বড় খবর

বিজেপি বিধায়ক এবং সংঘের সঙ্গে মন কষাকষি! পদত্যাগ করলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী

রাজ ভবন সূত্রে খবর, যতক্ষণ না নতুন মুখ্যমন্ত্রী শপথ নিচ্ছেন, ততক্ষণ কার্যভার সামলাবেন রাওয়াত।

টিএস রাওয়াত। ফাইল ছবি

বিধায়ক অসন্তোষ এবং সঙ্ঘের সঙ্গে মতবিরোধে পদ খোয়ালেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর। মঙ্গলবার বিকেলে রাজ্যপাল বেবি রানী মৌর্যর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত।  মুখ্যমন্ত্রী পদ ছাড়ার পর সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘সময় এসেছে ব্যাটন অন্য হাতে তুলে দেওয়ার। আমি উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে পদত্যাগপত্র রাজ্যপালের কাছে জমা দিলাম। বুধবার সকাল ১০টায় পরিষদীয় দলের বৈঠকে পরবর্তী নেতা নির্বাচন করা হবে।‘  রাজ ভবন সূত্রে খবর, যতক্ষণ না নতুন মুখ্যমন্ত্রী শপথ নিচ্ছেন, ততক্ষণ কার্যভার সামলাবেন রাওয়াত।

এদিকে সুত্রের খবর, বিজেপি বিধায়করা বহুদিন ধরেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে রাওয়াতের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে। তাঁর প্রশাসন পরিচালনা আগামি ভোটে বিজেপির বিপক্ষে যেতে পারে। এমনটাই অভিযোগ রাওয়াত বিরোধী শিবিরের। পাশাপাশি আরএসএস-র একটা অংশ তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ। বহুদিন ধরে মন্ত্রিসভার শূন্য পদ পূরণে ক্যাবিনেট সম্প্রসারণ করছেন না মুখ্যমন্ত্রী। এই অভিযোগেই সরব সংঘ কর্তারা। আর এই দুয়ের গ্যাঁড়াকলে পড়ে পদ হারালেন ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত। এমনটাই বিজেপি সূত্রে খবর।

জানা গিয়েছে, সোমবার দিল্লি গিয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে বৈঠক করেছেন রাওয়াত। পৃথকভাবে বৈঠক করেন দলের সাধারণ সচিব (সংগঠন) বিএল সন্তোষ এবং উত্তরাখণ্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপি নেতা দুষ্মন্ত গৌতমের সঙ্গে।

এর আগে দিন দশেক আগে দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দেহরাদুনে সাংগঠনিক বৈঠক করেন। সেখানেই দলের সদস্য-সমর্থকদের ক্ষোভ-বিক্ষোভের প্রসঙ্গ উত্থাপন করতে বলেন।

সেই ক্ষোভ-বিক্ষোভের প্রসঙ্গে আলোচনা করা হয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এবং জেপি নাড্ডার সঙ্গে। সঙ্গে যোগ দেয় রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের চাপ। তাই ভোটের আগে বিতর্ক জিইয়ে না রেখে নতুন মুখকে মুখ্যমন্ত্রী করতেই, রাওয়াতকে পদত্যাগ করানো হয়েছে। এমনটাই গেরুয়া শিবির সূত্রে খবর।

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Uttarakhanda cm resigns on tuesday and said time has come to pass the batton national

Next Story
‘মুকুলদার অনুরোধেই বিজেপিতে’, তৃণমূলের মূল ভাঙছেন এই প্রাক্তনী?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com