বড় খবর

‘‘ত্রিপুরাবাসীকে নতুন রাজনৈতিক স্বাধীনতা দেবে তৃণমূল’’, আগরতলায় বললেন শান্তনু সেন

শুক্রবারই তৃণমূলের আট সাংসদ পৌঁছেছেন ত্রিপুরায়৷ আগামী রবিবার তৃণমূলের উদ্যোগে ত্রিপুরায় স্বাধীনতা দিবস পালন করা হবে৷

ত্রিপুরার মানুষকে নতুন রাজনৈতিক ‘স্বাধীনতা’ এনে দেবে তৃণমূল৷ শুক্রবার আগরতলায় সাংবাদিক বৈঠক করে এমনই বলেছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেন৷ আগামী ১৫ অগাস্ট ত্রিপুরায় তৃণমূলের উদ্যোগে স্বাধীনতা দিবস পালন করা হবে৷ রাজ্যবাসীকে উন্নয়নের ক্ষেত্রে স্বাধীনতা এনে দিতে তৃণমূল অঙ্গীকারবদ্ধ বলেও এদিন জানিয়েছেন শান্তনু সেন৷

তৃতীয়বারের জন্য বাংলায় বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই পড়শি রাজ্য ত্রিপুরায় দলের সংগঠন চাঙ্গা করতে মরিয়া তৃণমূল৷ পালা করে ত্রিপুরায় যাচ্ছেন তৃণমূলের নেতারা৷ শুক্রবার ফের ত্রিপুরায় পৌঁছেছেন তৃণমূলের আট সাংসদ৷ দোলা সেন, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, প্রতিমা মণ্ডল, আবীররঞ্জন বিশ্বাস-সহ আট সাংসদ ত্রিপুরায় গিয়েছেন৷ এছাড়াও শান্তনু সেন, মলয় ঘটকরাও রয়েছেন ত্রিপুরাতেই৷ এদিন আগরতলায় সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন বলেন, ‘‘আগামী দিনে এখানে তৃণমূলের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। ত্রিপুরার মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন৷ ত্রিপুরাবাসীকে এক নতুন রাজনৈতিক স্বাধীনতা দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ হবে তৃণমূল৷’’

দিন কয়েক আগেই ত্রিপুরায় দলের কর্মসূচিতে যোগ দিতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন যুব তৃণমূলের নেতারা৷ যা নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হয়েছে৷ দলের নেতাদের উপর হামলার খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ত্রিপুরায় এসেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও৷ ত্রিপুরায় দলের নেতাদের উপর হামলা নিয়ে বিপ্লব দেবের সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছেন অভিষেক৷

আরও পড়ুন- ফের মুকুলের ডজ, রাজনীতি গুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা ‘চাণক্য’র!

ত্রিপুরায় তৃণমূল মাথা তুলতেই একের পর এক হামলা, হুঁশিয়ারির অভিযোগ সামনে আসছে৷ পড়শি রাজ্যে দলের নেতা-কর্মীদের পাশে থাকতে সচেষ্ট তৃণমূলের প্রথম সারির নেতারা৷ বাংলা থেকে পালা করে ত্রিপুরা যাচ্ছেন জোড়াফুল শিবিরের নেতারা৷ কয়েকদিন ধরেই ত্রিপুরায় তৃণমূলের একাধিক নেতা, কর্মীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠছে৷ এমনকী পুলিশের একাংশের বিরুদ্ধেও বিজেপির অঙ্গুলিহেলনে চলে তৃণমূল কর্মীদের শাসানির অভিযোগ উঠেছে৷ ইতিমধ্যেই ত্রিপুরায় ‘আক্রান্ত’ দলীয় নেতা-কর্মীদের বাড়িতে গিয়ে তাঁদের সঙ্গে দেখা করেছেন তৃণমূলের বঙ্গ-নেতারা৷ বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তাঁদের পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন তাঁরা৷

এদিকে, শুক্রবার আগরতলায় পুলিশের সদর দফতরেও গিয়েছিলেন তৃণমূলের নেতারা৷ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূল নেতা-কর্মীদের বাড়িতে হামলা, ভয় দেখানোর অভিযোগ উঠেছে৷ সেই সব অভিযোগ খতিয়ে দেখে পুলিশকে উপযুক্ত পদক্ষেপ করতেও আবেদন জানিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব৷ আগামী ১৬ অগাস্ট পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি ত্রিপুরাতেও ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করবে তৃণমূল৷ ইতিমধ্যেই দলের স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে সেব্যাপারে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন তৃণমূলের নেতারা৷

২০২৩-এ ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচন৷ সেই নির্বাচনকেই পাখির চোখ করে এগোচ্ছে তৃণমূল৷ ত্রিপুরায় দলের সংগঠন গুছিয়ে নিতে তাই বারবার আসছেন তৃণমূলের নেতারা৷ গত কয়েকদিন ধরেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সাংগঠনিক বৈঠক করছেন তৃণমূলের নেতারা৷ শুক্রবার ত্রিপুরা পৌঁছেও সেই প্রক্রিয়া জারি রয়েছে৷ ইতিমধ্যেই আগরতলায় দলের নেতা-কর্মীদের নিয়ে জরুরি বৈঠক সেরেছেন শান্তনু সেন, মলয় ঘটকরা৷

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc will give tripura a new political freedom says santanu sen

Next Story
‘‘নিরপেক্ষ প্ল্যাটফর্ম নয়, পক্ষপাতদুষ্ট টুইটার’’, সরব রাহুলBJP, RSS attacking culture & harmony of Jammu, says Cong Leader Rahul Gandhi
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com