বড় খবর

‘মৃতদের পরিবারের পাশে আছি’, লখিমপুর গিয়ে বার্তা TMC সাংসদদের

Lakhimpur Case: প্রতিনিধি দলের সদস্য ছিলেন সাংসদ সুস্মিতা দেব, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, দোলা সেন, আবির বিশ্বাস এবং প্রতিমা মণ্ডল।

Lakhimpur TMC
স্বজনহারা এক পরিবারের সঙ্গে তৃণমূলের দুই সাংসদ। ছবি: ট্যুইটার/তৃণমূল

Lakhimpur Case: লখিমপুর খেরি-কাণ্ডে মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। মঙ্গলবার দলের পাঁচ সাংসদের এক প্রতিনিধি দল উত্তর প্রদেশের এই জনপথে যান। সেই প্রতিনিধি দলের সদস্য ছিলেন সাংসদ সুস্মিতা দেব, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, দোলা সেন, আবির বিশ্বাস এবং প্রতিমা মণ্ডল।

তাঁরা মৃতদের পরিবারের পাশে থাকার বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি ঘটনার বিস্তৃত জানতে চেষ্টা করেন। একজনের মরদেহে শ্রদ্ধাও জানান সাংসদরা। এই ঘটনার নিন্দা করে তৃণমূলের মন্তব্য, ‘বিজেপির শাসনকালে কৃষকদের দুর্গতির সীমা নেই। ওরা নৃশংস ভাবে কৃষকদের অত্যাচার এবং হত্যা করছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে কৃষকদের এই কঠিন সময়ে আমরা তাঁদের পাশে আছি।‘ মৃতদের পরিবারের সঙ্গে তৃণমূল সাংসদরা–

এদিকে, লখিমপুর যাওয়ার পথে বাধার মুখে পড়েছেন তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। সোশাল মাধ্যমে এই অভিযোগে তুলে শাসক দল কটাক্ষ, ‘যত দিন যাচ্ছে উত্তর প্রদেশের বিজেপি সরকারের আচরণে লজ্জায় মাথা নত হয়ে যাচ্ছে। কী করে আপনারা সাংসদদের শোকার্ত পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতে বাধা দিতে পারেন। এই আচরণ ন্যক্কারজনক এবং অন্যায়। এই আচরণের জন্য নরেন্দ্র মোদি আপনার লজ্জা হওয়া উচিত।‘   

এক মৃতদেহে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারের। ছবি: ট্যুইটার/তৃণমূল কংগ্রেস

এদিকে, লখিমপুর খেরির সেই নৃশংসা ভিডিও প্রকাশ্যে এনেছে কংগ্রেস। এবার সেই ভিডিও দেখিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ করলেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। প্রধানমন্ত্রীর লখনউ সফরের আগে মঙ্গলবার একটি ভিডিও টুইট করেছেন কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক। সেই ভিডিও বার্তায় তিনি মোদীকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন লখিমপুর কাণ্ড নিয়ে।

সোমবারই গৃহবন্দি করা হয় প্রিয়াঙ্কাকে। তাঁকে লখিমপুরে যেতে দেয়নি উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন। এদিন লখিমপুরের সেই ভয়াবহ কাণ্ডের ভিডিও দেখিয়ে তিনি মোদীকে প্রশ্ন করেন, “প্রধানমন্ত্রীজি আপনি কি এই ভিডিওটা দেখেছেন?” ক্যামেরার সামনে তিনি নিজের মোবাইল ফোনটি ধরেন। তাতে দেখা যাচ্ছিল, কীভাবে একটি এসইউভি গাড়ি কিছু মানুষকে পিষে দিচ্ছে। তিনি আরও প্রশ্ন করেছেন, “এখনও কেন এই মানুষটিকে গ্রেফতার করা গেল না! আমাদের মতো নেতা-নেত্রীকে লখিমপুর খেরিতে যেতে আটকানো হল। কোনও এফআইআর ছাড়া গৃহবন্দি করা হল। তাহলে কেন এই লোকটা এখনও ছাড়া রয়েছে, আমি জানতে চাই।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc mps met those bereaved families who recently lost their dear one in lakhimpur up national

Next Story
লখিমপুর কাণ্ড: গৃহবন্দি করার ২৪ ঘণ্টা পর গ্রেফতার প্রিয়াঙ্কা গান্ধিLakhimpur Kheri Violence, Priyanka Gandhi
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com