বড় খবর

ডার্বি নিয়ে এখনই ভাবছে না সবুজ মেরুন, পাখির চোখ কেরালা ম্যাচেই

কয়েক দিনের মধ্যেই ডার্বি। তবে এখনই ডার্বির কথা ভাবতে নারাজ এটিকে মোহনবাগন। বরং ম্যাচ ধরে এগোতে চাইছে তাঁরা।

দরজায় কড়া নাড়ছে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের নতুন মরশুম। ১৯ নভেম্বর কেরল ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে উদ্বোধনী ম্যাচ খেলতে নামবে এটিকে মোহন বাগান। গোয়ায় চলছে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। হোটেলে এবং বোনোলিনের স্টেডিয়ামে কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস সবুজ মেরুন ব্রিগেডের রণনীতি তৈরিতে ব্যস্ত। এবার প্রতিযোগিতার নিয়ম অনুযায়ী, বিদেশির সংখ্যা প্রথম একদশে কমেছে। ফলে ভারতীয় ফুটবলাদের সুযোগ বেড়েছে। হাবাসের দলে এবার রয়েছে পাঁচ জনের বং-বিগ্রেড। প্রীতম কোটাল, শুভাশিস বসু, প্রবীর দাস, শেখ সাহিল এবং অভিলাষ পাল। কেমন হয়েছে প্রস্তুতি? নতুন মরশুমে মাঠে নামার আগে কী ভাবছেন তাঁরা! কীভাবে দলকে নিয়ে যেতে চান চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে? এটিকে এমবি মিডিয়া টিমকে তা জানালেন দলের তিন সিনিয়র ও অভিজ্ঞ তারকা- প্রীতম শুভাশিস এবং প্রবীর।

প্রীতম কোটাল
“হুগো, কাউকো, লিস্টনরা দলে আসায় আমাদের টিমের আক্রমণ শক্তি অনেক বেড়ে গিয়েছে। সামনে রয়, উইলিয়াম, মনবীররা রয়েছে গোলের জন্য। তাদের গোলের পাশ বাড়ানোর জন্য ওই তিনজনই উপযুক্ত। প্রত্যেকেই খুব ভালো ফর্মে রয়েছে। দু’দফায় মানে এ এফ সির আগে এবং এখন ভালো প্রাক মরশুমের প্রস্তুতি হয়েছে। গতবার আমরা অল্পের জন্য চ্যাম্পিয়ন হতে পারিনি। গতবারের ভুল শুধরে নিতে পারলে এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া কেঊ আটকাতে পারবে না।”

আরও পড়ুন: বিরাট অভিযোগে বিদ্ধ সৌরভ! ছাড়লেন এটিকে-মোহনবাগানের ডিরেক্টর পদ

“রক্ষণ নিয়ে ভাবার কিছু নেই। আমাদের রক্ষণ ভাগ এবার যথেষ্ট শক্তিশালী। হাবাস স্যর নানা ফর্মেশনে আমাদের রক্ষণভাগকে তৈরি করেছেন। সবারই জানা হাবাস স্যরের রক্ষণ রণনীতি কতটা কার্যকর হয়। আমাদের দলে প্রতিযোগিতার সেরা ছয় বিদেশী আছে। কিন্তু মাঠে বিদেশীর সংখ্যা এবার কমে যাওয়ায় ভারতীয়দের দায়িত্ব যেমন বাড়বে, পাশাপাশি নিজেকে প্রমাণ করার বেশি সুযোগও পাব আমরা। আমাদের সবথেকে বড় সুবিধা গত কয়েকবছর প্রায় একই দল রেখে দিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এক দল অনেকদিন খেললে দলীয় সংহতির সুবিধা গুলি পাওয়া যায়। সেটা আমরা পাব।”

শুভাশিস বসু
“আমদের প্রথম লক্ষ্য কেরল ব্লাস্টার্স ম্যাচ জেতা। গতবারের মত এবারের শুরুটাও ভাল করতে হবে। তারপর ডার্বি নিয়ে ভাবব। ম্যাচ ধরে ছরে এগোনই আমাদের লক্ষ। এরপর শেষ চারে ওঠার অঙ্ক কষতে হবে। কোন দল এবার চ্যাম্পিয়নের দাবিদার সেটা কয়েকটা ম্যাচ না গেলে বলা সম্ভব নয়। তবে এটিকে মোহন বাগান এবারও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দাবিদার এটা বলতে পারি।

আরও পড়ুন বেটিং কোম্পানির হাতে আইপিএল দল! ভয়ঙ্কর অভিযোগে সৌরভদের তুলোধোনা ললিত মোদির

“আমি মনে করি, গত বারের চেয়ে আমদের দল এবার অনেক বেশি শক্তিশালী। রক্ষণও খুব ভাল হয়েছে। গোল অক্ষত রেখে জেতার জন্য যা রসদ থাকা দরকার তা আমাদের টিমে রয়েছে। তিরি, কার্ল, প্রীতমদা, আশুতোষ, আমি –রক্ষনে কোচের হাতে প্রচুর অপশন। মাঝ মাঠেও পাসারের সংখ্যা বেড়েছে বুমোস, কাউকোদের যোগদানে। আমরা একটা টিম হিসাবে খেলি, সবাই রক্ষণ সামলাতে নামে। আবার আক্রমনেও উঠি একসঙ্গে। আমাদের কোচের সেটাই ফুটবল দর্শন।”

প্রবীর দাস
“প্রচন্ড খাটছি। আমার মত সবাই খাটছে। দারুণ প্র্যাকটিস হচ্ছে। এবার কিছুতেই ট্রফি হাতছাড়া করা যাবে না। তবে এখণ মাথায় শুধু কেরল ব্লাস্টার্স ম্যাচ। যে কোন প্রতিযোগিতারই প্রথম ম্যাচটা গুরুত্বপূর্ণ। তারপর ম্যাচ ধরে এগোতে চাই। কেরল ম্যাচ জেতার পর ডার্বি নিয়ে ভাবব। অসুস্থতা ও চোট সারিয়ে প্রায় চারমাস পর অনুশীলনে নেমেছি। তাই আমার কাছে এবারের প্রতিযোগিতা খুব গুরুত্বপুর্ণ। সুযোগ পেলে সেরাটা দেব।”

“আমাদের দলের প্রথম একদশে জায়গা পাওয়ার জন্য স্বাস্থ্যকর প্রতিযোগিতা আছে। কারণ সব পজিশনেই একাধিক ভাল ফুটবলার আছে, গতবারের চেয়ে এবারের দল আরও শক্তিশালী। হুগো, কাউকো, লিস্টন, আশুতোষরা যুক্ত হয়েছে। কোন দল আমাদের সঙ্গে চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে থাকবে সেটা এখনই বলা সম্ভব নয়। দু-তিন রাউন্ড গেলে হয়তো বোঝা যাবে।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Isl 2021 atk mb eyeing on kerala blasters match before concentrating on derby

Next Story
পেনশনে বাধ্যতামূলক আধার, এ নিয়ে কী বলল সুপ্রিম কোর্ট?Aadhaar update history can now be downloaded online
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com