scorecardresearch

বড় খবর

কলকাতার উল্টো নীতি জেলায়, ১০৮ পুরভোটের লড়াইতে নেই কোনও তৃণমূল বিধায়ক

২৭ ফেব্রুয়ারি রাজ্যের ১০৮টি পুরসভায় ভোট হবে। শুক্রবার প্রকাশিত হল তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা।

mamata benerjees reaction on siliguri asansol chandannagar bidhannagar muni poll result 2022
চার পুরনিগমের ভোটে ব্যাক জয়ের পথে তৃণমূল। ছবি- পার্থ পাল

২৭ ফেব্রুয়ারি রাজ্যের ১০৮টি পুরসভায় ভোট হবে। শুক্রবার প্রকাশিত হল তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এ দিন আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেন। তবে, এই প্রার্থী তালিকায় নাম নেই একজন তৃণমূল বিধায়কেরও।

যদিও গত ডিসেম্বরে কলকাতা পুরযুদ্ধের ময়দানে দেখা গিয়েছিল একাধিক বিধায়ককে। জোড়া-ফুলের প্রতীকে লড়েছিলেন কলকাতার ৫ হেভিওয়েট বিধায়ক ও একজন সাংসদ। এঁদের মধ্যে ফিরহাদ হাকিম রাজ্যের মন্ত্রী। তিলোত্তমার পুরভোটে তৃণমূলের হয়ে লড়াই করে জয়ী হয়েছেন কাশীপুর-বেলগাছিয়ার বিধায়ক অতীন ঘোষ, মানিকতলার বিধায়ক পরেশ পাল, রাসবিহারীর বিধায়ক দেবাশিষ কুমার, কলকাতা বন্দরের বিধায়ক ফিরহাদ হাকিম ও যাদবপুরের বিধায়ক দেবব্রত মজুমদার ও বেহালা পূর্বের বিধায়ক রত্না চট্টোপাধ্যায়। এর মধ্যে ফিরহাদ হাকিম কলকাতার মেয়র, অতীন ঘোষ ডেপুটি মেয়র, দেবাশিষ কুমার ও দেবব্রতবাবু মেয়র পারিষদের দায়িত্বে রয়েছেন।

কেন এই নীতি বদল? তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, ‘আসন্ন পুরভোটে দলের নতুনদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। নবীন ও প্রবীণ সমন্বয়ের ভিত্তিতে কাজ করবে।’

দল কলেবরে বেড়েছে। নতুনদের সুযোগের কথা নেতৃত্বের মুখে। কিন্তু বিধায়কদের প্রার্থী না করায় কী দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব আরও তীব্রভাবে মাথাচাড়া দেবে না? গোঁজ প্রার্থী দেওয়ারও কী সম্ভাবনা প্রকট হবে না? সেক্ষেত্রে জোড়া-ফুলের অবস্থান কী হবে?

উত্তরে দলের হুঁশিয়ারির সুরে কড়া শৃঙ্খলার কথা শুনিয়েছেন তৃণমূল মহাসচিব। বলেছেন, ‘আশা করি
এমন কেউ কিছু করবেন না যাতে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের ভাবমূর্তির ক্ষতি হয়। দলের শৃঙ্খলাভঙ্গ হলে কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, কলকাতা ও জেলা রাজনীতি পৃথক। রাজ্য়ের একাধিক পুরসভায় পুরপ্রশাসক বনাম বিধায়ক গোষ্ঠীর আকছাআকছি প্রকাস্যে এসেছে। আবার অনেকক্ষেত্রেই বিধায়ক পুরপ্রশাসক বা কাউন্সিলর হওয়ায় দলের মধ্যেই নানা প্রশ্ন উঠেছে। এবার আর সেই প্রশ্নের জায়গা রাখতে দিতে রাজি নয় ঘাস-ফুল শিবির। তাই শেষ পর্যন্ত আসন্ন পুরভোটে দলের কোনও বিধায়ককেই প্রার্থী তালিকায় ঠাঁই দেওয়া হয়নি। জানানো হয়েছে, একই পরিবারের একাধিক সদস্যকেও তালিকায় জায়গা দেওয়া হয়নি। (কলকাতা পুরভোটে ১১৮ নং ওয়ার্ড থেকে জেতেন তৃণমূলের তারক সিং। ১১৭ থেকে জয় পেয়েছেন তাঁরই ছেলে এমিত সিং ও ১১৬ থেকে কাউন্সিলর তারকবাবুর কন্যা কৃষ্ণা সিং।)

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: None of tmc mla will contest in 108 municipal elections west bengal