লালকেল্লা থেকে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় ইস্যুতে সরব মোদী, নাম না করে কটাক্ষ তৃণমূলকে?

স্বাধীনতার ৭৫তম বর্ষে লালকেল্লা থেকে দেশবাসীর উদ্দেশে ভাষণেও রাজনীতি ছুঁয়ে গেলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

লালকেল্লা থেকে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় ইস্যুতে সরব মোদী, নাম না করে কটাক্ষ তৃণমূলকে?
দুর্নীতি ইস্যুতে পার্থ-অনুব্রতর পাশে দাঁড়ানোয় মমতাকেই নাম না করে কটাক্ষ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ফাইল ছবি

স্বাধীনতার ৭৫তম বর্ষে লালকেল্লা থেকে দেশবাসীর উদ্দেশে ভাষণেও রাজনীতি ছুঁয়ে গেলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দেশে লাগামহীন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তিনি নিশানা করলেন সাম্প্রতিক কালে দুর্নীতির অভিযোগে ধৃত নেতা-মন্ত্রীদের। নাম না করলেও মোদীর নিশানায় যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল কংগ্রেস ছিল তা বলার অপেক্ষা রাখে না। নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে গ্রেফতার হয়েছেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। একমাসের মধ্যে গরু পাচার কাণ্ডে গ্রেফতার হয়েছেন বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তাঁদেরই কি নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী?

রবিবারই বেহালায় স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে একটি সভায় অনুব্রত মণ্ডলের গ্রেফতারি নিয়ে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন কেষ্টকে গ্রেফতার করা হল, কী করেছে কেষ্ট, প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। বেহালার ম্যানটনে স্বাধীনতা দিবসের এক অনুষ্ঠানে বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতির গ্রেফতার নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন অনুব্রতকে গ্রেফতার করা হল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রতিহিংসার রাজনীতির অভিযোগে তুলোধনা করেছেন বিজেপিকে।

এ দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘পরশু কেষ্টকে গ্রেফতার করা হল, কী করেছিল ও? ইলেকশনে তো ওকে ঘরবন্দি করে রাখা হয়েছিল। একটা ইলেকশনেও ওকে বেরতে দেয়নি। কিন্তু কেষ্টকে আটকালে কী হবে? ছেলেটা গত দু’বছর খুব কষ্ট পেয়েছে। ওর স্ত্রী, তার আগে মা মারা গেছে। আমি ওকে এমপি, এমএলএ হতে বললেও ও বলত হব না। রাজ্যসভায় যেতে বললেও যায়নি। ওদের এজেন্সিতে কিছু লোককে টাকা দিয়ে পোষে। তারা প্রথম থেকে শুধু বদনাম করে। পরে কিন্তু জিরো, কেসে কিছুই হল না। জেনে রাখুন ২০২৪-এ বিজেপি আর জিতবে না। তাই বলি দুর্বল হবেন না, এদের বিচার জনগণের আদালতে হবে। এক কেষ্টকে ধরলে লক্ষ কেষ্টরা রাস্তায় তৈরি হবে।’

আরও পড়ুন Independence Day 2022: ‘এখনও কেউ কেউ দুর্নীতিবাজদের মহিমান্বিত করছেন’, কাকে নিশানা করলেন মোদী?

মমতার এই বাক্যবাণের পরদিন আজ, লালকেল্লা থেকে নাম না করে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেওয়া নিয়ে সরব হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বলেছেন, “দুর্নীতি ভারতের ভিত খেয়ে নিচ্ছে। আমি এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে চাই। আমি ১৩০ কোটি ভারতীয়কে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমাকে সাহায্য করার জন্য আহ্বান জানাই। কিছু লোক যাঁরা দুর্নীতির দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন এবং জেলে পর্যন্ত চলে গিয়েছেন তাঁদের কেউ কেউ মহিমান্বিত করে চলেছেন। আমাদের অবশ্যই দুর্নীতি এবং দুর্নীতিবাজদের প্রতি ঘৃণার মনোভাব নিশ্চিত করতে হবে।”

আরও পড়ুন ‘কেন কেষ্টকে গ্রেফতার?’, পার্থর বিধানসভায় অনুব্রতর পাশেই মমতা

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, দুর্নীতি ইস্যুতে পার্থ-অনুব্রতর পাশে দাঁড়ানোয় মমতাকেই নাম না করে কটাক্ষ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। যদিও কাকে নিশানা করেছেন তা ভাষণে খোলসা করেননি মোদী। তবে এটা বলার অপেক্ষা রাখে না তাঁর অভিযোগের তির ছিল মমতা এবং তৃণমূলকে লক্ষ্য করেই।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pm modi targets mamata and tmc over corruption from red fort speech

Next Story
অক্টোবর থেকে বিহারজুড়ে পদযাত্রায় প্রশান্ত কিশোর, ২৪-এ নতুন দল