scorecardresearch

“তথ্য দেয়নি তৃণমূল সরকার, চাকরির সুবিধা থেকে বঞ্চিত বাংলার পরিযায়ীরা”

“প্রথম থেকেই রাজ্যে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চলাচলের অনুমতি দিতে অনীহা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। কেন্দ্রের সমস্ত জনকল্যাণ নীতির বিরোধিতা করে আসছেন তিনি।”

“তথ্য দেয়নি তৃণমূল সরকার, চাকরির সুবিধা থেকে বঞ্চিত বাংলার পরিযায়ীরা”
পরিযায়ী শ্রমিক বিষয়ে মমতাকেই দুষলেন নির্মলা

লকডাউন দেশে কাজ হারানো শ্রমিকদের স্বার্থে মোদী সরকারের ‘গরীব কল্যাণ রোজগার অভিযান’ প্রকল্পের কোনও সুবিধাই নিল না পশ্চিমবঙ্গ সরকার, রবিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সাফ জানান, প্রকল্পের জন্য বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের কোনও তথ্যই কেন্দ্রকে জানায়নি তৃণমূল সরকার।

এদিন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির একটি ভার্চুয়াল জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেই আক্রমণ শানান অর্থমন্ত্রী নির্মলা। তিনি বলেন, “প্রথম থেকেই রাজ্যে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চলাচলের অনুমতি দিতে অনীহা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। কেন্দ্রের সমস্ত জনকল্যাণ নীতির বিরোধিতা করে আসছেন তিনি। পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর গরিব কল্যাণ রোজগার প্রকল্প ঘোষণার পর দেশের ছটি রাজ্যে তাঁদের শ্রমিকদের তথ্য জানিয়েছে কেন্দ্রকে। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ তা করেনি।”

আরও পড়ুন, মোদীর নেতৃত্বে করোনা এবং চিন সীমান্ত দুই যুদ্ধই জিতবে ভারত, আশ্বাস শাহের

অর্থমন্ত্রী এও বলেন, “প্রধানমন্ত্রী যে প্রকল্প ঘোষণা করেছেন সেখানে দেশের প্রায় ১১৬টি জেলা উপকৃত হবে। কিন্তু বাংলার কোনও জেলা সেখানে নেই কারণ তৃণমূল সরকার আমাদের কোনও তথ্যই দেয়নি। বাংলা আসলে কেন্দ্রের কোনও জনকল্যাণ নীতি বাস্তবায়িত কর‍তে চায় না।” প্রসঙ্গত, গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে কেন নেই বাংলার পরিযায়ীরা তা নিয়ে সুর চড়িয়েছিলেন যুব তৃণমূল সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া কর্মসংস্থান প্রকল্পে কেন বাংলার স্থান হল না এবং বাংলার মানুষের প্রতি কেন এই উদাসীনতা? পশ্চিমবঙ্গের প্রতি বঞ্চনার অভিযোগ তুলে মোদীকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন অভিষেক।

আরও পড়ুন, মুখ্যমন্ত্রীর নিয়ন্ত্রণে বিডিও-এসডিও, জেলার রাশও মমতার হাতেই

যদিও অভিষেকের এই অভিযোগের পরই সুর চড়ান রাজ্য বিজেপির প্রধান দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “রাজ্য কোনও তালিকা কেন্দ্রকে দেয়নি, তাই কোনও জেলার নাম আসেনি ওই প্রকল্পে। এর দায় সম্পূর্ণ রাজ্য সরকারের।”

তবে ভারত-চিন সীমান্ত সমস্যা নিয়ে কেন্দ্র সরকারকে সাহায্যকরার আশ্বাস দেওয়া মমতার প্রশংসাও করেন নির্মলা সীতারমণ। তিনি বলেন, “আমি তাঁকে একটি বিষয়ে কৃতিত্ব দিতে চাই। অন্তত ভারত-চিন সীমান্ত ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।”

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Nirmala sitharaman aims mamata banerjee bengal could not be made beneficiary of migrants job scheme as tmc govt didnt give data