ভোটের সময় রাজনৈতিক দলগুলির ‘প্রতিশ্রুতি’-‘দান খয়রাতি’, কেন্দ্র-কমিশনকে সুপ্রিম নোটিস

নির্বাচনের সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল নানাবিধ প্রতিশ্রুতি দেয়। চলে দান, খয়রাতি। জণগনের অর্থেই এসব হয়। এর বিরুদ্ধেই সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল।

SC ST quota in promotions Supreme Court refuses to lay down yardstick
সুপ্রিম কোর্ট।

নির্বাচনের সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল নানাবিধ প্রতিশ্রুতি দেয়। চলে দান, খয়রাতি। অভিযোগ, জণগনের অর্থেই এইসব করে থাকে রাজনৈতিক দলগুলি। এর বিরুদ্ধেই সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল। আবেদন ছিল, যেসব রাজনৈতিক দল ভোটের সময় অযথা প্রথিশ্রুতি দেয় ও খয়রাতি করে তাদের প্রতীক কেডে় নেওয়া হোক অথবা ওইসব দলের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা হোক। সেই মামলার এ দিনের শুনানি শেষে কেন্দ্র ও নির্বাচন কমিশনকে নোটিস দিল দেশের শীর্ষ আদালত।

ভারতের প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানা এবং বিচারপতি এ এস বোপান্না এবং হিমা কোহলির সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ, ‘এটি গুরুতর সমস্যা এবং দান, খয়রাতির বাজেট নিয়মিত বাজেটের বাইরে চলে যায়। এটা দুর্নীতিমূলক বিষয় না হলেও অসাম্য তৈরি করে।’

বিচারপতি কোহলি মামলাকারীকে উদ্দেশ্য করে জানতে চান, ‘আপনার আবেদনে কোনও রাজনৈতিক দলের নাম উল্লেখ নেই।’ প্রধান বিচারপতি রামানা বলেন, ‘হলফনামায় মাত্র দুটির উল্লেখ রয়েছে।’

বিজেপি নেতা এবং আইনজীবী অশ্বিনী উপাধ্যায়ের দায়ের করা জনমস্বার্থ মামলায় পাঞ্জাব নির্বাচনের আগে, আপের তরফে ১৮ বছর বয়সী প্রত্যেক মহিলাকে প্রতি মাসে হাজার টাকা করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতির উল্লেখ রয়েছে। আবেদনে বলা হয়েছে, ‘শিরোমণি আকালি দল ভোটারদের প্রলুব্ধ করার জন্য প্রতিটি মহিলাকে ২ হাজারটাকা করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তারপরে, কংগ্রেস প্রত্যেক গৃহবধূকে প্রতি মাসে ২ হাজার টাকা করে দেওয়ার আঙ্গীকার করেই খান্ত হয়নি, কংগ্রেস বলেছে গৃহবধূদের বছরে আটটি গ্যাস সিলিন্ডার ও কলেজের ছাত্রীদের স্কুটি,দ্দাশ শ্রেণি উত্তীর্ণের পর ২০ হাজার টাকা, দশম শ্রেণি পাসের পাসের পরে ১৫ হাজার টাকা, অষ্টম শ্রেণী পাসের পরে ১০ হাজার ও পঞ্চম উত্তীর্ণ হলেই ৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।’

সবশেষে, আবেদনে উল্লেখ রয়েছে, ‘উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে, কংগ্রেস দ্বাদশ শ্রেণীতে অধ্যয়নরত প্রতিটি মেয়েকে একটি স্মার্টফোন, স্নাতক পাস করা প্রতিটি মেয়েকে একটি স্কুটি, মহিলাদের জন্য বিনামূল্যে গণপরিবহন, প্রত্যেক গৃহবধূকে বছরে আটটি বিনামূল্যে গ্যাস সিলিন্ডার, পরিবার পিছু ১০ লাখ টাকার চিকিৎসার পরিষেবার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।’

গত সপ্তাহে, সুপ্রিম কোর্ট বলেছিল যে এই আবেদন গ্হণ করা হয়েছে। এছাড়াও বিজেপি নেতা এবং আইনজীবী অশ্বিনী উপাধ্যায় আরও একটি আবেদন সুপ্রিম কোর্টে করছেন। রাজনৈতিক দলগুলি যাতে তাদের ওয়েবসাইটে কারণ জানিয়ে প্রার্থীদের ফৌজদারি মামলা সম্পর্কিত বিশদ তথ্য প্রকাশ করে তার আবেদন করা হয়েছে।

Read in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sc issues notice to centre ec on pil against election promises of freebies

Next Story
‘যা বলেছেন ঠিক বলেছেন’, রাজ্যপালের হয়ে ‘ব্যাট’ ধরলেন শুভেন্দু