scorecardresearch

বড় খবর

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে লড়তে চান মদন মিত্র!

তাহলে কি একুশের ভোটে দুই প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রীর লড়াই দেখতে চলেছে বঙ্গবাসী?

বছর শেষে বঙ্গ রাজনীতির পারদ চড়ছে। একুশের ভোট যত এগিয়ে আসছে ততই একে অপরকে রাজনীতির মঞ্চে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ছে তৃণমূল-বিজেপি। শনিবার পানিহাটিতে তৃণমূলের সভায় সদ্য দলত্যাগী শুভেন্দু অধিকারীকে নিশানা সাধলেন প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র। চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বললেন, “শুভেন্দু অধিকারীর হিম্মত থাকলে নন্দীগ্রামে দাঁড়ান, আমি পার্টি নেতৃত্বকে বলব নন্দীগ্রামে ভোটে দাঁড়াতে চাই”। তারপর মিঠুন চক্রবর্তীর বিখ্যাত ফাটাকেষ্ট ছবির সংলাপ আউরে বললেন, “মারব এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে”।

তাহলে কি একুশের ভোটে দুই প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রীর লড়াই দেখতে চলেছে বঙ্গবাসী? তা তো সময়ই বলবে। প্রসঙ্গত, শুভেন্দু পরিবহণ মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরই মদন মিত্রকে দফতরের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যানের পদে বসানো হয়। দলে গুরুত্ব বাড়তে থাকে মদনের। প্রাক্তন মন্ত্রীকে এবার ময়দানেও চ্যালেঞ্জ করছেন আরেক প্রাক্তন মন্ত্রী।

আরও পড়ুন “২১ বছর তৃণমূলে ছিলাম ভাবতেও লজ্জা লাগছে”, প্রাক্তন দলকে নিশানা শুভেন্দুর

এদিন পানিহাটিতে শুভেন্দুকে ইতিহাসের কুখ্যাত বিশ্বাসঘাতক জগৎ শেঠ, উর্মিচাঁদদের সঙ্গে তুলনা করেছেন মদন। আক্রমণ করে বলেন, “শুভেন্দু কোনও বাঘ নয়, ওঁরা কাগুজে বাঘ। হেলিকপ্টারে মুর্শিদাবাদ-মালদহে গিয়েছে। ক্ষমতার অপব্যবহার করেছে। দলকে কিছুই ফেরত দেয়নি।”

এদিন মদন আরও বলেছেন, “বুথে বুথে নতুন নতুন শুভেন্দু অধিকারী তৈরি করব। না পারলে চিরদিনের জন্য পার্টি ছেড়ে চলে যাব।” তবে বক্তব্যের শেষে নিজের শেষ ইচ্ছার কথাও বলেছেন মদন মিত্র। বলেছেন, “একটাই ইচ্ছা, যেদিন চলে যাব, যেন বুকের উপর ঘাসফুলের পতাকা থাকে।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest State news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tmc leader madan mitra wants to fight poll against suvendu adhikari in nandigram