বড় খবর


‘অন্নদাতাদের দেশদ্রোহী বলা আমাদের সংস্কৃতি নয়’, কেন্দ্রকে দেগে কৃষকদের পাশে উদ্ধব

“বিজেপি এর আগে বলেছিল মহারাষ্ট্রে অঘোষিত এমারজেন্সি চলছে। তাই যদি হয় তাহলে এই মুহুর্তে দেশে ঘোষিত জরুরিকালীন অবস্থা।

‘তুঘলকি স্টাইল’-এ দেশে সরকার চলছে, রবিবার কৃষক আন্দোলন নিয়ে কেন্দ্রীয় পদক্ষেপের বিরুদ্ধে এমনভাবেই তোপ দাগলেন শিব সেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, “দেশের অন্নদাতাদের দেশদ্রোহী কিংবা সন্ত্রাসবাদী বলা আমাদের সংস্কৃতি নয়।”

সংবাদমাধ্যমকে বালসাহেব ঠাকরে-পুত্র বলেন, “বিজেপি এর আগে বলেছিল মহারাষ্ট্রে অঘোষিত এমারজেন্সি চলছে। তাই যদি হয় তাহলে এই মুহুর্তে দেশে ঘোষিত জরুরিকালীন অবস্থা। কৃষকরা তাঁদের নায্য দাবিতে প্রতিবাদ করছেন। কোনও সদর্থক আলোচনা না করে দেশের সরকার কৃষকদের উপর এই ঠান্ডার মধ্যে জল কামান দাগা হল। এই সরকার কোন দৃষ্টিতে এই ঘটনাকে দেখছে তা পরিষ্কার।”

আরও পড়ুন, দেশে অপুষ্টিতে ভুগছে শিশুরা, চার বছরে বাংলার পরিস্থিতিও খারাপ

উল্লেখ্য, সোমবার থেকে মহারাষ্ট্র বিধানসভার দু’দিনের শীতকালীন অধিবেশন শুরু হয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলন থেকেই উদ্ধব বলেন, “কেন্দ্র পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ ও চিনি নিয়ে আসছে। পাকিস্তান থেকে এরপর আবার কৃষকদেরও নিয়ে আসবে না তো সরকার? যেভাবে এই দেশের সরকার তুঘলকি শাসন চালাচ্ছে, দেশের মানুষ মেনে নেবে না।”

মোদী সরকারকে বিঁধে উদ্ধব বলেন, “কৃষকরা যদি মনে করেন যে এই আইনগুলি তাদের স্বার্থে নয়, আপনি কি কেবল তাদের দৃষ্টিভঙ্গির সাথে একমত না হওয়ার কারণে তাদের জেলে ভরবেন? কেন্দ্র এভাবে আচরণ করছে বলেই মনে হচ্ছে। কেউ যদি কৃষক ও শ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত দাবি আদায়ের পক্ষে কথা বলেন, তবে তাদেরকে দেশবিরোধী হিসাবে চিহ্নিত করা হয়।”

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: To call food providers anti national is not our culture uddhav thackray roard on center over farmers protest

Next Story
‘শূদ্রদের শূদ্র বললে খারাপ মনে করেন কেন?’ ফের বিতর্কিত মন্তব্য প্রজ্ঞা ঠাকুরের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com