Ind vs Aus 5th ODI Highlights: ঘরের মাঠে পর্যুদস্ত ভারত, ব্যাক-টু-ব্যাক সিরিজ খোয়াল কোহলি অ্যান্ড কোং

Ind vs Aus 5th ODI Highlights: নিজেদের ঘরের মাঠে টোয়েন্টি-টোয়েন্টির পর ওয়ান-ডে সিরিজও হারল ভারত। ট্রফি নিয়েই দেশে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া।

By: Mohali  Updated: Mar 14, 2019, 12:04:18 PM

Ind vs Aus 5th ODI Highlights: নিজেদের ঘরের মাঠে টোয়েন্টি-টোয়েন্টির পর ওয়ান-ডে সিরিজও হারল ভারত। ট্রফি নিয়েই দেশে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া। বুধবার ফিরোজ শাহ কোটলায় সিরিজের পঞ্চম ও অন্তিম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত-অস্ট্রেলিয়া। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ২৭২ রান তোলে অজিরা। সৌজন্যে উসমান খোয়াজার দুরন্ত সেঞ্চুরি। রান তাড়া করতে নেমে ভারত ২৩৭ রানে অলআউট হয়ে যায়। বিশ্বকাপের আগে শেষবার নীল জার্সিতে নেমেছিল কোহলি ব্রিগেড। এরপর আইপিএল খেলে শাস্ত্রীর শিষ্যরা ধরবে ইংল্যান্ডের বিমান। ভারত চেয়েছিল সিরিজ জিতেই মধুরেণ সমাপয়েৎ করতে। কিন্তু সে স্বপ্ন অধরাই থেকে গেল। বিশ্বকাপের আগে ভারতের থিঙ্কট্যাঙ্ককে আবার নতুন করে ভাবতে হবে।

গত ম্যাচে মোহালিতে ভারতকে ৩৫৮ রান করেও হারতে হয়েছিল। শিখর ধাওয়ান (১৪৩) ও রোহিত শর্মা (৯৫)র লড়াই ব্যর্থ হয়ে যায়। ৪৩ বলে ৮৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে একাই ম্যাচের রঙ বদলে দিয়েছিলেন অ্যাশটন টার্নার। টার্নার আতঙ্ক এখনও ভুলতে পারেননি কোহলিরা। এদিনও টার্নারের দিকে চোখ থাকবে। মোহালিতে হতশ্রী ফিল্ডিং, বোলিং আর ক্যাচ মিসের পরিণাম দিতে হয়েছিল বিরাটদের। এসব কিছুকেই ছাপিয়ে গিয়েছিল উইকেটে পিছনে ঋষভ পন্থের পারফরম্যান্স। তাঁর দস্তানাতেই ভারতের ভরাডুবি তরান্বিত হয়েছিল।

আরও পড়ুন: ৩৫৮ করে হারল ভারত, সিরিজে সমতায় ফিরল অজিরা

Ind vs Aus  5th  ODI Highlights

9.13pm: খেলা শেষ, ৩৫ রানে জয়ী অস্ট্রেলিয়া।

9.05pm: মহম্মদ শামি আউট (৩)।

8.55pm: কফিনে শেষ পেরেক, যাদবও (৪৪) ফিরে গেলেন।

8.53pm: ভুবি (৪৬) আউট, লড়াই করে শেষপর্যন্ত ফিরলেন তিনি। ২৪ বলে ৫০ রান প্রয়োজন ভারতের।

8.51pm: কামাল করছেন কেদার-ভুবি। আপ্রাণ লড়াই করছেন ভারতকে জেতানোর জন্য। দিল্লির গ্যালারি ফুটছে। ম্যাচের রঙ বদলে দিচ্ছেন তাঁরা। স্বপ্ন দেখছেন ফ্যানেরা।

8.41pm: ৪২ বলে ৭৩ রান প্রয়োজন ভারতের। কেদার এবং ভুবি দু’জনেই স্মার্ট ক্রিকেট খেলে ভারতকে আশার আলো দেখাচ্ছেন। এনারা শেষ পর্যন্ত থেকে গেলে ভারতকে সিরিজ জিতিয়ে দিতে পারেন।

8.28pm: ৬০ বলে প্রয়োজন ৯৫ রান, কেদাররা কি পারবেন ভারতকে জেতাতে?

8.19pm: ১৩ ওভারে প্রয়োজন আর ১১০ রান। টার্গেট এখনও ধরাছোঁওয়ার মধ্য়ে। ভুবি (১৫) আর কেদার (২২) লড়ছেন ভারতের হয়ে। এখন দেখার এই ম্যাচের পরিণতি কী হয়। ভারত কি পারবে সিরিজ জিততে? উত্তর দেবে সময়।

8.02pm: ১৭ ওভারে ১২৪ রান প্রয়োজন ভারতের। হাতে মাত্র চার উইকেট রয়েছে। এখন ভরসা বলতে সেই একা কেদার যাদব। কারণ এরপর আর কোনও ব্যাটসম্যান নেই, যিনি বৈতরণী পার করাতে পারবেন। কুলদীপ যাদব, মহম্মদ শামিদের থেকে প্রত্যাশাও করা যায় না। এখন দেখার ভারত কত দূর লড়াই চালাতে পারে! কাজটা অত্যন্ত কঠিন। কিন্তু অসম্ভবও নয়।

7.46pm: জোড়া ধাক্কা, তিন বলের মধ্যে দুই উইকেট হারাল ভারত। রোহিত (৫৬) ফেরার পরে পরেই ফিরে গেলেন জাদেজাও (০)। ২১ ওভারে ভারতের প্রয়োজন আরও ১৪১ রান। ছ’উইকেট হারিয়ে ভারত রীতিমতো বিপাকে। সিরিজ জয়ের আশা ক্রমেই ক্ষীন হচ্ছে বিরাটদের। বলাই বাহুল্য ম্য়াচে অ্যাডভান্টেজে ফিঞ্চ অ্যান্ড কোং। 

7.27pm: বিজয় শঙ্কর (১৬) আউট, জাম্পার বলে খোয়াজার হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন।

7.24pm: ৪১ তম ওয়ান-ডে হাফ-সেঞ্চুরি রোহিতের।

7.22pm: আন্তর্জাতিক ওয়ান-ডে ক্রিকেটে ৮০০০ রান রোহিতেরশচীন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়, রাহুল দ্রাবিড়, এমএস ধোনি ও বিরাট কোহলিদের এলিট ক্লাবে চলে এলেন রোহিত। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে যুগ্মভাবে দ্বিতীয় দ্রুততম ভারতীয় ও বিশ্বের তৃতীয় দ্রুততম ক্রিকেটার হিসেবে পঞ্চাশ ওভারের ফর্ম্যাটে আটহাজারি হলেন হিটম্যান। দু’জনেই ২০০টি ইনিংস খেলে ৮০০০ রানের মাইলস্টোন স্পর্শ করলেন। ৮০০০ রান থেকে ৪৬ রান দূরে ছিলেন মুম্বইকর। (২৩ ওভার শেষে ভারত তিন উইকেট হারিয়ে ১১১ তুলল)

7.06pm: পন্থ আউট (১৬), লিঁয়র বলে টার্নারের হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন।

7.04 pm: কোহলি ফিরতে পন্থ এসেছেন। তিনি এখনও পর্যন্ত ছন্দেই রয়েছেন। অন্যদিকে রোহিত অনেক পরিণত। জোড়া উইকেট হারানোর ধাক্কার সামাল দিয়েই ভারত সিরিজ জয়ের চেষ্টায়। এখন পন্থ আর হিটম্যানকে ক্রিজে থাকতে হবে। কোনওভাবেই ভারতকে টার্গেট মাথার ওপর উঠতে দিলে হবে না।

6.40pm: কোটলার হৃদয়ভঙ্গ, কোহলি আউট (২০), স্টোইনিসের বলে ক্যারির হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন।

6.29pm: ১০ ওভার শেষে ভারত শিখর ধাওয়ানকে হারিয়ে ৪৩ রান তুলতে পেরেছে। এটাই ছিল ভারতের বাধ্যতামূলক পাওয়ার-প্লে। এখানেই যতটা সম্ভব রান তোলার জন্য ঝাঁপিয়েছিল ভারত। ক্রিজে এই মুহূর্তে কোহলি আর রোহিত। তাঁরা রীতিমতো ছন্দে রয়েছেন। এই জুটি দাঁড়িয়ে গেলে অজি বোলাররা রীতিমতো চাপে পড়ে যাবেন।

6.05pm: ধাওয়ান আউট (১২)। মোহালির নায়ক দিল্লিতে ব্যর্থ। কামিন্সের বলে ক্যারির হাতে ক্যাচ আউট হলেন গব্বর। ভারতের সামনে ২৭৩ রানের টার্গেট। এই অবস্থায় ধাওয়ান-রোহিতের যুগলবন্দি জ্বলে ওঠা প্রয়োজন ছিল। শুরুতেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গেল ভারত। এবার ঘরের ছেলে ও ভারত অধিনায়ক বিরাট ব্যাটের দিকেই তাকিয়ে থাকবেন ফ্যানেরা।

5.46pm: রোহিত শর্মা আর শিখর ধাওয়ানের ব্যাটে পথচলা শুরু ভারতের। সিরিজ জয়ের জন্য ভারতের প্রয়োজন ২৭৩। আজ জিততেই হবে বিরাটদের। নাহলে অস্ট্রেলিয়া ভারতে এসে ট্রফি নিয়েই দেশে ফিরে যাবে। টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটসম্যানদের জ্বলে ওঠার সময়।

5.09pm: ইনিংস ব্রেক, সিরিজ জয়ের জন্য় কোহলিদের টার্গেট ২৭৩।

5.02pm: প্যাট কামিন্স আউট (১৫), কট অ্যান্ড বোল্ড ভুবি।

4.50pm: অ্যালেক্স ক্যারি (৩) আউট, পন্থের হাতে ক্যাচ দিয়ে শামির শিকার হলেন তিনি।

4.41pm: স্টোইনিস প্লে-ডাউন (২০), ভুবির বলে আউট হয়ে গেলেন তিনি।

4.40pm: অস্ট্রেলিয়ার হাতে আর অন্তিম ছ’ওভার। পাঁচ উইকেট হারিয়ে ২২৪ রান তুলেছে তারা। স্টোইনিস (২০) ও ক্যারি (২) রয়েছেন ক্রিজে। শেষ হাফ ডজন ওভারে অজিরা যতটা সম্ভব রান তোলারই চেষ্টা করবে। কোহলি চাইবেন উইকেট তুলতে। কিন্তু এখনও অস্ট্রেলিয়াকে ভাল রানের মধ্যেই বেঁধে রেখেছে কোহলির বোলাররা।

4.26pm: টার্নার আউট (২০)! কুলদীপের বলে জাদেজার হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন।

4.20pm: মোহালিতে ৪৩ বলে ৮৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে একাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন অ্যাশটন টার্নার। আজও ছন্দে আছেন অস্ট্রেলিয়ার এই মারকুটে ব্যাটসম্যান। টার্নারকে ফেরাতে না-পারলে ভারত পুরোপুরি বিপদমুক্ত হবে না। ৪০ ওভারের খেলা শেষ। অস্ট্রেলিয়া চার উইকেট হারিয়ে ২০২ রান তুলল। হাতে আর অন্তিম ১০ ওভার।

4.03pm: হ্যান্ডসকম্ব আউট (৫২), তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ছে অস্ট্রেলিয়া।

4.02pm: খোয়াজার পর ম্যাক্সওয়েলকে হারিয়ে ম্যাচে ফিরেছে ভারত। ক্রিজে রয়েছেন ফর্মে থাকা হ্যান্ডসকম্ব ও স্টোইনিস। কিন্তু আজিদের চাপে রাখতে ভারতকে আরও উইকেট তুলতে হবে। কারণ এখনও টার্নার ও ক্যারিরা রয়েছেন অজিদের ঝুলিতে। যাঁদের ব্যাটে ভাল রান ওঠার সম্ভাবনা রয়েছে। এদিন জাদেজা তুলে নিয়েছেন জোড়া উইকেট। দিল্লিতে কামাল দেখাচ্ছেন ‘স্যার’।

3.57pm: প্রত্যাশিত হাফ-সেঞ্চুরি হ্যান্ডসকম্বের।

3.51pm: আবার জাদেজা! কোহলিকে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন ম্যক্সওয়েল। ম্যাচের রাশ ভারতের হাতে।

3.46pm: খোয়াজা আউট (১০০)। ভুবির বলে কোহলির হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন খোয়াজা।

3.40pm: রাঁচির পর দিল্লিতেও দুর্দান্ত সেঞ্চুরি খোয়াজার। সিরিজের ও কেরিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তাঁর।

3.26pm: খোয়াজার দুরন্ত ব্যাটিং ছাড়া ম্যাচে বলার মতো আর কিছুই নেই। ৯৩ রান করে ফেলেলেন তিনি। অস্ট্রেলিয়াও ১৫০ পার করে গেল। হ্যান্ডসকম্বও যথাযথ। ২৬ রানে ব্যাট করছেন তিনি। কিন্তু ভারতীয় বোলারদের এদিনও দিশাহীন দেখাচ্ছে। এখনও অস্ট্রেলিয়ার ঝুলিতে ম্যাক্সওয়েল, স্টোইনিস, টার্নার ও ক্যারির মতো ক্রিকেটাররা রয়েছেন। যাঁদের ব্যাট যখন তখন জ্বলে ওঠে। ফলে কোহলির এখন উইকেট ছাড়া মাথায় আর কিছুই নেই। কারণ তিনি পেসার-স্পিনার সবরমক ব্য়বহার করে ফেলেছেন। ২৮ ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়ার স্কোর ১৫৭

3.10pm: আজ খোয়াজার ব্যাট কথা বলছে। অজিদের বড় রানের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন তিনি। কোহলিকে কিন্তু উইকেট তুলতেই হবে। খোয়াজাকে ফেরাতে না-পারলে সমস্যা বাড়বে ভারতের। ২৪ ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়া ১২৮ রান তুলে ফেলল। খোয়াজা ৭০ রানে ও হ্যান্ডসকম্ব ২৭ রানে ব্যাট করছেন।

2.55pm: ২০ ওভারের মধ্যেই ১০০ পেরিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া।

2.43pm: এখন খোয়াজার সঙ্গে পিচে পিটার হ্যান্ডসকম্ব। দেখতে দেখতে খোয়াজা হাফ সেঞ্চুরি করে ফেললেন। আগের দিন অল্প রানের জন্য় সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেছেন তিনি। ৯১ রানে আউট হয়ে যান। আজ দেখার তিনি শতরানের স্বাদ পান কিনা। অন্যদিকে হ্যান্ডসকম্ব মোহালিতে রান তাড়া করতে নেমে ঝকঝকে সেঞ্চুরি (১১৭) করেছিলেন।


2.33pm: ক্লিন বোল্ড, জাদেজা ছিটকে দিলেন ফিঞ্চের (২৭) স্টাম্প।

2.27pm: দুই ওপেনার ক্রমেই জমে যাচ্ছেন ক্রিজে তাঁদের থামানোর রাস্তা খুঁজে পাচ্ছে না ভারতের বোলাররা। এভাবে চলতে থাকলে কোহলিদের ওপর চাপ ক্রমেই বাড়বে। এখনই উইকেট চাই দলের। ১৩ ওভার শেষে ৬৭ রান হয়ে গেল।

2.02pm: ভারত তাদের অন্যতম সেরা চার বোলার- কুলদীপ, চাহাল, ভুবি আর বুমরাকে খেলিয়ে ১৩ বার জিতেছে, ৫ বার হেরেছে। পঞ্চম বোলারের খেলিয়ে টেইলটা দীর্ঘায়িত করলে সমস্যা হতে পারে। এই চারের মধ্যে একজনকে বসানোটা ট্রিকি এবং চ্যালেঞ্জিং। ক্রীড়া বিশ্লেষক গৌরব সুন্দররমনের এমনটাই মত।

1.48pm: পিচ দেখে সুনীল গাভাস্কর বলেছিলেন যে, এখানে বল সেঅর্থে মুভ করে না। এজন্যই গড় রান ২২০-২৩০ এর মধ্যে থাকে। শিশির একটা বড় ফ্যাক্টর এখানে। টস জিতে বল করাই ঠিক হবে বলেও মন্তব্য করেছিলেন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান। কিন্তু খোয়াজা (২২)-ফিঞ্চ (৬) শুরুটা দুরন্ত মেজাজেই করেছেন। চার ওভার শেষে তারা সাতের গড়ে ২৮ রান তুলে ফেলল।

1.30pm: ‘দ্য ডিসাইডার’-এর খেলা শুরু। ব্যাট হাতে নালমেল অ্যারন ফিঞ্চ আর উসমান খোয়াজা। বল হাতে শুরু ভুবনেশ্বরের। কোহলিদের ওয়ার্ম-আপের বাছাই করা মুহূর্তের কোলাজ করে ভিডিও করল বিসিসিআই। দেখে নিন সেই মুহূর্তগুলো।

1.15pm: আজ ভারতীয় দলে চাহালের বদলে ফিরলেন রবীন্দ্র জাদেজা, রাহুল বসেছেন। খেলবেন শামি। অন্যদিকে অজি শিবিরে শন মার্শ বসছেন, ফিরলেন মার্কাস স্টোইনিস। ছবিতে দেখে নিন ইন্দো-অজিদের প্রথম একাদশ।

1.00pm: টস হেরে বল করবে ভারত। টস জিতে ফিঞ্চ ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিলেন। বললেন, শুষ্ক উইকেটে প্রথমে ব্যাট করে বড় রান তুলতে চান তাঁরা। সেটাই ডিফেন্ড করতে চাইবেন। কোহলি জানালেন তিনিও টস জিতলে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্তই নিতেন। শেষ দু’টো ম্যাচের ভুলভ্রান্তি থেকে শিক্ষা নিয়েই এই ম্যাচে খেলতে চান তিনি। কোহলি বললেন, ভারতের সকলেই ফুটছে। ম্য়াচটাকে তাঁরা নকআউট হিসেবেই দেখছেন।

12.51pm: এই ট্রফির জন্যই লড়ছেন বিরাট-ফিঞ্চরা।

12.45pm: ইন্দো-অজি মহারণের আগেই দিল্লি অ্যান্ড ডিসট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (ডিডিসিএ) চেয়েছিল তাঁদের ঘরের তিন ছেলেকে সংবর্ধনা দিতে। ভারতীয় দলের ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলির সঙ্গে তারা সংবর্ধনা দিতে চেয়েছিল দিল্লির দুই প্রাক্তন কিংবদন্তি গৌতম গম্ভীর ও বীরেন্দ্র শেহওয়াগকে।কিন্তু পুলওয়ামার সন্ত্রাস হামলায় নিহত সিআরপিএফ জওয়ানদের শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাতেই আপাতত কোহলি-গম্ভীরদের সংবর্ধনা দেওয়ার পরিকল্পনা বাতিল করেছে ডিডিসিএ।

আজকের ম্যাচ টিকিট (ছবি-টুইটার) আজকের ম্যাচ টিকিট (ছবি-টুইটার)

12.30pm: পরিসংখ্যানবিদ মোহনদাস মেনন টুইট করে জানিয়েছেন যে, আজ কোটলায় ২৫ তম ওয়ান-ডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১৯৮২-র ১৫ সেপ্টেম্বর ভারত এখানে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে প্রথম ওয়ান-ডে খেলেছিল। ৬ উইকেটে জিতেছিল ভারত। এখনও পর্যন্ত এখানে ভারত আটটি ওয়ান-ডে জিতেছে ও চারটিতে হেরেছে। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে চারবারের সাক্ষাতে ভারত তিনবার জিতেছে। অজিরা জিতেছে একবার।

12.20pm: ভারতের ক্রিকেট মানচিত্রে আইকনিক স্টেডিয়ামগুলোর মধ্যে অন্যতম ফিরোজ শাট কোটলা। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সের পর এটা দেশের দ্বিতীয় প্রাচীন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম যেখানে আজও ক্রিকেট খেলা হয়। ৪৮ হাজার মানুষ একসঙ্গে বসে খেলা দেখতে পারেন। এখানে প্রথম ইনিংসের গড় ২৩৩। দ্বিতীয় ইনিংসের গড় ২১১। দিল্লিতে এদিন তাপমাত্রা ২৪ ডিগ্রির কাছাকাছি। কিন্তু মেঘলা আকাশেরই পূর্বাভাস রয়েছে।

দেখে নেওয়া যাক সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচের সংক্ষিপ্ত বিবরণী: সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে রাঁচিতে ৩২ রানে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে অস্ট্রেলিয়া ৩১৩ রান তুলেছিল। অ্যারন ফিঞ্চ (৯৩) ও উসমান খোয়াজা (১০৪) জ্বলে উঠেছিলেন। জবাবে ভারত ২৮১ রানে অলআউট হয়ে গেল। ভারতের হয়ে একা লড়াই করেছিলেন বিরাট। ১২৩ রানের ইনিংস খেলেও দলকে জেতাতে পারেননি তিনি।

সিরিজের দ্বিতীয় নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে ২৫০ রান তুলেছিল ভারত। সৌজন্যে বিরাট কোহলির ঝকঝকে সেঞ্চুরি (১১৬) ও বিজয় শঙ্করের ৪৬ রানের ক্যামিও ইনিংস। ভারতের দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে ২৪২ রানে গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। আট রানে জিতে সিরিজ ২-০ করেছিল বিরাটরা।

প্রথম ম্যাচে ভারত হায়দরাবাদে দুরন্ত জয় ছিনিয়ে নিয়েছিল। মহম্মদ শামি (২/৪৪) ও কুলদীপ যাদবের (২/৪৬), যসপ্রীত বুমরার (২/৬০) দাপটে সেদিন অস্ট্রেলিয়াকে ২৩৬ রানে বেঁধে দিয়েছিল ভারত। জবাবে ১০ বল বাকি থাকতেই ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় কোহলি অ্যান্ড কোং। সৌজন্যে মহেন্দ্র সিং ধোনি (৫৯) ও কেদার যাদবের (৮১) অপরাজিত ইনিংস।

 

Indian Express Bangla provides latest bangla news headlines from around the world. Get updates with today's latest Sports News in Bengali.


Title: Ind vs Aus 5th ODI Live Cricket Score Updates:ঘরের মাঠে পর্যুদস্ত ভারত, ব্যাক-টু-ব্যাক সিরিজ খোয়াল কোহলি অ্যান্ড কোং

Advertisement