গ্রেফতার তৃণমূল নেতৃত্ব, ‘পারলে আটকান’, হুঙ্কার দিয়ে ত্রিপুরায় অভিষেক

আজ সকালে দেবাংশু, জয়া, সুদীপ সহ ১১ তৃণমূল কর্মীকে মহামারি আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে।

tmc leaders arrested in tripura abhishek banerejee in tripura today
উত্তপ্ত ত্রিপুরায় রাজনীতি।

তৃণমূল এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বে না।” ত্রিপুরায় দলের যুব নেতৃত্বের উপর আক্রমণের পর বিপ্লব দেব সরকারকে এইভাবেই হুঁশিয়ার করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যাকে কেন্দ্র করে তোলপার ত্রিপুরার রাজনীতি। এর কয়েক ঘন্টার মধ্যে শনিবার রাতে ফের টুইট করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। বিজেপি সরকারকে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে তাঁর ঘোষণা, রবিবার অর্থাৎ আজই উত্তর পূর্বের এই ছোট্ট রাজ্যে যাবেন তিনি। সেখানেই বিপ্লব দেব সরকারকে নিশানা করে তাঁর ঘোষণা, “যদি পারো তো আমাকে আটকাও।” ইতিমধ্যেই আগরতলার পৌঁছে গিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে, গতকাল আমবাসায় তৃণমূলের তিন নেতার ওপর হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়। বাংলার শাসক দলের দাবি, রাতভর তিন তৃণমূল নেতা সুদীপ রাহা, দেবাংশু ভট্টাচার্য ও জয়া দত্তকে থানায় বসিয়ে রাখা হয়েছিল। আর আজ সকালে এই তিন নেতা সহ মোট ১১ জন তৃণমূল কর্মীকে মহামারি আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে। রবিবার সকালে খোয়াইতে তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বকে গ্রেফতার করেছে ত্রিপুরা পুলিশ। টুইট করে এ কথা জানিয়েছেনতৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ মতো আজ সকালেই ত্রিপুরার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন কুণাল ঘোষ, ব্রাত্য বসুরা। কুণাল ঘোষ। বলেছেন, “পরিস্থিতি খুবই খারাপ। আমাদের সহকর্মীরা কাল সারারাত অবরুদ্ধ ছিল। গুন্ডারা তাদের ফেরার রাস্তা অবরোধ করে রেখেছিল। আমাদের একাধিক পার্টি অফিস ভাঙা হয়েছে, ফ্লেক্স ব্যানার ছেড়া হয়েছে। আমরা যে হোটেলগুলোতে থাকি সেখানে গিয়ে হুমকি দেওয়া হয়েছে যাতে আমাদেরকে হোটেলে থাকতে না দেওয়া হয়।’

তৃণমূল সূত্রে খবর, দলীয় কার্যক্রম সেরে সন্ধ্যায় ফেরার পথে ফের দুষ্কৃতীদের হামলার শিকার হয়েছেন দলীয় নেতা-কর্মীরা। এরপরই নিরাপত্তার দাবিতে খোয়াই পুলিশ লাইনে অবস্থান শুরু করে দেবাংশু, জয়া, সুদীপ সহ তৃণমূল কর্মীরা। রাতভর সেখানেই ছিলেন তাঁরা। রবিবার সকালে তাঁদের গ্রেফতার করা হয়।

ইতিমধ্যেই ধৃত ও আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে ত্রিপুরা পৌঁছে গিয়েছেন কুণাল ব্রাত্য, দোলা সেনরা। একটু পরেই পৌঁছবেন অভিষেকও। অর্থাৎ আজ পের একবার উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে ত্রিপুরার মাটি। শনিবার রাতে বিজেপির রাজ্য সরকারকে কার্যক চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছিলেন, “বিজেপি গুন্ডাদের দ্বারা বর্বরোচিত আক্রমণের শিকার তৃণমূল কর্মীদের পাশে দাঁড়েতে রবিবার ত্রিপুরা যাচ্ছি। শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত লড়বো- এটাই আমার প্রতিশ্রুতি। দি পারো তো আমাকে আটকাও।”

সূত্রের খবর, বিরোধী দলের প্রতি বিজেপির আক্রমণ ও প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে এদিন রাজ্যপালের কাছেও যেতে পারে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল।

গত সোমবার ত্রুপুরেশ্বরী মন্দিরে যাওয়ার পথে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে লাঠির ঘা পড়েছিল বলে অভিযোগ করেছিলেন তিনি। পরে ত্রিপুরা থেকে বিজেপিকে উৎখাতের ডাক দেন। জানিয়েছিলেন বাংলা জয়ের পর তৃণমূলের পাখির চোখ উত্তর পূর্বের এই ছোট্ট রাজ্য। প্রয়োজনে তিনি বারে বারে এই রাজ্যে আসবেন। দলীয় নেতৃত্ব নিগৃহীত হওয়ার পর সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে চলেছেন তিনি। একই সঙ্গে অভিষেকর বার্তা, সংগঠনে ছোট হলেও ত্রিপুরার রাজনীতিতে বিজেপির বিরুদ্ধে সমীহ আদায় করছে জোড়া-ফুল বাহিনী।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc leaders arrested in tripura abhishek banerejee in tripura today

Next Story
কেন্দ্রের সংশোধিত বিদ্যুৎ বিলে বাড়বে দাম! বিহিত চেয়ে মোদীকে চিঠি মমতারmamata banerjee, modi, mamata
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com