scorecardresearch

মোহনবাগানি কেন ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্বে! ‘ক্ষুব্ধ’ লাল-হলুদ সমর্থকরা ‘চড়াও’ সপ্তকের ওপর, গালি বাবা-মাকেও

ইস্টবেঙ্গল নতুন মিডিয়া ম্যানেজার হিসাবে নিয়োগ করেছে সপ্তক ঘোষকে। তবে দায়িত্ব নিয়েই বিতর্কে তিনি।

মোহনবাগানি কেন ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্বে! ‘ক্ষুব্ধ’ লাল-হলুদ সমর্থকরা ‘চড়াও’ সপ্তকের ওপর, গালি বাবা-মাকেও

তিনি ব্যক্তিগতভাবে মোহনবাগানের সমর্থক। অথচ তাঁকেই কেন ইস্টবেঙ্গলের মত সুপ্রসিদ্ধ ক্লাবের মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব দেওয়া হল? এমন অভিযোগ তুলেই এবার লাল-হলুদ সমর্থকরা সোশ্যাল মিডিয়ায় চড়াও হলেন ক্লাবের নতুন মিডিয়া ম্যানেজার সপ্তক ঘোষের ওপর।

কয়েকদিন আগেই বিনিয়োগকারী ইমামির তরফে নতুন মিডিয়া ম্যানেজারের সন্ধানে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছিল। তারপরে একাধিক আবেদনকারীর মধ্যে সপ্তক ঘোষকে মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এমন অবস্থায় একজন মোহনবাগানিকে কেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের দায়িত্বে আনা হল, তা নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন লাল-হলুদ সমর্থকরা।

আরও পড়ুন: কলকাতা ছাড়লেন মোহনবাগানে খেলা বিদেশি! এবার আইলিগ মাতাবেন আইজলের জার্সিতে

ইস্টবেঙ্গলের মিডিয়া সামলানোর দায়িত্ব নেওয়ার আগে সপ্তক কয়েক মাস সংবাদসংস্থা পিটিআই-য়ে ক্রীড়া সাংবাদিক হিসাবে কাজ করেছেন। তার আগে কনসালটেন্ট হিসাবে বেশ কয়েকটি নামিদামি সংস্থায় কাজ করেছেন। আইপ্যাক, রাজনীতি পলিটিক্যাল ম্যানেজমেন্ট কনসালটেন্টস-এ কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ সংস্কৃত কলেজ থেকে স্নাতক উত্তীর্ণ হওয়ার পরে সপ্তক মাস কমিউনিকেশন নিয়ে পড়াশুনা করেছেন এশিয়ান কলেজ অফ জার্নালিজম থেকে।

ইস্টবেঙ্গলের নতুন দায়িত্ব নেওয়ার পর খুশিতে সপ্তক নিজের টুইটার হ্যান্ডলেও জানিয়েছিলেন, “নতুন মিডিয়া ম্যানেজার হিসাবে ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্ব নিচ্ছি। একথা জানাতে পেরে আমি বেশ উত্তেজিত। আইকনিক এই ফুটবল ইনস্টিটিউটে কাজ করাটা মোটেই সাধারণ ব্যাপার নয়। সমস্ত স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে কাজ করার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায়।”

এমন আনন্দের টুইটের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই সপ্তক সোশ্যাল মিডিয়ায় জানাতে বাধ্য হন, তাঁর পরিবারকে টার্গেট করা হচ্ছে। তাঁর বিস্ফোরক টুইটের বয়ান, “আমার প্রয়াত পিতাকে গালিগালাজ করা হচ্ছে। এমনকি সমর্থকরা আমার মাকে গালি দিচ্ছেন, যিনি বেশ অসুস্থ। সমর্থকরা, কেন এরকম করছ?”

সপ্তকের এমন টুইটের পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তা ভাইরাল হয়ে যায়। ক্লাবেরই মিডিয়া ম্যানেজারকে হেনস্তা করার ঘটনায় স্পষ্টতই দুই ভাগে বিভক্ত লাল-হলুদ সমর্থকরা। এক পক্ষের দাবি, নিজের ব্যক্তিগত সমর্থনের বিচারে নয়, যোগ্যতার নিরিখেই শতাব্দীপ্রাচীন ক্লাবের মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব পেয়েছেন সপ্তক। অন্য শিবিরের ব্যাখ্যা, মোটেই তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিগৃহীত হতে হয়নি। বরং সপ্তকই নাকি ভিকটিম কার্ড প্লে করছেন।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গল অনুশীলনে কে এই নতুন বিদেশি! নজরকাড়া তারকার প্রোফাইল জেনে নিন

দায়িত্ব নিয়েই যে এরকম বিতর্কের মুখে পড়বেন সপ্তক ঘোষ, তিনি নিজেই কি ভাবতে পেরেছিলেন?

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: East bengal new media manager saptak ghosh abused twiter atk mohun