scorecardresearch

বড় খবর

ভয়ঙ্কর কাণ্ড, বিশ্বকাপে ইসলামকেই চূড়ান্ত অপমান USA-র! দাউদাউ বিতর্কে ফুঁসে উঠল ইরান

ইসলামকেই কিনা শেষমেশ অবমাননা করে বসল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

ভয়ঙ্কর কাণ্ড, বিশ্বকাপে ইসলামকেই চূড়ান্ত অপমান USA-র! দাউদাউ বিতর্কে ফুঁসে উঠল ইরান

বিতর্কে দগ্ধ কাতার বিশ্বকাপ। সমকামিতা সমর্থন সূচক আর্মব্যান্ড নিষিদ্ধ করা হোক বা মদ্যপান, নারী পোশাক সংক্রান্ত নিয়মাবলী, মানবাধিকার লঙ্ঘন- কাতার একাধিক ইস্যুতে শিরোনাম হয়েছে। এবার সেই ইস্যুতে নয়া সংযোজন ইসলাম ধর্মের অবমাননা। ইরানের জাতীয় প্রতিবাদকে সমর্থন জানাতে গিয়ে এবার খোদ ইসলাম ধর্মকেই অবমাননা করার অভিযোগ উঠল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল সংস্থার বিরুদ্ধে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল সংস্থার তরফে ইরানের যে পতাকা দেখানো হচ্ছে, সেই থেকে ইচ্ছাকৃতভাবে বাদ দেওয়া হয়েছে ইসলামিক প্রতীক। এরপরেই ক্ষুব্ধ ইরানের তরফে পাল্টা ধর্মীয় ঈশ্বরকে অসম্মান করার জন্য তীব্র ধিক্কার জানানো হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে। গোটা ঘটনায় রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছে বিশ্বকাপের আসরে।

বিশ্ব রাজনীতিতে ইরানের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শত্রুতা নতুন কিছু নয়। ইরানের স্বৈরাচারী শাসকের বিরুদ্ধে বারবার গর্জে উঠেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। পরমাণু চুক্তি সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞাও জারি করা হয়েছিল ইরানের ওপর।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মধ্যেই ফিফার নিয়ম ভেঙে বিদ্রোহ জার্মানির! বেনজির ঘটনায় কড়া শাস্তির মুখে চারবারের চ্যাম্পিয়নরা

আর বিশ্বকাপে দুই চিরশত্রু দেশ একই গ্রুপে রাখার পর থেকেই বিশ্ব রাজনীতিতে তোলপাড় হয়েছিল। গ্রুপের শেষ ম্যাচেই ইরানের বিপক্ষে নামছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তার আগেই নতুন বিতর্কের ইন্ধন জুগিয়ে দিল এই ঘটনা।

ইরানে এই মুহূর্তে জাতীয় প্রতিবাদ চলছে। মাহসা আমিনিকে হিজাব না পড়ার অপরাধে প্রকাশ্যে দিবালোকে হত্যা করা হয়। তারপর থেকে ইরানের বিক্ষোভ সামিল হয়েছে গোটা বিশ্ব। গোটা ইরান জুড়েই এখনও দাউদাউ করে জ্বলছে প্রতিবাদের আগুন। ইন্টারনেট সংযোগ ছিন্ন করা হয়েছে, গোটা ইরান জুড়ে ৪৫০ জনকে বিক্ষোভকারীকে হত্যা করা হয়েছে প্রতিবাদ দমন করার জন্য। ১৮ হাজারের বেশি প্রতিবাদীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ইরান সরকারের তরফে এখনও হতাহতের প্রকৃত সংখ্যা গোপন করার অভিযোগ উঠেছে বিশ্বজুড়ে মানবাধিকার সংস্থাগুলির তরফ থেকে।

ইরানের জাতীয় দল এর আগে প্ৰথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলার আগে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে অস্বীকার করেছিলেন। জাতীয় বিক্ষোভে সমর্থন জানিয়ে। এর মধ্যেই গনগনে বিতর্কের আগুন জ্বালিয়ে দিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল সংস্থা।

আরও পড়ুন: এই স্পেশ্যাল বুটেই আর্জেন্টিনাকে স্বপ্নের জয় মেসির! সোনালি বুটের রহস্য জানলে মাথা নুইবে সম্মানে

ইরান সরকারের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানিয়ে পাল্টা জানানো হয়েছে, “মাঠে নামার আগে ওঁরা দলের ফোকাস নষ্ট করতে চাইছে।” ১৯৮০ সালে ইরানের পতাকায় ইসলামিক প্রজাতন্ত্রের লোগো ডিজাইন করা হয়। চারটে বাঁকানো কার্ভের মধ্যে যোগ করা হয়েছিল তলোয়ারের প্রতীক। ইরানের পতাকায় ২২টি ‘ঈশ্বর মহান’ অন্তর্লিখন রয়েছে। পার্শিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ইসলামিক বিপ্লবকে সম্মান জানানোর উদ্দেশ্যেই পতাকার এরকম ডিজাইন।

ইরানের সেই পতাকার অসম্মান করার মাধ্যমে ইসলাম ধর্মবিশ্বাসে আঘাত করার অভিযোগ উঠল এবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে। এই বিতর্কের জল কতদূর গড়ায় সেটাই আপাতত দেখার।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Fifa world cup 2022 qatar controversy erupts as usa scrubs islamic emblem on iran national flag