বড় খবর


আইপিএলে ইতিহাস, স্টেইনকে গতিতে হারালেন স্বদেশীয় নর্তজে, গড়লেন বিরল নজির

নর্তজে রাজস্থানের বিপক্ষে মাত্র ৩৩ রানের বিনিময়ে রবিন উত্থাপ্পা এবং বাটলারের উইকেট দখল করেন। শেষদিকে রাবাদার সঙ্গে পার্টনারশিপে হার্ড হিটার রাহুল তেওটিয়াকে বেশি বাড়তে দেননি।

আইপিএলের ইতিহাসে নজির গড়ে ফেললেন দিল্লির প্রোটিয়াজ পেসার এনরিখ নর্তজে। টুর্নামেন্টের ইতিহাসের দ্রুততম তিন ডেলিভারির মালিকই এখন তিনি। বুধবারই দিল্লি ক্যাপিটালস রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে ১৩ রানে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে। সেই ম্যাচেই আগুন ঝড়ালেন দিল্লির দুই তারকা কাগিসো রাবাদা এবং এনরিখ নর্তজে। এর মধ্যে নর্তজে বুধবার ১৫৬.২ কিমি গতিতে বল করে ভেঙে দেন স্বদেশীয় ডেল স্টেইনের (১৫৪.৪ কিমি) করা আইপিএলে দ্রুততম বলের নজির।

তবে নর্তজের আগুনে বলের মোকাবিলা ভালোভাবেই করলেন রাজস্থানের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জোস বাটলার। প্রোটিয়াজ তারকার ৯৭ মাইল গতির বল সপাটে বাউন্ডারি হাঁকালেন। এরপর ইংরেজ বনাম প্রোটিয়াজ পেসারের লড়াই বেশ উপভোগ্য হয়ে ওঠে। যদিও শেষ হাসি হাসেন নর্তজেই। সেই ওভারেই বাটলারের উইকেট ছিটকে দেন ১৫৫ কিমির গতির ডেলিভারিতে। সেই বলটি আবার আইপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম।

আরো পড়ুন: জোফ্রা আর্চারের মাঠেই বিহু নাচ, ‘আইপিএল ভালোবাসি’ বলে দিলেন পাঠান

নর্তজের ভয়াল গতি আর দুরন্ত পারফরম্যান্স প্রশ্ন তুলে দিয়েছে, তিনিই কি চলতি আইপিএলে বিদেশি সেরা বোলার! অমিত মিশ্র এবং ইশান্ত শর্মা চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার পর দিল্লি ক্যাপ্টেন শ্রেয়স আইয়ারের বোলিং আক্রমণের তুরুপের তাস হয়ে উঠেছেন আপাতত তিনিই।

অলরাউন্ডার ক্রিস ওকসের পরিবর্তে টুর্নামেন্ট শুরুর ঠিক আগেই দিল্লি ক্যাপিটালস সই করায় এনরিখ নর্তজেকে। তিনিই আপাতত ডেল স্টেইনকে সরিয়ে টুর্নামেন্টের ইতিহাসে সবথেকে জোরে বলের মালিক। চলতি আইপিএলে দ্রুততম বলের পরিসংখ্যানে নর্তজের সঙ্গেই পাল্লা দিচ্ছেন রাজস্থান পেসার জোফ্রা আর্চার। ঘটনাচক্রে, নর্তজে গত বছর আইপিএলে কেকেআর স্কোয়াডের অংশ ছিলেন। তবে কাঁধে চোট থাকায় রিজার্ভ বেঞ্চেই কেটে গিয়েছিল গোটা টুর্নামেন্ট। সেই হিসাবে চলতি আইপিএলেই অভিষেক ঘটালেন তিনি। ২০১৮ সালে ডেল স্টেইন স্বয়ং নর্তজের প্রশংসা করেন।

নর্তজে রাজস্থানের বিপক্ষে মাত্র ৩৩ রানের বিনিময়ে রবিন উত্থাপ্পা এবং বাটলারের উইকেট দখল করেন। শেষদিকে রাবাদার সঙ্গে পার্টনারশিপে হার্ড হিটার রাহুল তেওটিয়াকে বেশি বাড়তে দেননি। দুই প্রোটিয়াজ পেসারের দাপটে রাজস্থান স্কোরবোর্ডে ১৪৮/৮ এর বেশি স্কোরবোর্ডে তুলতে পারেনি।

গত বছর ভারতের বিপক্ষে টেস্টে অভিষেক ঘটে নর্তজের। শুরু থেকেই পেস এবং লেংথে নজর কাড়েন বিশ্ববাসীর। কিংস ইলেভেন ম্যাচে মায়াঙ্ক আগারওয়ালকেও হেলমেটে আঘাত করেছিলেন। সেই বল অবশ্য বাউন্ডারি হয়ে যায়।

Read the full article in ENGLISH

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Ipl 2020 anrich nortje becomes the fasted delivary holder in ipl history

Next Story
জোফ্রা আর্চারের মাঠেই বিহু নাচ, ‘আইপিএল ভালোবাসি’ বলে দিলেন পাঠান
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com