বড় খবর

বার্সা ম্যাচ হচ্ছেই, কিন্তু আসছেন কারা?

‘লেজেন্ড’ বলে যাঁদের নামের তালিকা দেওয়া হয়েছে, তাঁরা বার্সার জার্সিতে ক’টি ম্যাচ খেলেছেন সেটা হাতে গুনে বলা দেওয়া যাবে। ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনাল্ডিনহো সেখানে দিবাস্বপ্নের মতোই।

অনলাইন ইতিমধ্যে ১৫,০০০ টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে। আর ঠিক হাতে গুনে দু’সপ্তাহ পর যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে ঐতিহাসিক ম্যাচে মুখোমুখি বার্সেলোনার ও মোহনবাগানের প্রাক্তন ফুটবলাররা। যে ম্যাচ হওয়া নিয়ে সম্প্রতি সংশয়ের কালো মেঘ দেখা গিয়েছিল।

ফুটবল পাগল শহর সিঁদুরে মেঘ দেখলে ডরায়। অতীতেও কিংবদন্তিদের কলকাতায় আসব বলে আসা হয়নি একাধিকবার। কিন্তু কেন বার্সার আসা নিয়ে সংশয় তৈরি হল? কিছুদিন আগেই সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন কিঞ্চিৎ বেঁকে বসেছিল এই ম্যাচ নিয়ে। তাদের বক্তব্য ছিল, ২৮ তারিখের বদলে ২৪ তারিখ ম্যাচ হোক। কেন? না, ২৯ তারিখ এই সল্ট লেক স্টেডিয়ামেই আইএসএল-এর ম্যাচ। গায়ে গায়ে ম্যাচ পড়লে ব্র্যান্ডিং করা সমস্যা হবে।

আরও পড়ুন: বার্সার বিরুদ্ধে সম্ভাব্য দল ঘোষণা মোহনবাগানের, রয়েছেন ব্যারেটো থেকে সুনীল

শুক্রবার বিকেলে যাবতীয় জট কাটাতেই মোহনবাগান তাঁবুতে সাংবাদিক বৈঠক করেন ক্লাব সচিব অঞ্জন মিত্র, ফুটবল নেক্সট ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা কৌশিক মৌলিক ও মোহনবাগানের ফুটবল সচিব স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায়।অঞ্জনবাবু শুরুতেই জানিয়ে দিলেন, ২৮ তারিখই ম্যাচ হচ্ছে। এদিন সকালেই এআইএফএফ সচিব কুশল দাসের সঙ্গে অঞ্জনবাবুর দীর্ঘক্ষণ কথা হয়েছে। অঞ্জনবাবু বলেন, “বার্সেলোনা আমাদের চিঠি মারফত জানিয়ে দিয়েছে, বিশ্বের যে কোনও প্রান্তে খেলার জন্য তাদের ফিফা, উয়েফা ও স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের অনুমোদনের প্রয়োজন হয় না। কিন্ত আমাদের ফেডারেশন বলল, একটা অনুমোদন লাগবে স্ক্র্যাচ (scratch) ফুটবলারদের ক্ষেত্রে। এই স্ক্র্যাচ ফুটবলার শব্দটাতেও আমাদের আপত্তি। এটা অত্যন্ত অসম্মানজনক। প্রাক্তন ফুটবলার বলাই যায়। আমরা বললাম, ফিফা-র নিয়ম তো সব জায়গায় এক। ওদের জন্য আর আমাদের জন্য আলাদা কী করে হতে পারে? এরপর ফেডারেশন বলল, এটিকে-র সমস্যা হতে পারে। তখন আমরা ফেডারেশনকে বলি, এটিকে, আইএসএল ও রাজ্য সরকারের সঙ্গে আমরা চুক্তিবদ্ধ হয়েই ২৮ তারিখ ম্যাচের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেক্ষত্রে সমস্যা কোথায়? সব শোনার পর ফেডারেশন সবুজ সঙ্কেত দিয়েছে। এক-দু’দিনের মধ্যে লিখিত পেয়ে যাব।”

কৌশিক বললেন, “কিছু দিন ধরেই মিডিয়াতে লেখালিখি হচ্ছে দেখছি, এই ম্যাচ নিয়ে নাকি ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। আজ সব ধোঁয়াশা কাটাতেই মিডিয়াকে ডেকেছি।”এদিনের বৈঠকে আরও একটা বিষয়ের দিকে চোখ ছিল। গত ৩০ অগাস্ট বার্সার বিরুদ্ধে খেলা সম্ভাব্য ৫১ জন প্রাক্তন মোহনবাগান ফুটবলারের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল। সেদিন বলা হয়েছিল, পরের সাংবাদিক বৈঠকে মেসিদের ক্লাবের প্রাক্তন ফুটবলারদের নাম ঘোষণা করা হবে। সেইমত বার্সার পাঠানো সম্ভাব্য ফুটবলারদের তালিকা পড়ে শোনালেন কৌশিক।

কিন্তু ‘লেজেন্ড’ বলে যাঁদের নামের তালিকা দেওয়া হয়েছে, তাঁরা বার্সার জার্সিতে ক’টি ম্যাচ খেলেছেন সেটা হাতে গুনে বলা দেওয়া যাবে। ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনাল্ডিনহো সেখানে দিবাস্বপ্নের মতোই। যারা আসবেন বলে জানা যাচ্ছে, তাঁদের নাম রীতিমতো গুগল না করলে চেনা দায়। ১৮ জনের সম্ভাব্য স্কোয়াডে রয়েছেন মারিয়ানো জেসুস, অ্যালবার্ট জোরকুয়েরা, স্যাঞ্চেজ জারা, ফ্রেডেরিক দেহু, রজার গার্সিয়া, জুয়ান কার্লোস রডরিগেজ, রবার্ট ফার্নান্দেজ, এডমিলসন জোসে, ফার্নান্দো নাভারো, জুলিয়ানো বেলেতি, সিমাও সাবরোসা, জারি লিটম্যানেন, হোফ্রে ম্যাটিউ, জিএ গোইসোয়েটিয়া, গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া, জেভিয়ার সাভিওলা, পেদ্রো লোপেজ ও দামিয়া আবেলা। বার্সা জানিয়েছে, আরও তিন-চারজনের নাম যুক্ত হবে।

এখন প্রশ্ন উঠছে, তিলোত্তমা এই ফুটবলারদের দেখতে মাঠ ভরাবে তো? অন্যদিকে এদিন ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বার্সা ম্যাচের আগে কলকাতা লিগ জয়ী বাগান ফুটবলারদের বার্সার ‘কিংবদন্তিরা’ সংবর্ধনা জানাবেন।বার্সা ম্যাচ নিয়ে এই নাটকের মধ্যে মোহনবাগানের একাংশ রাজনীতির গন্ধ পাচ্ছে। সামনেই ক্লাবের নির্বাচন। “বিরোধীদের চক্রান্ত” গোছের শব্দও ভেসে আসছে বাতাসে।

Web Title: Barcelona to play mohun bagan in kolkata no stars

Next Story
অবশেষে স্বপ্নার জুতো সমস্যা মিটতে চলেছেswapna burman
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com