scorecardresearch

বড় খবর

কিলার মিলারের তান্ডব বাইশ গজে, দ্বিতীয় জয় অধরাই ধোনির সিএসকের

প্ৰথমে ব্যাট করে সিএসকেকে রবিবার টানেন রুতুরাজ গায়কোয়াড এবং আম্বাতি রায়ডু। চেন্নাই স্কোরবোর্ডে ১৬৩ তুলেছিল।

চেন্নাই সুপার কিংস: ১৬৯/৫
গুজরাট টাইটান্স: ১৭০/৭

কিলার মিলারের ব্যাটে ধ্বংস হয়ে গেল চেন্নাই। আরসিবির বিরুদ্ধে চলতি আইপিএলের প্ৰথম জয় পেয়েছিল সিএসকে। দ্বিতীয় জয় ধোনিদের সামনে রুখে দিলেন ডেভিড মিলার। ৫১ বলে ৯৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে মিলার একা জিতিয়ে দিলেন গুজরাট টাইটান্সকে।

বোলারদের ত্রাস ছিলেন একসময়। তবে বহুদিন নিজের পুরনো ফর্মে নেই। আইপিএলেও সেরকম সম্ভ্রম আর আদায় করতে পারেন না। জাতীয় দল থেকে বহুদিন বাদ পড়েছেন।

আরও পড়ুন: ১৫ সেকেন্ড পরেও DRS! কেনের বিতর্কিত রিভিউয়ে মাঠেই আম্পায়ারের সঙ্গে তোলপাড় বেয়ারস্টোর

তবে চলতি আইপিএল যেন মিলারের কাছে পুরনো স্কি ফিরিয়ে আনার প্ল্যাটফর্ম হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এর আগে মিলারের ব্যাট থেকে কয়েকদিন আগেই বিধ্বংসী ইনিংস বেরিয়েছিল। ১৪ বলে ৩১ করেছিলেন আগের ম্যাচে। আর এদিন রবিবারে মিলারের ইনিংসের তাপেই শেষ হয়ে গেল রবীন্দ্র জাদেজার সিএসকের দ্বিতীয় জয়ের স্বপ্ন।

চেন্নাই স্কোরবোর্ডে তুলেছিল মাত্র ১৬৯। সেই রান তাড়া করে মাত্র এক বল বাকি থাকতে রুদ্ধশ্বাস জয় পেল।গুজরাট। হার্দিক পান্ডিয়া চোটের জন্য খেলতে পারেননি। তার বদলে অধিনায়ক হিসেবে নেমে ব্যাটে-বলে চরম পারফরম্যান্স মেলে ধরলেন রশিদ খান। বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ২৯ রান যেমন খরচ করলেন। ব্যাট হাতে নেমে মিলারের সঙ্গে ২১ বলে ৪০ করে দলকে জয়ের স্টেশনে পৌঁছে দেন রশিদ খান।

ওভার পিছু ৮ রান তাড়া করতে নেমে গুজরাট শুরুটা শোচনীয় করেছিল। পাওয়ার প্লে-র মধ্যেই ১৬/৩ থেকে একসময় টাইটান্স ৪৮/৪ হয়ে যায় ঋদ্ধিমান সাহা ফিরে যাওয়ার পরে। রবীন্দ্র জাদেজা, মহেশ থিকসানা, মুকেশ চৌধুরীরা যেন প্রহেলিকা নিয়ে হাজির হয়েছিলেন গুজরাটের ব্যাটিং লাইন আপের সামনে।

তবে ষষ্ঠ উইকেটে রশিদ-মিলার জুটিতে ৭০ রান যোগ করে ম্যাচ চেন্নাইয়ের হাত থেকে ছিনিয়ে নেয় টাইটান্স শিবির। ১৯ তম ওভারে ব্র্যাভো রশিদ এবং আলজেরি জোসেফকে ওভারের শেষ দুই বলো ফিরিয়ে দিয়ে মরণকামড় দিয়েছিলেন। শেষ ওভারের জয়ের জন্য গুজরাটের দরকার ছিল ১৩ রান। ক্রিস জর্ডন অবশ্য মিলারের সামনে সেই রান ডিফেন্ড করতে পারেননি। তৃতীয় এবং চতুর্থ বলে পরপর ছক্কা, চার হাঁকিয়ে ম্যাচ ফিনিশ করে দেন প্রোটিয়াজ তারকা।

তার আগে চেন্নাইয়ের হয়ে বহুদিন পরে রানে ফিরেছিলেন রুতুরাজ গায়কোয়াড। ৪৮ বলে ৭৩ রানের ইনিংসে দলকে ভালো পজিশনে পৌঁছে দিয়েছিলেন। আম্বাতি রায়ডু (৩১ বলে ৪৬) এবং জাদেজা (১২ বলে ২২) দলকে লড়াই করার মত পুঁজি এনে দেন। তবে শেষ রক্ষা হল না।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Ipl news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ipl 2022 david miller slams quick fire half century to guide gujarat titans to a thrilling finish against csk