বিশ্বসেরা ভারত! ঐতিহাসিক টমাস কাপ জিতে প্ৰথমবার উড়ল গর্বের তেরঙা

ইতিহাস গড়ে প্ৰথমবারের মত থমাস কাপ চ্যাম্পিয়ন হল ভারত। উড়িয়ে দিল ইন্দোনেশিয়াকে।

ব্যাডমিন্টনে বিশ্বসেরা ভারত। ইন্দোনেশিয়াকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে প্ৰথমবারের মত টমাস কাপে চ্যাম্পিয়ন হল ভারত। ব্যাংককের টিম চ্যাম্পিয়নশিপে রবিবার উড়ল গর্বের তেরঙা। টমাস এবং উবার কাপের ৭৩ বছরের ইতিহাসে ভারত কখনও ফাইনালে পৌঁছয়নি। সেই নজির ভেঙে শুধুমাত্র প্ৰথমবার চ্যাম্পিয়নই হল না ইন্ডিয়া, সেইসঙ্গে চীন, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, ডেনমার্ক, মালয়েশিয়ার পথে ষষ্ঠ দেশ হিসেবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কীর্তি গড়ল।

রবিবার ইমপ্যাক্ট এরেনায় ঢোল, ‘ভারত মাতা কি জয়’ স্লোগানে মঞ্চ প্ৰস্তুত ছিলই। তারপরেই সেলিব্রেশনই দিনের শেষে। গোটা সপ্তাহ জুড়েই খেলার পাতায় শিরোনামে উঠে এসেছে ভারতীয় শাটলারদের কীর্তি। টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই ভারত ফেভারিট ছিল। তবে উবার কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মহিলা দল ছিটকে যাওয়ার পরে টমাস কাপে পুরুষরা ফিনিশিং লাইনে পৌঁছতে পারে কিনা, তা দেখার ছিল।

শুরুটা হয়েছিল লক্ষ্য সেনকে দিয়ে। কেন বিশ্বের অন্যতম উঠতি ব্যাডমিন্টন তারকা ধরা হয় লক্ষ্য সেনকে, তা প্রমাণ করলেন টমাস কাপে। বিশ্বের ক্রমপর্যায়ে নয় নম্বরে থাকা লক্ষ্য ফাইনালে পৌঁছেছিলেন কোয়ার্টার ফাইনাল এবং সেমিফাইনালে যথাক্রমে ভিক্টর এক্সেলসেন এবং লি জি জিয়াকে হারিয়ে।

আরও পড়ুন: মৃত্যুতে অবসান সব শত্রুতার! মাঙ্কিগেট কেলেঙ্কারি সরিয়ে সাইমন্ডসের প্রয়াণে ‘কান্না’ ভাজ্জিরও

তবে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ পাওয়া লক্ষ্যের শুরুটা মোটেই ভাল হয়নি। ওপেনিং গেমেই অলিম্পিক ব্রোঞ্জ পদকজয়ী এন্থনি গিন্তানের কাছে ৮-২১’এ হেরে পিছিয়ে পড়েছিলেন। তবে সাইড লাইনের ধারে কোচের কাছে পরামর্শ পেয়ে দ্রুত কামব্যাক করেন লক্ষ্য। অল ইংল্যান্ড ব্যাডমিন্টনের ফাইনালে পৌঁছনো তারকা আরও বেশি আগ্রাসী মূর্তি ধরেন। গিন্তানকে ফোর্সড এরর করতে বাধ্য করেন। প্ৰথম ম্যাচে বিশ্বের অন্যতম দ্রুতগতির প্লেয়ার গিন্তান লক্ষ্য সেনের ডিফেন্স ভাঙতে পারেননি। তারপরেই লক্ষ্য ওপেনিং ম্যাচ জিতে ভারতকে ১-০ এগিয়ে দিয়েছিলেন। ফলাফল ৮-২১, ২১-১৭, ২১-১৬।

লক্ষ্য সেনের পরে ডাবলসে ভারতকে জেতান স্বাত্তিকসাইরাজ-চিরাগ শেঠি জুটি। প্ৰথম গেমে হারলেও লক্ষ্য সেনের মতই কামব্যাক করে জয় ছিনিয়ে নেন ভারতের ডাবলস জুড়ি। প্ৰথম গেমে ১৮-২১’এ হারের পরে সত্ত্বিক-চিরাগ জুটির কাছে পরপর দুটো গেমে কার্যত উড়ে যায় মহাম্মদ হাসান-কেভিন সুকামুলজো জুটি। শেষ দুটো গেমের ফলাফল ২৩-২১, ২১-১৯।

তৃতীয় ম্যাচে কিদাম্বি শ্রীকান্ত স্ট্রেট সেটে জোনাথন ক্রিস্টিকে উড়িয়ে দিতেই কেল্লাফতে। ভারতের ইতিহাস গড়া নিশ্চিত হয়ে যায়। প্ৰথমবারের মত।

ঐতিহাসিক জয়ে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে ১ কোটি টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: India historic thomas cup win for the first time beating indonesia lakshya sen satwiksairaj chirag shetty kidambi srikanth

Next Story
ক্রিকেট বিশ্বে শনির ছায়া! পরপর মৃত্যু চার ক্রিকেটারের, রয়েছেন এক ভারতীয়ও