রয়াত হয়েছেন উত্তর প্রদেশের তিন বারের মুখ্যমন্ত্রী মলুয়াম সিং যাদব। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি অসুস্থ ছিলেন। কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ। প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ এর আগেও গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরে গিয়েছিলেন ‘নেতাজি’। মুলায়মকে ‘নেতাজি’ নামেই ডাকতেন তাঁর অনুগামীরা। তবে শেষবার এই হাসপাতালে এসে আর বাড়ি ফেরা হল না তাঁর।

গত এক সপ্তাহ ধরে আইসিইউ-তে রেখে চিকিৎসা চলছিল তাঁর। তবে শারীরিক পরিস্থিতি ক্রমেই সংকটজনক হয়ে উঠছিল মুলায়ম সিং যাদবের। শেষমেশ সোমবার সকালে তাঁর সব অঙ্গ প্রত্যঙ্গ ধীরে-ধীরে কাজ করা বন্ধ করতে শুরু করে। চিকিৎসা চলাকালীন প্রয়াত হন উত্তর প্রদেশের তিন বারের মুখ্যমন্ত্রী মুলয়াম সিং যাদব। সাংসদ নির্বাচিত হয়ে কেন্দ্রের মন্ত্রীও হয়েছিলেন তিনি। প্রতিরক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছেন মুলায়ম।

১৯৩৯ সালের ২২ নভেম্বর মুলায়ম সিং যাদবের জন্ম হয়। সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। উত্তর প্রদেশের আজমগড় কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন ‘নেতাজি’। ১৯৭০-এর দশকে জাতীয় রাজনীতির উত্তাল আঙিনায় আলাদা করে নিজের পরিচিতি গড়ে তোলেন মুলায়ম। একজন সমাজতান্ত্রিক নেতা হিসেবে রাজনীতির আঙিনায় পা রেখে দ্রুত নিজেকে একজন ওবিসি অকুতোভয় নেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সফল হন মুলায়ম।

মুলায়ম সিং যাদবের প্রয়াণে শোকাহত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইটে তিনি লিখেছেন, ”আমরা যখন আমাদের নিজ নিজ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি, তখন মুলায়ম সিং যাদবজি-এর সঙ্গে আমার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। ঘনিষ্ঠ মেলামেশা অব্যাহত ছিল আমাদের মধ্যে। আমি সবসময় তাঁর মতামত শোনার জন্য উন্মুখ হয়ে থাকতাম। তাঁর মৃত্যুতে আমি ব্যথিত। তাঁর পরিবার ও লাখো সমর্থকের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। ওম শান্তি।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mulayam singh yadav passes away at 82