“সুপ্রিম কোর্ট হিন্দুদের অপমান করেছে”

ভাইয়াজি যোশীর সাফ কথা, "আমারা ভেবেছিলাম হিন্দু ভাবাবেগের কথা স্মরণে রেখে আদালত রামজন্মভূমি মামলার দ্রুত নিস্পত্তি করবে"। কিন্তু, আদালত তা না করে মামলাটি আরও পিছিয়ে দেওয়ায় আমরা ভীষণ কষ্ট পেয়েছি এবং 'হিন্দুরা এতে অপমানিত বোধ…

By: Updated: November 3, 2018, 7:00:57 AM

অযোধ্যা মামলার শুনানি পিছিয়ে দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট হিন্দুদের এবং তাঁদের ভাবাবেগকে ‘অপমান’ করেছে বলে মন্তব্য করলেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের (আরএসএস) সাধারণ সম্পাদক ভাইয়াজি যোশী। তিনি বলেন, “মন্দির নির্মাণের জন্য একটা আইনি অনুমোদন প্রয়োজন। তবে এ জন্য আদালতের রায়ের অপেক্ষায় অনেকটা সময় কেটে গিয়েছে। তাই মামলাটি ২৯ অক্টোবর শুনানির জন্য তালিকাভুক্ত হওয়ায় হিন্দুরা ভেবেছিলেন দীপাবলির আগেই হয়ত সুখবর আসবে…কিন্তু, আদালত সেদিন মামলাটি শুনতে রাজি হল না এবং শুনানি পিছিয়ে দিল…যখন জানতে চাওয়া হল, কবে এই মামলার শুনানি হবে, তখন বলা হল তাদের গুরুত্বের ক্রম (প্রায়োরিটি) আলাদা, সেখানে এই মামলা নেই…”। আর এতেই ক্ষুব্ধ আরএসএস। উল্লেখ্য, মামলাটি ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে ফের শোনা হবে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে মন্দির নির্মাণের জন্য মোদী সরকার অধ্যাদেশ (অর্ডিন্যান্স) জারি করবে কি না, সে প্রশ্নেই এখন উত্তাল গেরুয়া শিবির। আর এরমধ্যেই শুক্রবার বিক্ষোভ কর্মসূচির শপথ নেওয়ার মঞ্চ প্রস্তুত করল আরএসএস। তাদের দাবি, সুপ্রিম কোর্ট হিন্দু সম্প্রদায়ের ভাবাবেগের কথা মাথায় না রাখলে বিক্ষোভের পথে যেতে তারা বাধ্য হবেন। এ বিষয়ে থানেতে তিন দিনের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকও ডেকেছিল আরএসএস। শুক্রবারই সেই বৈঠক শেষে সংবাদমাধ্যমের সামনে সুপ্রিম সিদ্ধান্ত নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাধারণ সম্পাদক ভাইয়াজি যোশী।

আরও পড়ুন- অযোধ্যা নিয়ে ধৈর্য হারাচ্ছে হিন্দুরা: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং

ভাইয়াজি যোশীর সাফ কথা, “আমারা ভেবেছিলাম হিন্দু ভাবাবেগের কথা স্মরণে রেখে আদালত রামজন্মভূমি মামলার দ্রুত নিস্পত্তি করবে”। কিন্তু, আদালত তা না করে মামলাটি আরও পিছিয়ে দেওয়ায় আমরা ভীষণ কষ্ট পেয়েছি এবং ‘হিন্দুরা এতে অপমানিত বোধ করছে’। তাহলে, সরকার কেন অধ্যাদেশের পথে পা বাড়াচ্ছে না? এই প্রসঙ্গে ভাইয়াজি বলেন, “আমরা সরকারের উপর কোনও চাপ দিচ্ছি না…দেশের আইন ও সংবিধানকে আমরা শ্রদ্ধা করি। আর সে জন্যই এতটা বিলম্ব হচ্ছে…আমরা চাপ দেব না, কিন্তু জনমত গড়ে তুলছি”।

বিজেপি যখন কেন্দ্রে সরকার চালাচ্ছে তাহলে মন্দির নির্মাণে অধ্যাদেশ জারিতে সমস্যা কোথায়? এই প্রশ্নের উত্তরে ভাইজি বলছেন, “সুপ্রিম কোর্ট সিদ্ধান্ত না নেওয়া পর্যন্ত, এ বিষয়ে সরকারের পদক্ষেপ গ্রহণ করা কঠিন…তবে সব বিকল্পই যদি বন্ধ হয়ে যায়, সেক্ষেত্রে সরকারকে হয়ত এটাই বেছে নিতে হবে…কিন্তু, সরকার কী সিদ্ধান্ত নেবে, সেটি সম্পূর্ণ তাদের ব্যাপার”।

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Supreme court insulted hindus bhaiyyaji joshi

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং