scorecardresearch

বড় খবর

পাট কৌশল: অর্জুনে নরম তৃণমূল, রাজনীতি না দেখে রক্ষণাত্মক বিজেপি

এমনকী অর্জুনের দাবিতে রাজনীতি দেখতে পাচ্ছে না তৃণমূল কংগ্রেসও।

soft approach of tmc on bjp mp arjun singh
দলবদল করতে পারেন অর্জুন, জল্পনা তুঙ্গে।

পাট শিল্প ইস্যুতে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের প্রতি ‘নরম মনোভাব’ লক্ষ্য করা গেল তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়ের গলায়। এমনকী অর্জুনের দাবিতে রাজনীতি দেখতে পাচ্ছে না তৃণমূল কংগ্রেস। বরং বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং তৃণমূলের আন্দোলনে সামিল হতে চাইলে আবেদন করতে পারেন বলেও মন্তব্য করেছেন প্রবীণ তৃণমূল নেতা। পাট শিল্প ইস্যুতে অর্জুন সিং ও তৃণমূল কংগ্রেসের মতামতের ক্ষেত্রে প্রায় সহাবস্থান, ফের জল্পনা ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। ৪ মে পাট শিল্প ইস্যুতে তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসি জুট কমিশনারের অফিসের সামনে ধরনা-অবস্থানে বসতে চলেছে।

এর আগে ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের ভাইপো সৌরভ সিং, আত্মীয় প্রাক্তন বিধায়ক সুনীল সিং তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে গিয়েছেন। পুরনির্বাচনে বিজেপির টিকিট প্রত্যাখ্যান করেছেন সৌরভ। রাজনৈতিক মহলের কাছে সৌরভের পরিচিতি ছিল কাকা অর্জুন সিংয়ের ‘ডান হাত’ বলে। একসময় ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যানও ছিলেন সৌরভ। তৃণমূলে থাকাকলীন অর্জুনের একাধিক আত্মীয় কাউন্সিলর ছিলেন। নিকট আত্মীয়স্বজনের তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে যাওয়া নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করে রাজনৈতিক মহলে। যদিও অর্জুন জানিয়েছিল, ব্যাক্তিগত ভাবে কে কোন দলে থাকল সেটা তাঁর বিষয়। বরং সৌরভের তৃণমূল যোগদান নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন অর্জুন সিং।

সম্প্রতি রাজ্যের পাট শিল্প নিয়ে কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রী পিযুষ গোয়েলের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন। পাটশিল্পের পরিবর্তে প্লাস্টিক লবিকে সুবিধে পাইয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে সরব হন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ। একেই রাজ্য বিজেপির নানান ধরনের অস্বস্তি চলছে। একের পর এক পদত্যাগ প্রক্রিয়া চলছে বিজেপিতে। তার মধ্যে বিজেপি সাংসদের চরম বিরোধিতায় এবার অস্বস্তি শুধু রাজ্য বিজেপি নয়, কেন্দ্রীয় সরকারের দরবারেও পৌঁছে গিয়েছে।

তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায় বলেন, ‘কাঁচা পাটের অভাবে রাজ্যের একাধিক জুট মিল বন্ধ। শ্রমিকরা কাজ হারিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ আমি কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছি। এতে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে তিন কোটি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আমারা ৪ মে জুট কমিশনারের অফিসের সামনে অবস্থান বসব৷ অর্জুন সিং এই ইস্যুতে বিরোধিতা করেছেন।

অর্জুনকে বস্ত্র মন্ত্রী যা বলেছেন সেটা পড়লাম কাগজ। ওনার এলাকায় একাধিক জুট মিল আছে। সব কিছুতে রাজনৈতিক কারণ দেখা উচিত নয়।’ এই প্রবীণ তৃণমূল নেতা বলেছেন, ‘অর্জুন আমাদের দলের আহ্বানে আসতে চাইলে দলের সাথে যোগাযোগ করুন। আমাদের কাছে অনুরোধ করুন।’

এদিকে ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ বস্ত্রমন্ত্রীকে দেওয়া তাঁর চিঠি প্রকাশ্যে এনেছেন। তৃণমূলের পাট শিল্প নিয়ে আন্দোলনের প্রক্ষিতে অর্জুনের মন্তব্য, ‘আওয়াজ তুললে ভাল। আমি তো সব ইউনিয়নকে এগিয়ে আসতে বলেছি। বিএমএসকে ডাকলেই চলে যাব।’ পাট ইস্যু নিয়ে হঠাৎ এক ছাতার তলার এসে আন্দোলনের প্রচেষ্টা, সব কিছুতে রাজনীতি খুঁজে না পাওয়ার মন্তব্যের মধ্যে বিশেষ কারণ খুঁজছে রাজনৈতিক মহল। শেষমেশ কী তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের মঞ্চে এসে আন্দোলনে সামিল হবেন অর্জুন সিং? আদৌ সেই ‘মঞ্চ’ কোথায় বাঁধা হবে তা নিয়ে জল্পনা চলছে রাজনৈতিক মহলে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Soft approach of tmc on bjp mp arjun singh