চিনা পণ্য় আমদানি বেড়েছে ২০১৪ থেকে, ‘তথ্য়’ পেশ করলেন রাহুল গান্ধী

২০১৪ সালে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই চিনা পণ্য়ের রমরমা বেড়েছ বলে এদিন টুইটারে তথ্য় পেশ করে দাবি করেছেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি।

By: New Delhi  Updated: June 30, 2020, 05:49:40 PM

চিনা পণ্য় আমদানি নিয়ে এবার মোদী সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণের তীর ছুড়লেন রাহুল গান্ধী। ২০১৪ সালে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই চিনা পণ্য়ের রমরমা বেড়েছ বলে এদিন টুইটারে তথ্য় পেশ করে দাবি করেছেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। উল্লেখ্য়, লাদাখে উত্তেজনার আবহে সোমবার রাতে টিকটক-সহ ৫৯টি চিনা অ্য়াপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত। তারপরই রাহুলের এহেন দাবি রাজনৈতিকভাবে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

মনমোহন ও মোদী জমানায় আমদানিকৃত পণ্য়ের তুলনা টেনে রাহুল টুইটারে লিখেছেন, ”তথ্য় মিথ্য়া কথা বলবে না। বিজেপি বলে, মেক ইন ইন্ডিয়া, আর বিজেপি করে, বাই ফর্ম চায়না”। একথা লেখার পাশাপাশি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি পাশাপাশি রেখে ইউপিএ বিজেপি আমলে চিনা আমদানির তুলনা টেনেছেন রাগা।

আরও পড়ুন: ভার্চুয়াল স্ট্রাইক: টিকটক-ইউসি ব্রাউজার-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ ভারতে

গ্রাফে রাহুল দেখিয়েছেন, ২০০৮-২০১৪ সালের মধ্য়ে চিন থেকে আমদানি ছিল ১৪ শতাংশের নীচে। যা এনডিএ জমানায় লাফিয়ে বেড়ে হয় ১৮ শতাংশ।

উল্লেখ্য়, টিকটক, শেয়ারইট, ইউসি ব্রাউজার, লাইকি, ইউচ্যাট, বিগো লাইভ-সহ মোট ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করল তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রক।তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফে এ ব্যাপারে জানানো হয়েছে, ওই অ্যাপগুলি ‘দেশের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, দেশের সুরক্ষার জন্য ক্ষতিকারক। সেকারণেই ওই অ্যাপগুলিকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’ তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারায় অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Rahul gandhi tweets chart to illustrate rise in chinese imports since 2014

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
BIG NEWS
X