বড় খবর

একের পর এক সুযোগ নষ্টের প্রদর্শনী! সুইডেনের বিপক্ষে শুরুতেই শোচনীয় ফল স্পেনের

Spain vs Sweden: করোনার কারণে স্পেন এবং সুইডেন- দু-দলেই একাধিক তারকা ছিলেন না। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় স্পেন পায়নি অধিনায়ক সের্জিও বুসকেটসকে।

স্পেন: ০

সুইডেন: ০

একের পর এক সুযোগ। আর হেলায় সেই সুযোগ নষ্ট। যার নিটফল। ইউরোর প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমে স্পেন গোলশূন্য ড্র করল সুইডেনের বিরুদ্ধে। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দাপট স্পেনীয়দের। সুইডেনের অর্ধে একের পর এক আক্রমণ। তবে স্ট্রাইকারদের ব্যর্থতায় গোলের খাতাই খুলতে পারল না লা রোহো-রা। অন্যদিকে, সুইডেনও বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করে। তবে তা অপেক্ষাকৃত কঠিন।

সেভিয়ার লা কার্তুহা স্টেডিয়ামে সুইডিশদের হয়ে গোলের মোক্ষম সুযোগ পেয়েছিলেন আলেকজান্ডার ইসাক। রিয়েল সোসিয়েদাদের হয়ে খেলা এই তারকা বক্সের মধ্যে থেকেই গোল করার সুবর্ণ সুযোগ পান। তবে স্প্যানিশ ডিফেন্ডার মার্কোস লোরেন্টের গায়ে লেগে বল দিকভ্রষ্ট হয়ে পোস্টে আছড়ে পড়ে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও মার্কাস বার্গ বক্সের মধ্যে সুযোগ পেয়েছিলেন দলকে এগিয়ে দেওয়ার। তবে মিসহিট করে বসেন তিনি।

আরো পড়ুন: মাঝমাঠ থেকে সরাসরি গোল! সেরার সেরা গোলে চূর্ণ ইউরোর ইতিহাস, দেখুন ভিডিও

আলেকজান্ডার ইসাকের গোল-সুযোগের কিছুক্ষণ আগেই স্প্যানিশদের হয়ে বড়সড় সুযোগ পান মোরাতা। তবে গোলকিপার রবিন অলসেনকে একা পেয়েও বল বাইরে পাঠিয়ে দেন। এর আগে প্রস্তুতি ম্যাচেও পর্তুগালের বিপক্ষে একাধিক সুযোগ নষ্ট করেন। সেই ম্যাচের মত এদিনও দর্শকদের ব্যঙ্গ বিদ্রুপের শিকার হন তারকা।

প্রেসিং ফুটবলে সুইডেনের নাভিশ্বাস তুলে দিল এদিন স্পেন। তবে কাজের কাজটাই হল না। ৯০ মিনিটে পরিবর্ত হিসাবে নামা জেরার্ড মোরেনোর হেড দারুণ ক্ষিপ্রতায় বাঁচিয়ে দেন সুইডিশ গোলরক্ষক। প্রথমার্ধেও ড্যানি ওলমোর ক্লোজ হেডার সেভ করে দেন তিনি।

বল দখলের লড়াইয়ে এদিন স্পেন অনেক এগিয়ে ছিল- ৭৫ শতাংশ। পাঁচটি গোলমুখী শট ছিল। অন্যদিকে সুইডেন চারবারের সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ। ইউরোর শেষ ১৪ গ্রুপ ম্যাচে এই নিয়ে স্পেন দ্বিতীয়বার গোল করতে ব্যর্থ হল। অন্যদিকে, সুইডেন আবার ইউরোর যোগ্যতাঅর্জন কারী পর্বে স্পেনের বিরুদ্ধেই ড্র করার পর গত ১৭টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে একবারও ড্র করেনি।

ইউরোর ম্যাচ আয়োজনের দায়িত্ব বিলবাও পেলেও, উত্তর স্পেনের এই প্রদেশে ব্যাপক হারে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলায় বিলবাওয়ের বদলে ম্যাচ খেলানো হচ্ছে সেভিয়ায়। লা কার্তুহায় স্পেনকে সমর্থন করতে এদিন হাজির ছিল ১২,৫১৭ জন দর্শক। জুনের ২৩তারিখেই স্পেন এই স্টেডিয়ামেই খেলবে স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে। একটি কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচও খেলানো হবে লা কার্তুহায়।

২০০৪ সালের পর ইউরোয় একবারও গ্রুপ পর্বের গন্ডি পেরোতে পারেনি সুইডেন। পরের ম্যাচে স্লোভাকিয়ার বিরুদ্ধে সুইডেন খেলবে সেন্ট পিটার্সবার্গে। রাশিয়ায় পোল্যান্ডের বিপক্ষেও খেলতে হবে সুইডিশদের।

করোনার কারণে স্পেন এবং সুইডেন- দু-দলেই একাধিক তারকা ছিলেন না। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় স্পেন পায়নি অধিনায়ক সের্জিও বুসকেটসকে। অন্যদিকে সুইডেন শিবিরে করোনা হানার শিকার হয়েছেন ম্যাথিয়াস ভ্যানবার্গ এবং ডেজান কুলুসিভস্কি। চোটের জন্য স্পেন দলে ছিলেন না সের্জিও রামোস। আর জলাটান ইব্রাহিমোভিচ ইউরোর আগেই হাঁটুতে চোট পেয়ে বসেন। প্ৰথম ম্যাচে খেলতে নামার আগেই গোটা স্প্যানিশ দলকে করোনা প্রতিষেধক দেওয়া হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Euro cup 2020 spain misfires against sweden match ends 0 0

Next Story
ফ্রি-কিকে ঐশ্বরিক গোল মেসির, তবু কোপার শুরুর ম্যাচে হতাশ আর্জেন্টিনা, দেখুন ভিডিও
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com