বড় খবর

বোলিংয়ে গন্ডগোল নেই, নারিনকে নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিল আইপিএল

কিংসদের বিরুদ্ধেই ম্যাচে কেকেআর বেশ কঠিন অবস্থায় ছিল। কিংসদের নিকোলাস পুরান, প্রভুসিমরণ সিং নারিনের ঘূর্ণি বুঝতেই পারেননি। শেষ ওভারেও ১৪ রান বাঁচিয়ে দিয়ে নায়ক নারিন।

অবশেষে স্বস্তি মিলল নাইট রাইডার্সের। সুনীল নারিনকে সন্দেহজনক বোলিং একশনের তালিকা থেকে সরিয়ে দিল আইপিএলের আয়োজকরা। রবিবারে আইপিএলের তরফে জানানো হয়, লিগের সন্দেহজনক বোলিং একশনের কমিটির তরফে নারিনকে সন্দেহমুক্ত ঘোষণা করা হল। অক্টোবরের ১০ তারিখে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ম্যাচের পরেই আম্পায়াররা ত্রুটিপূর্ণ বোলিং একশনের অভিযোগ এনেছিলেন নারিনের বিরুদ্ধে। তারপরেই সন্দেহজনক বোলিংয়ের তালিকায় রাখা হয়েছিল ক্যারিবীয় স্পিনারের নাম।

নারিনের মুক্তি কেকেআরের কাছে বড় পাওনা। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ম্যাচের ঠিক আগেই নেতৃত্বে বদল এনেছিল কেকেআর। দীনেশ কার্তিক সরে দাঁড়ানোর পর নতুন অধিনায়ক হয়েছেন ইয়ন মর্গ্যান।

আরো পড়ুন: নারিনের বিরুদ্ধে চাকিংয়ের অভিযোগ আম্পায়ারদের, বাদ পড়তে পারেন আইপিএল থেকে

তবে নেতা হয়েই পরাজয়ের স্বাদ হজম করতে হয়েছে গত বছর বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ফের প্রকট হয়েছে দলের ব্যাটিং ব্যর্থতা। সন্দেহজনক বোলিং তালিকাভুক্ত হওয়ায় নারিনকে খেলায়নি কেকেআর।

সেই ম্যাচের পরেই অবশেষে স্বস্তি মিলল কেকেআরের। নারিনকে ব্ল্যাকলিস্টেড করার পরেই নারিনকে নিয়ে সিদ্ধান্তের পুনর্বিবেচনা করার আবেদন করা হয় কেকেআরের পক্ষ থেকে। নারিনের বোলিং একশনের ফুটেজও জমা দিয়েছিল শাহরুখের ফ্র্যাঞ্চাইজি।

তা খতিয়ে দেখেই লিগের বোলিং একশন কমিটি জানিয়ে দিল, নারিনের কনুই ভাঙছে নির্ধারিত সীমানার মধ্যেই। তবে কেকেআরকে সতর্ক করে কমিটি জানিয়ে দিয়েছে, জমা দেওয়া ফুটেজের মতই যেন নিয়ম মেনে নারিন আগামী আইপিএলের ম্যাচে বোলিং চালিয়ে যান।

এর আগে আইপিএলের প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়েছিল, “আবু ধাবিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ম্যাচে বল করার সময় নারিনের নাম অবৈধ বোলিং একশনের জন্য রিপোর্ট করা হয়েছে।”

সেই সময় প্রেস বিবৃতিতে আরো জানানো হয়েছিল, আর একবার সন্দেহভাজন বোলিংয়ের জন্য আম্পায়াররা নাম রিপোর্ট করলেই আইপিএলে খেলা বন্ধ হয়ে যাবে তাঁর। তখন নতুন করে বিসিসিআইয়ের বোলিং একশন কমিটির কাছে পরীক্ষা নিয়ে ছাড়পত্র পেতে হবে।

আইপিএলে অবৈধ বোলিং একশনের নিয়ম মেনে নারিনের বিরুদ্ধে ম্যাচ রেফারির কাছে রিপোর্ট নথিভুক্ত করেছিলেন দুই অনফিল্ড আম্পায়ার উল্লাস গান্ধী এবং ক্রিস গাফ্যানি।

এর আগে একাধিকবার নারিনের বিরুদ্ধে চাকিংয়ের অভিযোগ উঠেছে। এতবার বোলিং একশনে ত্রুটি ধরা পড়ায় নারিন একসময় বোলিং ছেড়ে ব্যাটিংয়ে মনোনিবেশ করেছিলেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Ipl 2020 sunil narine removed from the ipl suspect action warning list

Next Story
পুজোর আগেই যেন পুজো! আইলিগের ট্রফি পেয়ে উল্লাসে মাতোয়ারা মোহনবাগান
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com
X