scorecardresearch

বড় খবর

১৬ জানুয়ারি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন! শতাব্দী রায়ের ফ্যান ক্লাবের পোস্ট ঘিরে জল্পনা

ভোটের মুখে এবার ‘বেসুরো’ বীরভূমের তৃণমূল সাংসদ।

তৃণমূল থেকে বিজেপিতে দলবদলের মধ্যেই এবার বেসুরো সাংসদ শতাব্দী রায়। বীরভূমের তৃণমূল সাংসদকে কয়েকদিন আগেও দেখা গিয়েছিল, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে বোলপুরের পদযাত্রায়। সেই মিছিলের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মমতার পাশেই ছিলেন শতাব্দী। কিন্তু পৌষ সংক্রান্তির দিন গোল বেঁধেছে তাঁর ফ্যান ক্লাবের একটি পোস্ট ঘিরে। ফেসবুক পোস্টে সাংসদের লেখা বলে তাতে দাবি করা হয়েছে। সেই পোস্টে শতাব্দী রায় জানিয়েছেন, যদি কোনও সিদ্ধান্ত নেন আগামী ১৬ জানুয়ারি, শনিবার দুপুর দুটোয় জানাবেন। এই পোস্ট ঘিরেই ব্যাপক জল্পনা তৈরি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সেই পোস্টে লেখা হয়েছে, “বীরভূমে আমার নির্বাচন কেন্দ্রের মানুষের প্রতি- ২০২১ খুব ভালো কাটুক। সুস্থ থাকুন, সাবধানে থাকুন। এলাকার সঙ্গে আমার নিয়মিত নিবিড় যোগাযোগ। কিন্তু ইদানিং অনেকে আমাকে প্রশ্ন করছেন কেন আমাকে বহু কর্মসূচিতে দেখা যাচ্ছে না। আমি তাঁদের বলছি যে আমি সর্বত্র যেতে চাই। আপনাদের সঙ্গে থাকতে আমার ভালো লাগে। কিন্তু মনে হয় কেউ কেউ চায় না আমি আপনাদের কাছে যাই। বহু কর্মসূচির খবর আমাকে দেওয়া হয় না। না জানলে আমি যাব কী করে? এ নিয়ে আমারও মানসিক কষ্ট হয়। গত দশ বছরে আমি আমার বাড়ির থেকে বেশি সময় আপনাদের কাছে বা আপনাদের প্রতিনিধিত্ব করতে কাটিয়েছি, আপ্রাণ চেষ্টা করেছি কাজ করার, এটা শত্রুরাও স্বীকার করে। তাই এই নতুন বছরে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার চেষ্টা করছি যাতে আপনাদের সঙ্গে পুরোপুরি থাকতে পারি। আপনাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।”

আরও পড়ুন এবার মমতাকে গ্রেফতারের দাবি দিলীপের

এরপরই দাবি করা হয়েছে, “২০০৯ সাল থেকে আপনারা আমাকে সমর্থন করে লোকসভায় পাঠিয়েছেন। আশা করি ভবিষ্যতেও আপনাদের ভালোবাসা পাব। সাংসদ অনেক পরে, তার অনেক আগে থেকেই শুধু শতাব্দী রায় হিসেবেই বাংলার মানুষ আমাকে ভালোবেসে এসেছেন। আমিও আমার কর্তব্য পালনের চেষ্টা করে যাব। যদি কোনো সিদ্ধান্ত নিই আগামী ১৬ জানুয়ারি ২০২১ শনিবার দুপুর দুটোয় জানাব।” উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও নিজের ফেসবুক পেজে ঘোষণা করেছেন, ১৬ জানুয়ারি লাইভ করবেন। সেদিন তিনি কী বিশেষ বার্তা দেন সেইদিকে নজর তো থাকবেই, কিন্তু শতাব্দী রায়ের ফ্যান ক্লাবের পোস্ট ঘিরে শোরগোল পড়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে। যদিও সাংসদের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest State news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tmc mp satabdi roys fan clubs post sparks speculations