scorecardresearch

বড় খবর

“শিল্পীদের চাপ দিচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখার জন্য”, বিজেপির আইটি সেলকে নিশানা মমতার

রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের বিকল্প কোন দল, সেটাও স্পষ্ট করে দেন মুখ্যমন্ত্রী।

“শিল্পীদের চাপ দিচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখার জন্য”, বিজেপির আইটি সেলকে নিশানা মমতার

ভোটের মুখে ঘাসফুল ছেড়ে পদ্মশিবিরে নেতা-তারকাদের ভিড়। তৃণমূল থেকে নেতা-বিধায়করা তো বটেই, বিনোদুনিয়ার তারকাও এখন সাত-পাঁচ না ভেবে ভিড়ছেন গেরুয়া শিবিরে। এবার সেই নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে তফসিলি জাতি-উপজাতি সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, “আমাকে সিনেমা-সিরিয়ালের অনেকে বলেছে, ইন্ডাস্ট্রির শিল্পীদের চাপ দেওয়া হচ্ছে বিজেপির সম্পর্কে, কেন্দ্রের কাজ নিয়ে ভাল কথা ফেসবুকে বলতে-লিখতে। এর বদলে টাকাও অফার করছে বিজেপির আইটি সেল। সবাইকে চাপ দিচ্ছে বিজেপি।”

সম্প্রতি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন একদা তৃণমূল ঘনিষ্ঠ অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। অভিনেতা হিরণও যাব যাব করছেন। রুদ্রনীল ইঙ্গিত দিয়েছেন, আরও অনেক ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গী, বিশেষ করে তৃণমূল ঘেঁষা শিল্পী বিজেপিতে আসতে চলেছে। এদিকে, কৃষক আন্দোলন নিয়ে পপস্টার রিহানার টুইটকে পাল্টা কটাক্ষ করতে বলিউডের তারকারা যেভাবে ঐক্যবদ্ধ ভারতের বিজ্ঞাপন করছেন তাতেও রাজনীতি দেখছেন অনেকে। সবকিছু নিয়েই এদিন চাঞ্চল্যকর দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই এদিন তিনি বিজেপির আইটি সেলকে কাঠগড়ায় তোলেন শিল্পীদের চাপ দেওয়ার জন্য।

আরও পড়ুন এবার অমিত মিত্রের বদলে বাজেট বক্তৃতা মুখ্যমন্ত্রীর?

অন্যদিকে, এদিন সম্মেলনের শুরুতে কিছুটা বিশৃঙ্খলা হয় স্টেডিয়ামে। অনেকেই মুখ্যমন্ত্রী বলার আগে নিজেদের দাবি-দাওয়া রাখতে শুরু করেন। শোরগোলের জেরে নিজের বক্তব্য বন্ধ রাখেন মমতা। তারপর বলতে শুরু করে তাঁর মন্তব্য, “আর ৪-৫ দিন পরই ভোটের দিন ঘোষণা হবে। এখন এত চাইলে হবে না। কয়েকটা বিজেপি আর কয়েকটা সিপিএম লোকের কথা শুনে এরকম করে কোনও লাভ নেই। ভোটের আগে ব্ল্যাকমেল করবেন না। কী দেওয়া হয়নি বলুন তো? সবুজসাথী, কন্যাশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী, বিনামূল্যে রেশন থেকে সব সুবিধাই পাচ্ছে রাজ্যবাসী।”

তিনি আরও বলেন, “এরপরও ভোটের আগে যা ইচ্ছা কেন চাওয়া হচ্ছে? এতেও যদি আমাকে পছন্দ না হয়, তাহলে আমায় ভোট দেবেন না। আমার কিছু আসে যায় না। যাঁরা আমার সঙ্গে থাকবেন, তাঁদের ভোটেই আমার সরকার হয়ে যাবে।” এদিন ফের দলত্যাগী শুভেন্দু-রাজীবদের উদ্দেশে নাম না করে তোপ দাগেন মমতা। বলেন, “সিরাজদৌল্লাকে মানুষ সম্মান করে। কিন্তু মীরজাফরকে কেউ ক্ষমা করেননি।” রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের বিকল্প কোন দল, সেটাও স্পষ্ট করে দেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, “তৃণমূল কংগ্রেসের বিকল্প তৃণমূলই। অন্য কেউ নয়। তৃণমূল হবে আরও উন্নততর তৃণমূল।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest State news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mamata banerjee slams bjps it cell for pressuring celebs