অনাস্থার মুখে সিসিটিভিতেই আস্থা তৃণমূল থেকে বহিষ্কৃত চেয়ারম্যানের

কাউন্সিলরদের 'শিবির বদল' আটকাতে এবার কাউন্সিলরদের বাড়িতে সিসিটিভি বসাতে চলেছেন গঙ্গারামপুর পুরসভার চেয়ারম্যান প্রশান্ত মিত্র।

By: Ravik Bhattacharya Kolkata  Published: August 2, 2019, 6:50:41 PM

পুরসভার দখল নিয়ে যখন লড়াইয়ের ময়দানে ঘুঁটি সাজাচ্ছে দুই দল, ঠিক সেই সময় ‘অভিনব কৌশল’ গ্রহণ করলেন দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের চেয়ারম্যান। আগামী ৫ অগাস্ট গঙ্গারামপুর পুরসভায় অনাস্থা ভোট। এরআগে ‘শিবির বদল’ রুখতে এবার কাউন্সিলরদের বাড়িতে সিসিটিভি বসাতে চলেছে পুরসভার চেয়ারম্যান প্রশান্ত মিত্র। যদিও সরকারি ভাবে জানানো হয়েছে, কাউন্সিলরদের সুরক্ষার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা।

আরও পড়ুন- মুকুল রায়কে জিজ্ঞাসাবাদ কলকাতা পুলিশের

প্রসঙ্গত, দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুর পুরসভায় ১৮টি আসনে জয়লাভ করে তৃণমূল। কিন্তু লোকসভা ভোটের পর গেরুয়া ঝড়ের ধাক্কায় ঘাসফুল শিবির ছেড়ে পদ্ম পতাকা হাতে তুলে নেয় স্বয়ং প্রশান্ত মিত্রের ভাই বিপ্লব মিত্র-সহ অনেকেই। এরপরই তৃণমূল দল থেকে বহিষ্কার করে দেওয়া হয় দুই ভাইকেই। প্রশান্ত-বিপ্লব উভয়কেই বহিষ্কারের পর গঙ্গারামপুর পুরসভার চেয়ারম্যান পদে প্রশান্ত মিত্রর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে ১১ জন কাউন্সিলর। জানা যাচ্ছে, প্রশান্ত মিত্রের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনতে সচেষ্ট হয়েছে তৃণমূলই।

আরও পড়ুন- জঙ্গলে ঢেকেছে জঙ্গলমহলের স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ধুঁকছে স্বাস্থ্য পরিষেবা

এই প্রেক্ষাপটে বুধবারই কাউন্সিলরদের বাড়িতে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানোর নির্দেশ দেন প্রশান্ত মিত্র। এমনকী জানা যাচ্ছে, এইসব সিসিটিভির নিয়ন্ত্রণ থাকবে পুলিশের হাতে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে প্রশান্ত মিত্র জানান, “কাউন্সিলরদের সুরক্ষা প্রদান করতেই এই সিসিটিভি বসানো হচ্ছে। একজন চেয়ার‍ম্যান হিসেবে তাঁদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা আমার কর্তব্য। সেই কারণেই তাঁদের বাড়ির বাইরে সিসিটিভি লাগানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আমরা এই জন্য আশি হাজার টাকা বরাদ্দও করেছি”। তিনি আরও বলেন, “সিসিটিভিতে নজরদারির দায়িত্বে থাকবে পুলিশ। কোনও কাউন্সিলরই যাতে অনাস্থা ভোটের আগে কোনও সমস্যার মুখোমুখি না হন তা নিশ্চিত করাও আমার কর্তব্য। আমাদের কাছে খবর আছে, বিভিন্নভাবে তাঁদের হুমকি দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে অনেকে। তাঁদের উপর চাপ বাড়ানোর চেষ্টাও চালানো হচ্ছে”। উল্লেখ্য, বুধবারের বিষয়টি ঘোষণার পর এখনও পর্যন্ত ১১ জন কাউন্সিলরের বাড়িতে সিসিটিভি বসানো হয়েছে। প্রশান্ত মিত্রের দাবি, তাঁকে যারা সমর্থন করে সেই সব কাউন্সিলরদের ভয় দেখাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস।

আরও পড়ুন- তৃণমূল সাংসদ কল্যাণের নামে কাটমানির পোস্টার, ধৃত পুলিশের গাড়ি চালক

একদা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগামী প্রশান্ত মিত্রের বক্তব্য, “তৃণমূলের তরফে ফোন করে হুমকি দেওয়া হচ্ছে আমার সঙ্গে থাকা কাউন্সিলরদের। যদি তাঁদের আক্রমণ করা হয় তা সিসিস্টিভি ফুটেজেই ধরা পড়বে। তখন আর তৃণমূলের অস্বীকার করার জায়গা থাকবে না”। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা প্রধান তথা নাট্য ব্যাক্তিত্ব অর্পিতা ঘোষ বলেন, “সব কাউন্সিলরই তৃণমূল কংগ্রেসের। তাঁরা নিজেরাই চায় না যে প্রশান্ত মিত্র জিতুক, এবং উনি হারবেন অনাস্থা ভোটে। সেই কারণেই এমন ভিত্তিহীন অভিযোগ করেছেন উনি”।

Read the Full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

No confidence vote in bengal district cctvs monitor councillors visitors

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement