মাঠেই কার্তিককে চূড়ান্ত অপমান হার্দিকের! দেখে ফুঁসে উঠলেন নেহরাও, দেখুন ভিডিও

স্কোরবোর্ডে ২১০ তুলেও জিততে পারল না ভারত। মিলারের দাপটে স্মরণীয় জয় ছিনিয়ে নিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

মাঠেই কার্তিককে চূড়ান্ত অপমান হার্দিকের! দেখে ফুঁসে উঠলেন নেহরাও, দেখুন ভিডিও

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্ৰথম টি২০-তেই ভারত স্কোরবোর্ডে রানের পাহাড় হাঁকাল। দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে ভারতের ব্যাটিংয়ের উজ্জ্বল নক্ষত্র হয়ে ফুটে উঠলেন ঈশান কিষান। ৪৮ বলে ৭৬ রান করে দলকে দারুণ শুরুয়াত দিলেন তিনি। হার্দিক পান্ডিয়া এবং ঋষভ পন্থ দলকে ফিনিশিং টাচ দিলেন।

পন্থ আউট হয়ে যাওয়ার পরে ব্যাট করতে নেমেছিলেন দীর্ঘদিন পরে জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন ঘটানো দীনেশ কার্তিক। তিন বছর পর টিম ইন্ডিয়ার জার্সিতে দেখা গেল তাঁকে। আরসিবির জার্সিতে ফিনিশার হিসাবে নিজের পুনর্জন্ম ঘটিয়েছেন। অপ্রতিরোধ্য ফর্মের কার্তিক তাই এবার প্ৰথম ম্যাচ থেকেই শুরুর একাদশে।

আরও পড়ুন: ধোনি নন, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতের প্ৰথম টি২০ ক্যাপ্টেন ছিলেন এই মহাতারকা

তবে শেষ ওভারে ব্যাট করার সময়েই যাবতীয় বিতর্ক। হার্দিক পান্ডিয়া সরাসরি কার্তিককে স্ট্রাইক দিতে প্রত্যাখ্যান করলেন। যে নিয়ে বেনজির বিতর্ক দানা বেঁধে গেল।

হার্দিকের এমন মানসিকতায় অসন্তুষ্ট হার্দিকের আইপিএল কোচ আশিস নেহরাও। তিনি সরাসরি জানিয়ে দিলেন, কার্তিক টেলএন্ডার নন। ওঁকে স্ট্রাইক দেওয়া উচিত ছিল হার্দিকের। ক্রিকবাজ-কে অসন্তুষ্ট নেহরা বলে দিয়েছেন, “শেষ বলের আগে একটা সিঙ্গল ও নিতেই পারত। অন্য প্রান্তে দীনেশ কার্তিক ছিল। আমি তো নয়!”

নেহরা আরও বলেন, “হার্দিক পান্ডিয়া এমন একজন ক্রিকেটার যে একাধিক রোলে খেলতে পারে। একাধিক ব্যাটিং পজিশনে খেলার দক্ষতা রয়েছে ওঁর। টেস্টে এবং ওয়ানডেতে দেখেছি ও কীভাবে পারফর্ম করে। ৩ নম্বর হোক বা ৪ নম্বর- যে কোনও পজিশনে ও খেলতে সাবলীল। গুজরাটের ক্যাপ্টেন হিসাবে ও বল হাতেও অবদান রেখেছে। সেটা ছিল সম্পূর্ণ অন্য ধরণের দায়িত্ব। তার আগে ও খুব একটা বেশি বোলিং করছিল না। নিচের দিকে ব্যাট করতেও নামছিল। আজ রাতে পুরোনো ভূমিকায় ওঁকে পাওয়া গেল। তবে যে কোনও ভূমিকায় সাবলীলভাবে খেলার দক্ষতা রয়েছে ওঁর।”

আরও পড়ুন: করোনার ছোবলে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ! ম্যাচের আগেই ছিটকে গেলেন নামি সুপারস্টার

স্লগ ওভারে পান্ডিয়াকে পার্নেলকে মিড উইকেট দিয়ে সপাটে বাউন্ডারি হাঁকাতে যেমন দেখা গেল, তেমনই লং অন দিয়ে শর্ট আর্ম জ্যাবে ছক্কা হাঁকালেন পরের বলেই। ১৯তম ওভারে হার্দিকের বিধ্বংসী মেজাজের মুখে পড়লেন রাবাদাও। লং অন দিয়ে ছক্কা হাঁকালেন, ইয়র্কার শর্ট ফাইন লেগ দিয়ে বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে দলকে ২০০-য় পৌঁছে দেন। হার্দিক, ঈশান এবং পান্ডিয়ার সৌজন্যে ভারত টি২০-তে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ রান খাড়া করেছিল। যদিও তা শেষমেশ জয় আনতে পারল না।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ind vs sa 1st t20 controversy rises as hardik pandya refuses to give dinesh karthik strike ashish nehra reacts

Next Story
মিলার-ডুসেনের ব্যাটে খুন ভারত! সেরার সেরা স্কোর করেও থ্রিলারে হোঁচট পন্থদের