বড় খবর

ছেলের জন্য শচীনের ‘দুর্মূল্য’ উপহার! লিজেন্ডস দলের হয়ে খেলতে গিয়ে স্বপ্নপূরণ মেহেরাবের

বাংলাদেশ লিজেন্ডস দলের হয়ে খেলতে ভারতে এসেছেন মেহরাব হোসেন অপি।সেখানেই শচীনের সঙ্গে দেখা হয়ে গেল বাংলাদেশি তারকার।

Rabiul Islam Biddut

শচীন টেন্ডুলকার। একটি নাম। একটি নক্ষত্র। ক্রিকেট প্রেমীদের কাছে তিনি স্বয়ং ‘ঈশ্বর’! আট বছর আগে ব্যাট-প্যাড তুলে রেখেছেন। কিন্তু জনপ্রিয়তায় এখনও তিনি বিরাট কোহলি-মহেন্দ্র সিং ধোনিদের তুলনায় কোনও অংশে কম যান না। এখনও স্টেডিয়ামে শচীন, শচীন স্লোগান উঠে অবিরত।

আর হবেই না বা কেন! যে কীর্তি মাস্টারব্লাস্টার রেখে গিয়েছেন তা এখনও অম্লান, অক্ষত। একমাত্র ক্রিকেটার হিসাবে সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি করেছেন৷ টেস্ট এবং ওয়ানডে-দুই ফরম্যাটেই সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরির নজিরও শচীনের। ওয়ানডে ক্রিকেট ডাবলের দেখা পেয়েছে তাঁরই হাত ধরে। সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্রিকেটারকে আরো একবার ব্যাট হাতে বাইশ গজে দেখে নস্টালজিয়ায় ভেসে গিয়েছিলেন শচীনপ্রেমীরা।

রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে ভারত লিজেন্ডস দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন শচীন। বাংলাদেশ লিজেন্ডসের বিরুদ্ধে দেখা গেল সেই পুরোনো শচীনকে। একবারের জন্য দেখে মনে হয়নি তিনি ক্রিকেট ছেড়ে দিয়েছেন আট বছর হয়ে গিয়েছে। বাংলাদেশি বোলারদের পড়তে মোটেও অসুবিধে হয়নি। মনে হয়েছে এখনও ভারতীয় দলে দিব্যি খেলতে পারেন অনায়াসে দক্ষতায়।

আরো পড়ুন: ভালোবাসার মানুষের জন্য হেলমেট পরতেন না, জীবন দিয়ে প্রমাণ করেছেন রমন লাম্বা

বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা শচীনকে ব্যাট হাতে দেখেও আবেগ চেপে রাখতে পারেননি। এই তালিকায় রয়েছেন স্বয়ং বাংলাদেশের প্রাক্তন ওপেনার মেহেরাব হোসেন অপিও। বাংলাদেশ লিজেন্ডস দলের সঙ্গে যিনি রয়েছেন ভারতের রায়পুরে। ম্যাচের পরদিন (৬ মার্চ) দুপুরে একটি ব্যাটে শচীনের অটোগ্রাফ নিয়েছেন মেহেরাব। সেই ছবি আবার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট করেছেন মেহরাবের স্ত্রী ফারজানা হোসেন। তিনি লিখেছেন, “কোন ক্যাপশনেরই প্রয়োজন নেই। দুই কিংবদন্তি একসঙ্গে এবং আমার বড় ছেলের জন্য উপহার শচীনের পক্ষ থেকে।”
ঘটনা সবিস্তারে জানতে রায়পুরে ফোনে ধরা হয় মেহরাবকে৷

শচীনের অটোগ্রাফ প্রসঙ্গ তুলতেই তিনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে বলে চলেন, “ব্যাটটা আমিই এগিয়ে দিয়েছিলাম ছেলেকে শচীনের অটোগ্রাফ সমেত ব্যাট উপহার দেব বলে। ওঁর মতো কিংবদন্তির অটোগ্রাফ পাওয়া ব্যাট পেলে কার না ভালো লাগবে বলুন তো!”

আরো পড়ুন: বিশ্বকাপ জয়ের একবছর! ‘স্বপ্নের সওদাগর’ আকবর এখনও আবেগে ভাসেন

তা আর কী কথা হলো মাস্টাব্লাষ্টারের সঙ্গে? মেহরাব বলছিলেন, “শচীন আমাদের সকলের খোঁজখবর নিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্টের কথা এখনও মনে রয়েছে ওঁর। আমাকে বললেন- ওই টেস্ট দলের কে কে এসেছে? জানাই আমি, রফিক ভাই ও রাজিন সালেহ।”

মেহরাবের সঙ্গে শচীনের শেষবার দেখা হয়েছিল ২০১৯-এর শেষ দিকে কলকাতায়। ইডেন গার্ডেন্সে ভারত-বাংলাদেশের সেই টেস্টটি ছিল গোলাপি বলে৷ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ইডেনে চাঁদের হাঁট বসিয়েছিলেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়- কে ছিলেন না সেই গোলাপি উৎসবে। মেহরাব বলছিলেন, “কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে যে আমরা গিয়েছিলাম সেটা নিয়ে শচীন বলছিলেন। বাংলাদেশ ক্রিকেটের খোঁজ নিয়েছেন। আমাদের অভিষেক টেস্টের কথা এখনও মনে রেখেছেন উনি।”

দেশে ফিরে আসবেন কিছুদিনের মধ্যেই। আর শচীনের সেই ব্যাট তুলে দেবেন পুত্রের হাতে! বাংলাদেশের প্রথম ওডিআই শতরানকারীর স্বপ্নপূরণ বোধহয় এতদিন পরে হল।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: India legends xi vs bangladesh legends xi sachin tendulkar gifts his bat to mehrab hossains son

Next Story
সিরাজ-ইশান্তকে তুলোধোনা সুন্দরের বাবার! ছেলের সেঞ্চুরি না হওয়ায় ক্ষোভে বিস্ফোরণ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com