scorecardresearch

বড় খবর

‘তৃণমূল থেকে আর কোনও নেতাকে নেওয়া হবে না’, বিজেপির বড় ঘোষণা

শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে জানান হল যে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে যারা বিজেপিতে আসতে চাইছে তাঁদের কাউকে আর দলে যোগদান করানো হবে না।

একুশের নির্বাচনের আগে বড় সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি। মঙ্গলবার পদ্ম শিবিরের শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে জানান হল যে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে যারা বিজেপিতে আসতে চাইছে জোটবদ্ধভাবে তাঁদের কাউকে আর দলে যোগদান দেওয়ানো হবে না। ‘নির্বাচনীর’ আগে অন্তর্ভুক্তি এখন থেকে স্থানীয় নেতৃত্বের সঙ্গে পরামর্শের পরে করা হবে।

বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গিয় বলেন, “আমরা চাই না যে বিজেপি তৃণমূলের বি-দলে পরিণত হোক। এমন নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করে, যাদের কাছে দলের পরিষ্কার চিত্র নেই। আমরা চাই না যেসব ব্যক্তিরা অভিযোগের মুখোমুখি বা অনৈতিক বা অবৈধ কর্মকাণ্ডে জড়িত, তারা আমাদের দলে যোগদান করুক।” কৈলাস বিজয়বর্গীয় আরও বলেন, “এখন থেকে একযোগে তৃণমূলত্যাগী নেতাদের বিজেপিতে যোগদান করানো হবে না।”

বিজেপি সূত্রের খবর, রাজ্য বিজেপির অভ্যন্তরে এই নিয়ে ক্ষোভ বাড়ছে ক্রমশ। মাঝে মধ্যেই অন্তর্দ্বন্দ্ব হচ্ছে অন্দরে, তাই এমন সিদ্ধান্ত। রাজ্য বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা বলেন, “অনেক ক্ষেত্রেই জেলা নেতৃত্ব তৃণমূল ছেড়ে আসা নেতাদের অন্তর্ভুক্তিতে সন্তুষ্ট নন। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বিষয়টিকে ভাল চোখে দেখছে না।” বিধানসভা নির্বাচনের আগে দলের ইমেজ বজায় রাখতে নেতাদের নেওয়ার আগে সেই দিকটিও বিচার করে দেখা হবে এবার থেকে।

উল্লেখ্য, যে হারে পদ্ম শিবিরে যোগ দিয়েছেন একাধিক তৃণমূল ত্যাগীরা, সেখানে দুর্নীতি মাথায় নিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন এমন অভিযোগ উঠছে। সম্প্রতি তৃণমূলের মুখপাত্র সৌগত রায় বলেন, “বাংলায় বিজেপির নেতৃত্ব নেই বা তাদের মুখও নেই। তাই তৃণমূল থেকে নেতা ভাঙিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। নিজেরাই দলের মধ্যে মারামারি করছে এখন। তাই বিজেপি যোগের দরজা বন্ধ করা ছাড়া উপায় নেই।”

Read the story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: No more mass joinings from tmc bjp says door shut