বড় খবর


একই ইস্যুতে দুই মন্ত্রীর দুই মিছিল এক শহরে

এক ইস্যুতে তৃণমূলের দুই মন্ত্রীর দুই মিছিল ফের নানা প্রশ্ন উঁকি মারছে রাজনৈতিক মহলে। 

কেন্দ্রীয় কৃষি বিলের প্রতিবাদে রাজ্যের দুই হেভিওয়েট মন্ত্রীর নেতৃত্বে জোড়া মিছিল হাওড়ায়। একদিকে মিছিল করলেন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর নেতৃত্বে রবিবার প্রথম মিছিলটি হয় হাওড়ার দাশনগর থেকে। মিছিল শেষ হয় হাওড়া ময়দানে। মিছিলে ছিলেন দলের জেলা সদর সভাপতি ক্রীড়ামন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লাও। রবিবার বিকেলে অন্য মিছিলটি হয় দলের হাওড়া সদর চেয়ারম্যান সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায়ের নেতৃত্বে। মিছিল হয় শিবপুর মন্দিরতলা থেকে মল্লিকফটক সংশোধনাগার পর্যন্ত। একই শহরে একই ইস্যুতে তৃণমূলের দুই মন্ত্রীর দুই মিছিল হওয়ায় রীতিমত চর্চা চলে দলের অন্দরে।

মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “কেন্দ্রীয় বঞ্চনার প্রতিবাদে মিছিল। রাজ্যকে পাওনা টাকা দিচ্ছে না কেন্দ্রীয় সরকার। এরই প্রতিবাদে এই মিছিল। পাশাপাশি ২০২১-এ নির্বাচনের প্রস্তুতিও এটি। তার কর্মসূচি শুরু হল এদিন। এই মিছিলে অসংখ্য মানুষ একত্রিত হয়েছেন। এটাতো কিছুই নয়। এটা ট্রেলার। যদিও জেলার নামে এই মিছিল। কিন্তু শিবপুর আর মধ্য হাওড়ার কয়েকটি ওয়ার্ডের মানুষ অংশগ্রহণ করেছেন এই মিছিলে।”

এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন হাওড়া জেলা সদর তৃণমূল সভাপতি তথা রাজ্যের ক্রীড়া দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী লক্ষ্মী রতন শুক্লাও। তিনি জানান, হাওড়া জেলার দলের দায়িত্ব হাওড়া জেলার মানুষের উপর আছে। তাঁদের সঙ্গে আমরা আছি। এই মিছিলে পা মেলান হাওড়া পুরসভার প্রাক্তন মেয়র পারিষদ বিভাস হাজরা সহ একাধিক নেতানেত্রীরা।

অন্যদিকে সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায় বলেন, “কৃষক স্বার্থবিরোধী বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে এই মিছিল। কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের সংজ্ঞাই পাল্টে দিয়েছে। এই কৃষি বিলের বিরুদ্ধে তাঁদের আন্দোলন চলবে।” মিছিলটি হাজারহাত কালিতলা হয়ে কাসুন্দিয়া শিবতলা, নেতাজি সুভাষ রোড, মল্লিক ফটক হয়ে হাওড়া সংশোধনাগারের সামনে গিয়ে শেষ হয়। একই ইস্যুতে শহরে দুটি মিছিল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “এই কর্মসূচি গত ১৯ সেপ্টেম্বর স্থির করা হয়েছে। কৃষি বিল অর্ডিন্যান্স করার সঙ্গে সঙ্গে এই মিছিল করার জন্য মধ্য হাওড়া সভাপতিকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। আজ সেই মিছিল হয়েছে। এটা মধ্য হাওড়ার মিছিল।”

এর আগে দুর্নীতির ইস্যুতে রাজ্যের দুই মন্ত্রী অরূপ রায় ও রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে সংঘাত হয়েছে। দলের নেতা-কর্মীদের সাসপেন্ড করা নিয়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি তোপ দেগেছিলেন অরূপ রায়ের বিরুদ্ধ। তারপর তৃণমূলের নতুন কমিটিতে সভাপতি হিসাবে লক্ষ্মীরতন শুক্লার নাম ঘোষণা করা হয়। এক ইস্যুতে তৃণমূলের দুই মন্ত্রীর দুই মিছিল ফের নানা প্রশ্ন উঁকি মারছে রাজনৈতিক মহলে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Two tmc rally in howrah on one issue

Next Story
তিনবারের সিপিএম বিধায়ক যোগ দিলেন বিজেপিতেbjp bankura joining cover
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com