‘কখনই রোলমডেল হতে পারবে না’! কোহলিকে সপাটে আক্রমণ গম্ভীরের

বিরাট কোহলির স্ট্যাম্প মাইক কাণ্ডে উত্তাল ক্রিকেট মহল। তারপরেই কোহলিকে তোপ দাগলেন গৌতম গম্ভীর।

মাঠের মধ্যে বিরাট কোহলি বরাবর বিতর্কিত এক চরিত্র। নিজের সর্বশক্তি প্রয়োগ করে ঝাঁপিয়ে পড়েন প্রতিপক্ষ দলের ওপর। আর ক্যাপ্টেনকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে দেখে সতীর্থরাও উদ্দীপিত হয়ে ওঠেন। বাইশ গজে কোহলি বরাবর শিরোনামে উঠে আসেন।

তবে কখনও কখনও আবেগের বহিঃপ্রকাশ মাত্রাছাড়া হয়ে দাঁড়ায়। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে কেপটাউনের তৃতীয় টেস্টে কোহলিকে ফের ক্রুদ্ধ হতে দেখা গেল। ডিন এলগার ডিআরএস-এর নিয়মে বাঁচতেই ক্ষোভে ফেটে পড়লেন কোহলি। এরপরে যে কাণ্ড করলেন তা অভাবনীয়।

সিরিজের সম্প্রচারকারী চ্যানেল সুপারস্পোর্টকে স্ট্যাম্প মাইকেই তুলোধোনা করলেন। কোহলির সঙ্গে এই আক্রমণে যোগ দিতে দেখা গিয়েছে আর অশ্বিন, কেএল রাহুলকেও।

আরও পড়ুন: টেস্টের ইতিহাসে প্ৰথমবার, বোল্ড-LBW নয়, দুই ইনিংসেই ভারতীয়রা আউট স্রেফ ক্যাচে!

তবে স্ট্যাম্প মাইকের মাধ্যমে এভাবে ক্ষোভ উগরে দেওয়ার ঘটনায় পাল্টা বিতর্কের মুখে পড়েছেন কোহলিরা। সকলেই টিম ইন্ডিয়ার অখেলোয়াড়চিত ভঙ্গির সমালোচনায় সরব হয়েছেন। কোহলিকে ছাড়েননি গৌতম গম্ভীরও।

গম্ভীর স্টার স্পোর্টসে সরাসরি বলে দিয়েছেন, “কোহলি অপরিণত। স্ট্যাম্প মাইকে এরকম কথা বলে ভারতীয় অধিনায়কের মধ্যে সবথেকে খারাপ দৃষ্টান্ত স্থাপন করল ও। এভাবে কোহলি কখনও নতুন প্রজন্মের কাছে নিজেকে আদর্শ হিসাবে মেলে ধরতে পারবে না। ফার্স্ট ইনিংসের সময় ক্যাচের একটা আবেদনের সময় ৫০-৫০ সুযোগ ছিল। তখন তো ও নিশ্চুপ ছিল। মায়াঙ্কের ক্ষেত্রেও তো এরকম হল। দ্রাবিড় নিশ্চয় এই ইস্যুতে ওঁর সঙ্গে কথা বলবে।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

“স্রেফ প্রতিপক্ষ নয়, নিজের দলের বোলাররা যখন বল শাইন করে, তার ওপর ফোকাস করো। সবসময় প্রতিপক্ষকে ধরার চেষ্টায় ব্যস্ত।” স্ট্যাম্প মাইকে এরকমই বলতে শোনা যায় কোহলিকে। বল ট্র্যাকিং সিস্টেমে যে ছবি দেখানো হয়েছে, তা ভুল, এমন অভিযোগ করেন কেএল রাহুল, রবিচন্দ্রন অশ্বিনও।

দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংস চলাকালীন ২৭তম ওভারের ঘটনা। সেই সময় দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক ডিন এলগারকে বোলিং করছিলেন অশ্বিন। এমন সময়ে উইকেটের সামনে অশ্বিনের বল আছড়ে পড়ে এলগারের প্যাডে। আবেদনে যথারীতি সাড়াও দিয়ে দেন মরিস ইরাসমাস। তবে নন স্ট্রাইকিং এন্ডে দাঁড়িয়ে থাকা কিগান পিটারসেনের সঙ্গে আলোচনা করে রিভিউয়ের সিদ্ধান্ত নেন এলগার।

তবে হক আই-য়ে দেখা যায় বলে লেগ স্ট্যাম্পের বাইরে দিয়ে বাউন্স করে বেরিয়ে যাচ্ছে। এতেই জীবন পেয়ে যান এলগার। এরপরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন টিম ইন্ডিয়ার তারকারা। ব্রডকাস্টার সুপারস্পোর্টস-কে তুলোধোনা করে বসেন কোহলি-অশ্বিনরা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: India vs south africa gautam gambhir slams virat kohli over stump mic rant issue

Next Story
মানুষকে হুঁশ ফেরাতে কলকাতা পুলিশের হাতিয়ার এই ছবি, কীভাবে, জেনে নিন