বড় খবর

হাফ-লাখ ভোটে নন্দীগ্রামে হারবেন মমতা, চ্যালেঞ্জ শুভেন্দুর

‘কী করেছেন নন্দীগ্রামের জন্য। যেসব পুলিশ অফিসার অভিযুক্ত তাঁরাই আজ প্রমোশন পেয়েছেন। নন্দীগ্রামের মানুষ তৃণমূলকে ক্ষমা করবে না।’

তৃণমূলের খাসতালুক দক্ষিণ কলকাতায় টলিগঞ্জ থেকে রাসবিহারী পর্যন্ত মিছিল করলেন শুভেন্দু অধিকারী। ছিলেন দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সাংসদ দেবশ্রী চোধুরীরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন তিনি নন্দীগ্রাম থেকে এবার ভোটে লড়বেন। তৃণমূল নেত্রীর মাস্টারস্ট্রোকের পর এদিন নন্দীগ্রামের কথা তুলে মমতাকে কড়া নিশানা করেন শুভেন্দু।

কী বললেন শুভেন্দু?

* ‘মুখ্যমন্ত্রী এত বুদ্ধিমান, ২৯৪টি আসনে নিজেই লড়বেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যাকে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর। ২১ বছর দলটা করেছি, এখন প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে। দেড়জনের দল।’

* ‘আগামী নির্বাচনে এই প্রাইভেট লিমিটেডকে তুলে ফেলতে হবে। আমাদের সরকার এসে সোনার বাংলা গড়বে।’

* ‘আপনি বাংলার যেখানে খুশি দাঁড়াতেই পারেন, ওটা প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি। সব হয়। ভারতীয় জনতা পার্টিতে এসব হবে না। বিজেপি শৃঙ্খলিত পার্টি। যেকোনও মঞ্চে দাঁড়িয়েই মানীয়া কোম্পানির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে পারেন। কিন্তু আমাদের দলে ওইসব হবে না।’

* ‘নন্দীগ্রামে দাঁড়ান। জেনে রাখুন, পদ্ম ফুল নিয়ে দল আমাকে দাঁড় করাক বা অন্য কাউকে, হাফ লাখ ভোটে মাননীয়াকে হারাতে না পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।’

* ‘মাননীয়া ভোট এলে নন্দীগ্রামে যান। তারপরে আর নন্দীগ্রামের কথা মনে পড়ে না। ২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর শেষবার মাননীয় নন্দীগ্রাম গিয়েছিলেন।আবার ঠিক ৫ বছর পর নন্দীগ্রামের কথা মনে পড়েছে। যদি জিজ্ঞাসা করি নন্দীগ্রামের জন্য কী করেছেন উত্তর দিতে পারবেন?’

* ‘সিঙ্গুর থেকে শিল্প তাড়িয়ে রাজ্যের সর্বনাশ করেছে। কাল খেজুরির হেড়িয়ায় পাল্টা সভা করব। আজ ৭ জেলা থেকে ৩০ হাজার লোক এনেছিল। আজ ওই সভায় দাঁড়িয়ে বড়-বড় কথা বলেছে। আপনাকে নন্দীগ্রামের মানুষ ক্ষমা করবে না।’

* ‘সিঙ্গুরের কথা অষ্টম শ্রেণির পাঠ্য পুস্তকে রয়েছে। কিন্তু, নন্দীগ্রামের নাম কোথাউ এক লাইনও লেখা নেই।’

* ‘নন্দীগ্রামে গুলি চালানোর জন্য অভিযুক্ত পুলিশ অফিসার অরুণ গুপ্ত। তাঁকে অবসরের পরও এক্সটেনশন দেওয়া হয়েছে। অধিকারী পাড়ায় গুলি চালিয়েছিলেন পুলিশ অফিসার সত্যজিত বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁকে টেট কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত শিক্ষামন্ত্রী ওদের দলে ঠাঁই দিদিয়েছেন। এর জবাব নন্দীগ্রাম দেবেই দেবে।’

* ‘এর পরের ব়্যালিটা আমি আর দিলীপদা করব গড়িয়া তেকে হাজরা মোড় পর্যন্ত। পুলিশকে চিঠি দিয়ে দেবেন। অনুমতি না নিলেও সভা হবে।’

নন্দীগ্রামে নিজের নাম তৃণমূল প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করে দুপুরে মাস্টারস্ট্রোক দিয়েছিলেন মমতা। সন্ধ্যা গড়াতেই পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন শুভেন্দু। মাঘের শীতেই বঙ্গ রাজনীতিতে ভোটের উত্তাপ যেন কয়েকগুণ বেড়ে গেল।

আরও পড়ুন- মাস্টারস্ট্রোক মমতার, এবার ভোটে নন্দীগ্রামের প্রার্থী তৃণমূল সুপ্রিমো

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Suvendu s challenge mamata will lose in nandigram by half lakh votes

Next Story
দঃ কলকাতায় উত্তেজনা, শুভেন্দুর মিছিল লক্ষ্য করে ইট ছোড়ার অভিযোগ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com