বড় খবর

‘তোমার বাড়িতে ঢুকেও পদ্ম ফোটাব’, শুভেন্দু নিশানায় ‘ভাইপো’

‘এখনও বাসন্তী পুজো আসেনি। রাম নবমী হয়নি। এখন পদ্ম কুড়ি হয়ে রয়েছে। ফুটবে তো। রাম নবমীতে ফুটবে। আমার বাড়ির লোকেরা পদ্ম ফোটাবে।’

ডায়মন্ডহারবারে দলত্যাগী শুভেন্দুকে তাঁর বাড়িতেই পদ্ম ফোটানোর চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে এবার পাল্টা যুব তৃণমূল সভাপতিকে চ্যালেঞ্জ করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু। ব্যারাকপুরের দলীয় সভা থেকে তাঁর সাফ ঘোষণা, ‘তোমার বাড়িতে ঢুকেও পদ্ম ফোটাবো।’

গত রবিবার নিজের লোকসভা কেন্দ্র ডায়মন্ডহারবারে সভা থেকে একচেটিয়াভাবে শুভেন্দুকে নিশানা করেন অভিষেক। বিজেপি নেতাকে ‘উপসর্গহীন বেইমান’ বলে কটাক্ষ করেন তিনি। বলেন, ‘উনি বলছেন তৃণমূল করেছি বলতে লজ্জা লাগে। আরে তোমার বাবা-ভাই তো তৃণমূল করছে। তাঁদের ভাঙিয়ে নিয়ে যেতে পারলেন না। নিজের বাড়িতে পদ্ম ফোটাতে পারেন না, ওরা আবার নাকি বাংলায় পদ্ম ফোটাবে।’

যুব তৃণমূল সভাপতির এই মন্তব্যের জবাব এ দিন ব্যারাকপুরে দাঁড়িয়ে দেন শুভেন্দু অধিকারী। চড়া সুরে অভিষেকের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে তিনি বলেন, ‘মাননীয় ভাইপোর রাগ হয়েছে। এখনও বাসন্তী পুজো আসেনি। রাম নবমী হয়নি।  সবে তো এখন পদ্ম কুড়ি ফুটেছে। পদ্ম ফুটবে তো। রাম নবমীতে ফুটবে। আমার বাড়ির লোকেরা পদ্ম ফোটাবে। তোমার বাড়িতে ঢুকেও পদ্ম ফোটাবো। হরিশ চ্যাটার্জী স্ট্রিটেও পদ্ম ফুটবে।’

২১-য়ের বিধানসভা ভোটে বাংলায় বিজেপি ২০০-র বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসবে বলে অর্জুন গড় ব্যারাকপুরে দাঁড়িয়ে ফের একবার সুর চড়ান শুভেন্দু অধিকারী।

আরও পড়ুন- “টাকা দিয়ে এমএলএ কেনা যায়, তৃণমূলকে কেনা যায় না”, বিজেপিকে নিশানা মমতার

শুভেন্দু অধিকারী দল ছাড়লেও এখনও তৃণমূলেই রয়েছেন তাঁর বাবা তথা পূর্ব মেদিনীপুরে শাসক দলের সভাপতি, সাসংদ শিশির অধিকারী। তৃণমূলে রয়েছেন শুভেন্দুর ভাই দিব্যেন্দু অধিকারীও। তবে, পদ্ম শিবিরে বাড়ির মেজ ছেলের নাম লেখানোর পর থেকে দলীয় কর্মসূচিতে তাঁদের দেখা যায়নি। এমনকী কাঁথিতে তৃণমূলের শুভেন্দু বিরোধী সভাতেও ছিলেন না তাঁরা। ফলে ইতিমধ্যেই শিশির-দিব্যেন্দু অধিকারীদের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তার মাঝেই শুভেন্দু অধিকারীর ‘আমার বাড়ির লোকেরা পদ্ম ফোটাবে’ মন্তব্য যথেষ্ট ইঙ্গিতবাহী বলেই মনে করা হচ্ছে।

তাহলে কী এবার শুভেন্দুর পথেই শিশির অধিকারী ও দিব্যেন্দু? ব্যারাকপুরের বিজেপির সভার পর এই ইস্যুতে জোড়া-ফুল শিবিরের অন্দরেই জল্পনা তুঙ্গে উঠেছে।

টিটাগড় থেকে খড়দা পর্যন্ত রোড শো-তে অর্জুন সিং, বাবুল সুপ্রিয়ো, শুুভ্রাংশু রায়, শুভেন্দু অধইকারী ও সৌমিত্র খাঁ।

মেদিনীপুরে অমিত শাহের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দিয়েই ‘তালোবাজ ভাইপো হঠাও’-য়ের ডাক দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। জবাবে ডায়মন্ডহারবারে দাঁড়িয়ে সারদা-নারদা প্রসঙ্গে টেনে দলের প্রাক্তন নেতা-বিধায়ক ও মন্ত্রীকে ‘তোলাবাজ’ বলে তোপ দাগেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিন এই ইস্যুতে শুভেন্দু বলেন, ‘ভাইপোর রাগ হয়েছে। ‘সারদা-নারদা তুলে আমাকে তোলাবাজ বলছে। আমি বলছি এজেন্সির তদন্ত চলছে। দেখা যাক কে দোষী, কে নির্দোষ।’

টিটাগড় থেকে খড়দা পর্যন্ত মঙ্গলবার বিজেপির রোড শো-তে ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। শুভেন্দু ছাড়াও হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়ো, ব্যারাকপুর ও বিষ্ণুপুরের সাংসদ যথাক্রমে অর্জুন সিং ও সৌমিত্র খাঁ, বিধায়ক শুভ্রাশু রায়। রোড় শো শেষে হয় সভা। সেখান থেকেই শুভেন্দু অধিকারীর হুঙ্কার, ‘এবার আর পিসি-ভাইপোর সরকার থাকবে না।’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Suvendu adhikari slams abhishek banerjee from barrackpore

Next Story
ফের বিজেপির যোগের জল্পনা, চরম অস্বস্তিতে জিতেন্দ্র তিওয়ারি
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com