scorecardresearch

বড় খবর

বুধবার অভিষেকের পদযাত্রার অনুমতি দিল না ত্রিপুরা পুলিশ! ‘কর্মসূচি হবেই’, ঘোষণা কুণালের

Abhishek Banerjee at Tripura: তৃণমূল সূত্রে খবর, পুলিশ অনুমতি না দিলেও, বুধবারের বদলে বৃহস্পতিবার হবে এই পদযাত্রা।

abhishek banerjee wants elections to stop during corona
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

Abhishek Banerjee at Tripura: ১৫ সেপ্টেম্বর তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রস্তাবিত পদযাত্রার অনুমতি দিল না ত্রিপুরা পুলিশ। সোমবার দুপুরে আগরতলায় সাংবাদিক বৈঠক করে এই খবর জানান টিএমসি নেতা কুণাল ঘোষ। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সদ্য কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া সুস্মিতা দেবও। তৃণমূল সূত্রে খবর, পুলিশ অনুমতি না দিলেও, বুধবারের বদলে বৃহস্পতিবার হবে এই পদযাত্রা।

জানা গিয়েছে, তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক প্রস্তাবিত রুটে অন্য একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি রয়েছে। তাই বাতিল করা হয়েছে এই পদযাত্রা। যদিও ত্রিপুরা পুলিশের এই সিদ্ধান্তের পিছনে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব এবং রাজ্য বিজেপির ইন্ধন দেখছে বাংলার শাসক দল। যদিও বিজেপি, তৃণমূলের এই কর্মসূচিকে পাত্তা দিতে নারাজ। তাদের দাবি, ‘ত্রিপুরায় তৃণমূলের কোনও সংগঠন নেই। অসম, বাংলা থেকে বহিরাগত নিয়ে এসে ত্রিপুরাকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে।  তবে, এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের অভিযোগ, ‘আজকের ঘটনা থেকে প্রমাণ বিজেপি ত্রিপুরায় তৃণমূলের উত্থানকে ভয় পেয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বরের পদযাত্রা ঘিরে ত্রিপুরাবাসীর মধ্যে একটা উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। সেটা দৃশ্যমান হতেই বিজেপি চক্রান্ত করে এই পদযাত্রা আটকাতে উঠেপড়ে লেগেছে। পাশাপাশি পুলিশ-প্রশাসনকে ব্যবহার করে পদযাত্রার অনুমতি খারিজ করেছে।‘

ত্রিপুরা পুলিশকে আক্রমণের রাস্তায় হেঁটে কুণাল বলেন, ‘যে কারণ দেখিয়ে পদযাত্রার অনুমতি খারিজ করা হয়েছে, সেটা হাস্যকর। আমাদের লেখা চিঠিতে বলা হয়েছে, ইতিমধ্যে আগরতলায় পদযাত্রার জন্য অন্য একটি দলকে একই দিনে এবং সময়ে অনুমতি দেওয়া হয়েছে।‘  

তাঁর দাবি, ত্রিপুরা পুলিশের এই চিঠি স্ব-বিরোধী। কুণাল ঘোষের যুক্তি, ‘পদযাত্রার যাত্রাপথ নিয়ে স্ব-বিরোধিতায় নেমেছে ত্রিপুরা পুলিশ। তারা গোটা পদযাত্রার জন্য পুলিশ নির্ধারিত রুটে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু পুলিশ বলছে তৃণমূল নির্ধারিত রুটে অনুমতি চাওয়া হয়েছে।‘ ঠিক হয়েছিল আগরতলার রবীন্দ্র ভবন থেকে চৌমোহনী পর্যন্ত হবে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই পদযাত্রা। সম্প্রতি তৃণমূল মুখপাত্র এবং দলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ ট্যুইট করে এই কর্মসূচি প্রকাশ্যে এনেছিলেন। তিনি লিখেছিলেন, ‘বিজেপির সন্ত্রাস, অপশাসন, প্রতিশ্রুতিভঙ্গের অভিযোগে এবং ত্রিপুরার প্রকৃত উন্নয়নের দাবিকে সামনে রেখে এই পদযাত্রা করবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে ২০২৩-এর ত্রিপুরার বিধানসভা ভোটকে পাখির চোখ করে এগোচ্ছে তৃণমূল। ত্রিপুরা গিয়ে ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। বিজেপির নেতৃত্বে আগরতলায় তাঁর গাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি ইডির ডাকে সাড়া দিতে দিল্লি গিয়েছিলেন অভিষেক। সেই সময় বিজেপির বিরুদ্ধে আরও বড়সড় আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে আসেন তৃণমূল সাংসদ। যে রাজ্যেই বিজেপির সরকার, সেখানেই গণতন্ত্র ফেরাতে তৃণমূল যাবে। এমন হুঙ্কার ছেড়েছিলেন তিনি।তারপর কলকাতা ফিরতেই ঘোষিত হয় তাঁর ত্রিপুরা সূচি। সেই সূচিতে ‘না’ বিপ্লব দেব সরকারের পুলিশের।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tripura police denies permission of tmcs proposed protest rally in agartala national