scorecardresearch

বড় খবর

হিন্দু হওয়ায় অপমান করত ‘চরিত্রহীন’ আফ্রিদি! বেনজির বিষ্ফোরণ দানিশ কানেরিয়ার

ধর্মবিদ্বেষের শিকার হতে হয়েছিল পাক জাতীয় দলে খেলার সময়। এমনটাই জানালেন দানিশ কানেরিয়া। বিষ্ফোরক অভিযোগে তাঁর নিশানায় শাহিদ আফ্রিদি।

ফের বোমা ফাটালেন দানিশ কানেরিয়া। ধর্মীয় কারণে জাতীয় দলে খেলার সময় তাঁকে প্রায়ই হেনস্থার শিকার হতে হত, এমনটাই এবার জানিয়ে দিলেন কানেরিয়া। তাঁর অভিযোগের নিশানায় শাহিদ আফ্রিদি।

সংবাদসংস্থা-কে কানেরিয়া জানিয়েছেন, আফ্রিদি একজন ‘মিথ্যাবাদী’। হিন্দু হয়ে পাক জাতীয় দলে খেলার কারণে আফ্রিদি তাঁকে বারবার হেনস্থা করেছেন। ঘটনাচক্রে, কানেরিয়া-ই প্ৰথম নন, যিনি এমন দাবি করলেন।

শোয়েব আখতার-ই একবার বলে দিয়েছিলেন, হিন্দু হওয়ার কারণে বেশ কয়েকজন পাকিস্তানি ক্রিকেটারের খারাপ ব্যবহারের মুখোমুখি হতে হত কানেরিয়াকে।

আরও পড়ুন: জঘন্য ফর্মে কেকেআর! নাইটদের জন্য আগে ক্ষমাও চেয়েছিলেন শাহরুখ

কানেরিয়া বিষ্ফোরক ভঙ্গিতে জানিয়েছেন, “আমার সমস্যা সর্বপ্রথম জনসমক্ষে আনেন শোয়েব আখতার। এরকম জানানোর জন্য ওঁকে এই জন্য ধন্যবাদ। পরে যদিও ওঁকে বেশ চাপের মুখে পড়তে হয় এই কারণে। সেই জন্য এই বিষয়ে ও মুখ খোলা বন্ধ করে দেয়। তবে এটা আমার সঙ্গে বারবার ঘটেছে। শাহিদ আফ্রিদি বরাবর আমাকে অপমান করতেন। আমরা একই বিভাগে খেলতাম। আমাকে বেঞ্চে বসিয়ে রাখত। ওয়ানডেতে খেলতে দিত না।”

“ও চাইত না আমি পাকিস্তানের হয়ে খেলি। ও একজন মিথ্যুক, প্রভাব খাটাত। কারণ ও চরিত্রহীন। দলের বাকিদের আমার বিরুদ্ধে উস্কে দিত। তবে আমার ফোকাস বরাবর ক্রিকেটে থাকত। এরকম সমস্ত ট্যাকটিক্স সযত্নে এড়িয়ে চলতাম। আমি পারফর্ম করলে ও হিংসায় ভুগত। পাকিস্তানের হয়ে খেলার জন্য এখনও আমি গর্বিত। আমি কৃতজ্ঞ।”

স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়ার কারণে কানেরিয়াকে পাক বোর্ডের তরফে নির্বাসিত করা হয়। তবে এখনও কানেরিয়ার দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ ভুয়ো। “ভুল অভিযোগ আমার গায়ে সেঁটে দেওয়া হয়েছে। যে এই ঘটনার জড়িত, তাঁর সঙ্গে আমার নাম জড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ও-তো আফ্রিদি সহ পাকিস্তানের অন্য ক্রিকেটারদেরও ঘনিষ্ঠ। তবে আমাকে কেন টার্গেট করা হল, সেটা জানি না। পিসিবির কাছে অনুরোধ করব, এই নির্বাসন যেন তুলে নেওয়া হয়, যাতে আমি নিজের কাজ করতে পারি।”

“অনেক গড়াপেটায় জড়িত ক্রিকেটারকেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে সেরকম কেন করা হচ্ছে না, জানি না। দেশের হয়ে খেলেছি। বাকিদের মত আমারও সুযোগ প্রাপ্য। এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছি না। পিসিবির কাছে কোনও চাকরির আবেদন করছি না। স্রেফ অনুরোধ করছি নির্বাসন যেন তুলে নেওয়া হয়। যাতে আমি নির্বিঘ্নে মনের শান্তিতে নিজের কাজ করতে পারি।” বলে দিয়েছেন ৪১ বছরের তারকা স্পিনার।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Danish kaneria used to be targeted because of religion spinner accuses shahid afridi