বড় খবর

‘অপমান বাড়লে জেদও বাড়বে, বাংলায় পদ্ম ফোটাবই’, গেরুয়া মঞ্চে চ্যালেঞ্জ রাজীবের

পুরনো দলের বিরুদ্ধে স্বাভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে দুর্নীতি ইস্যুতে আক্রমণ শানালেন রাজীববাবু। তবে নেত্রীর বিরুদ্ধে একটিও কথা বলেননি তিনি।

হাওড়ার ডুমুরজলার বিজেপির যোগদান মেলা যেন মেগা ইভেন্ট হয়ে রইল। শনিবার অমিত শাহের বাড়িতে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, বৈশালী ডালমিয়া, প্রবীর ঘোষালরা বিজেপিতে যোগ দিলেও এদিনের সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁরা গেরুয়া দলে নাম লেখান। এদিনের গেরুয়া সভায় আগাগোড়াই মধ্যমণি রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। পুরনো দলের বিরুদ্ধে স্বাভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে দুর্নীতি ইস্যুতে আক্রমণ শানালেন রাজীববাবু। তবে নেত্রীর বিরুদ্ধে একটিও কথা বলেননি তিনি।

কী বললেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়…

*‘এই উন্মাদনা থাকলে সারা বাংলায় পদ্ম ফোটাব।’

*‘যত দিন বাঁচবো কোনওদিন কর্মীদের অসম্মান করব না। কর্মীরাই যেকোনও দলের সম্পদ’

*‘একটা সময় স্লোগান ছিল বদলা নয়, বদল চাই। এখন দেখছি উল্টোটাই হচ্ছে।’

*‘ওদের দলে যোগ দিলে উন্নয়ন আর অন্য দলে গেলে সমালোচনা। আমি দরকারে পাড়ায়, পাড়ায় গিয়ে প্রচার করবো। ২৯৪টি কেন্দ্রে গিয়ে বিজেপির হয়ে প্রচার করবো।’

*‘ওরা ব্যক্তিগত কুৎসা রটাচ্ছে, তৃণমূলের শেষের শুরু হয়ে গিয়েছে। আমরা রাজনৈতিক ভাবে এর মোকাবিলা করবো। যত কুৎসা রটাবে ততই জেদ বাড়বে।’

*‘কলকাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা তৃণমূল শূন্য করব।’

*‘সংখ্যালঘুদের ভোট মেশিন করে রাখা হয়েছে।’

*‘রাজ্যে বিজেপি আসলে কর্মসংস্থান হবে, শিল্প হবে। অমিত শাহ কথা দিয়েছেন। আমাদের অনুন, আমরা সোনার বাংলা গড়ে তুলবো।’

*‘কেন্দ্র ও রাজ্যে এক সরকার হোক। কেবল কেন্দ্র রাজ্য ঝগড়া করে আমরা কাটিয়েছি। সুবিধা আদায় করতে পারিনি। তাই বাংলার উন্নয়নে ডবল ইঞ্জিনের সরকার দরকার।’

*‘এতদিন সরকার দুয়ারে যায়নি, তাই ভোটের আগে দুয়ারে যেতে হচ্ছে। ভোটের আগে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দিচ্ছে। ভাওতাবাজি করছে সরকার। কেন এই সরকারকে ভোট দেবেন? এরা তো বলছে সব কাজ করে দিয়েছে।’

*‘চলুন পাল্টাই, চুপ-চাপ পদ্মে ছাপ’

*‘এবার আর ধমকে-চমকে ভোট হবে না। এবার অবাধ ভোট হবে।’

এদিন ডুমুরজলা স্টেডিয়ামের পদ্ম শিবিরে যোগ দেন, হাওড়া পুরসভার মেয়র পারিষদ বাণী সিংহ রায় সহ হাওড়া পুরসভার একাধিক প্রাক্তন কাউন্সিলর।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Rajib banerjee at dumurjola bjp jogdan mela meeting

Next Story
ডুমুরজলার গেরুয়া মঞ্চে মধ্যমণি রাজীবই, স্মৃতি এলেও নজরে শাহের ভার্চুয়াল বক্তব্য
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com